মঙ্গলবার, ২০শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং, ৮ই ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, রাত ১২:০৪
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Monday, November 7, 2016 8:58 am
A- A A+ Print

‘ডুব’ বিতর্কে যা বললেন তাঁরা…

b328981b14b539cd402b20bb603445d7-untitled-6t

ভারতের পশ্চিমবঙ্গের একটি দৈনিকে প্রকাশিত হয়েছে, বাংলাদেশ ও ভারতের যৌথ প্রযোজনায় তৈরি মুক্তি প্রতীক্ষিত সিনেমা ডুব-এ হুমায়ূন আহমেদের চরিত্রে অভিনয় করেছেন ইরফান খান। এরপর থেকে চারদিকে শুরু হয় আলোচনা। ডুব কি সত্যিই বাংলাদেশের জনপ্রিয় এই লেখকের জীবনী নিয়ে নির্মিত? এই প্রশ্নের জবাবে ছবির নির্মাতা মোস্তফা সরয়ার ফারুকী ও অভিনেত্রী তিশা সাফ বলে দেন, ‘না’। গতকাল রোববার সকালে এ প্রসঙ্গে মতামত জানান হুেমায়ূন আহমেদের প্রথম পক্ষের মেয়ে শীলা আহমেদও স্ত্রী মেহের আফরোজ শাওন কীভাবে জানলেন ‘ডুব’ ছবিতে হুমায়ূন আহমেদ প্রসঙ্গটি আছে?

শীলা: আনন্দবাজার পত্রিকার একজন সাংবাদিক ফোন করে বললেন, ডুব সিনেমা নাকি আমার বাবা হুমায়ূন আহমেদের জীবনী অবলম্বনে বানানো। তখন আমি বললাম, সিনেমাটা যেহেতু এখনো মুক্তিই পায়নি, তাই এ বিষয়ে কিছু বলতেও পারছি না। শাওন: আনন্দবাজার পত্রিকার সাংবাদিককে বললাম, হুমায়ূন আহমেদের ওপর এ রকম একটা ছবি হচ্ছে, আপনার কাছেই প্রথম শুনলাম। এ নিয়ে আমার কোনো ধারণাই নেই। ডুব ছবির পরিচালকের সঙ্গে কখনো হুমায়ূন আহমেদের দেখা হয়েছে বলে আমার মনে হয় না। হুমায়ূন আহমেদের সৃষ্টি নিয়ে যাঁরা কাজ করেন, তাঁরা কি অনুমতি নেন? শীলা: আজ রবিবার নাটকটি হিন্দিতে দেখানো হচ্ছে, অথচ আমরা জানি না! বাবার বই নিয়ে সিনেমা, নাটক হচ্ছে, আমরা জানিই না! মৃত্যুর পর তাঁর গল্প-উপন্যাসের বই প্রকাশিত হচ্ছে, আমরা কিছুই জানি না। বাবার আঁকা ছবির প্রদর্শনী হচ্ছে, অথচ আমরা জানি না। চার বছর ধরেই এমনটা চলছে। হঠাৎ ফারুকী কোনো সিনেমা বানালেন, সেখানে বাবার কোনো নাম উল্লেখ করাও হয়নি, তা নিয়ে এত বিতর্ক কেন, বুঝতে পারছি না! শাওন: এখন পর্যন্ত হুমায়ূন আহমেদের সৃষ্টি বা লেখা নিয়ে কেউ কাজ করলে অনুমতি নিয়েই করেছেন। পরিবারের সবার কাছ থেকেই অনুমতি নেওয়া উচিত। আরেকটা কথা, হুমায়ূন আহমেদের সৃষ্টি নিয়ে কাজ করার মতো যোগ্যতাও তো থাকতে হবে। এ ঘটনার পর ‘ডুব’ ছবির নির্মাতা ফারুকীর সঙ্গে কথা হয়েছে? শীলা: কোনো কথা হয়নি, বলার প্রয়োজনও মনে করিনি। শাওন: আমি তো মনে করি, ফারুকী সাহেব যদি হুমায়ূন আহমেদের জীবনী বা তাঁকে নিয়ে কিছু করেন, তাহলে কথা বলার দায়িত্বও তাঁর। অনেকেই বলছেন, এটা মুক্তি প্রতীক্ষিত ছবির প্রচারণার একটি কৌশল। আপনাদেরও কি তা-ই মনে হয়? শীলা: প্রচারণার কৌশল হতেও পারে, আবার না-ও হতে পারে। আমি এটা তখনই বলতে পারতাম, যদি তাঁকে ভালোমতো চিনতাম। একটা মানুষ যখন সিনেমা বানাবেন, তখন তিনি অবশ্যই চাইবেন, সবাই দেখুক। ছবির প্রচার তো তাঁকে করতেই হবে। এখানে তাঁর ব্যবসাও জড়িত। এটা অনেকের হয়তো ভালো না-ও লাগতে পারে, কিন্তু দোষারোপ তো করতে পারব না। শাওন: ফারুকী সাহেবের সঙ্গে আমার কখনো দেখা হয়নি। এই সৌভাগ্য হয়তো হুমায়ূন আহমেদেরও হয়নি (হাসি)। তাই উনি কী কারণে কী করতে পারেন, সে ধারণাও আমার নেই। উনি যেমন পরিষ্কার করে বলে দিয়েছেন বায়োপিক বানাচ্ছেন না, ঠিক তেমনি হুমায়ূন আহমেদ যে এই ছবিতে কোনোভাবে সম্পৃক্ত নন, সেই বিষয়টিও নিশ্চিত করার দায়িত্ব তাঁর। পরিষ্কার করে বলে দেওয়া উচিত, হুমায়ূন আহমেদের সঙ্গে ডুব ছবির কোনো সম্পর্ক নেই।

Comments

Comments!

 ‘ডুব’ বিতর্কে যা বললেন তাঁরা…AmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

‘ডুব’ বিতর্কে যা বললেন তাঁরা…

Monday, November 7, 2016 8:58 am
b328981b14b539cd402b20bb603445d7-untitled-6t

ভারতের পশ্চিমবঙ্গের একটি দৈনিকে প্রকাশিত হয়েছে, বাংলাদেশ ও ভারতের যৌথ প্রযোজনায় তৈরি মুক্তি প্রতীক্ষিত সিনেমা ডুব-এ হুমায়ূন আহমেদের চরিত্রে অভিনয় করেছেন ইরফান খান। এরপর থেকে চারদিকে শুরু হয় আলোচনা। ডুব কি সত্যিই বাংলাদেশের জনপ্রিয় এই লেখকের জীবনী নিয়ে নির্মিত? এই প্রশ্নের জবাবে ছবির নির্মাতা মোস্তফা সরয়ার ফারুকী ও অভিনেত্রী তিশা সাফ বলে দেন, ‘না’। গতকাল রোববার সকালে এ প্রসঙ্গে মতামত জানান হুেমায়ূন আহমেদের প্রথম পক্ষের মেয়ে শীলা আহমেদও স্ত্রী মেহের আফরোজ শাওন

কীভাবে জানলেন ‘ডুব’ ছবিতে হুমায়ূন আহমেদ প্রসঙ্গটি আছে?

শীলা: আনন্দবাজার পত্রিকার একজন সাংবাদিক ফোন করে বললেন, ডুব সিনেমা নাকি আমার বাবা হুমায়ূন আহমেদের জীবনী অবলম্বনে বানানো। তখন আমি বললাম, সিনেমাটা যেহেতু এখনো মুক্তিই পায়নি, তাই এ বিষয়ে কিছু বলতেও পারছি না।
শাওন: আনন্দবাজার পত্রিকার সাংবাদিককে বললাম, হুমায়ূন আহমেদের ওপর এ রকম একটা ছবি হচ্ছে, আপনার কাছেই প্রথম শুনলাম। এ নিয়ে আমার কোনো ধারণাই নেই। ডুব ছবির পরিচালকের সঙ্গে কখনো হুমায়ূন আহমেদের দেখা হয়েছে বলে আমার মনে হয় না।
হুমায়ূন আহমেদের সৃষ্টি নিয়ে যাঁরা কাজ করেন, তাঁরা কি অনুমতি নেন?
শীলা: আজ রবিবার নাটকটি হিন্দিতে দেখানো হচ্ছে, অথচ আমরা জানি না! বাবার বই নিয়ে সিনেমা, নাটক হচ্ছে, আমরা জানিই না! মৃত্যুর পর তাঁর গল্প-উপন্যাসের বই প্রকাশিত হচ্ছে, আমরা কিছুই জানি না। বাবার আঁকা ছবির প্রদর্শনী হচ্ছে, অথচ আমরা জানি না। চার বছর ধরেই এমনটা চলছে। হঠাৎ ফারুকী কোনো সিনেমা বানালেন, সেখানে বাবার কোনো নাম উল্লেখ করাও হয়নি, তা নিয়ে এত বিতর্ক কেন, বুঝতে পারছি না!
শাওন: এখন পর্যন্ত হুমায়ূন আহমেদের সৃষ্টি বা লেখা নিয়ে কেউ কাজ করলে অনুমতি নিয়েই করেছেন। পরিবারের সবার কাছ থেকেই অনুমতি নেওয়া উচিত। আরেকটা কথা, হুমায়ূন আহমেদের সৃষ্টি নিয়ে কাজ করার মতো যোগ্যতাও তো থাকতে হবে।
এ ঘটনার পর ‘ডুব’ ছবির নির্মাতা ফারুকীর সঙ্গে কথা হয়েছে?
শীলা: কোনো কথা হয়নি, বলার প্রয়োজনও মনে করিনি।
শাওন: আমি তো মনে করি, ফারুকী সাহেব যদি হুমায়ূন আহমেদের জীবনী বা তাঁকে নিয়ে কিছু করেন, তাহলে কথা বলার দায়িত্বও তাঁর।
অনেকেই বলছেন, এটা মুক্তি প্রতীক্ষিত ছবির প্রচারণার একটি কৌশল। আপনাদেরও কি তা-ই মনে হয়?
শীলা: প্রচারণার কৌশল হতেও পারে, আবার না-ও হতে পারে। আমি এটা তখনই বলতে পারতাম, যদি তাঁকে ভালোমতো চিনতাম। একটা মানুষ যখন সিনেমা বানাবেন, তখন তিনি অবশ্যই চাইবেন, সবাই দেখুক। ছবির প্রচার তো তাঁকে করতেই হবে। এখানে তাঁর ব্যবসাও জড়িত। এটা অনেকের হয়তো ভালো না-ও লাগতে পারে, কিন্তু দোষারোপ তো করতে পারব না।
শাওন: ফারুকী সাহেবের সঙ্গে আমার কখনো দেখা হয়নি। এই সৌভাগ্য হয়তো হুমায়ূন আহমেদেরও হয়নি (হাসি)। তাই উনি কী কারণে কী করতে পারেন, সে ধারণাও আমার নেই। উনি যেমন পরিষ্কার করে বলে দিয়েছেন বায়োপিক বানাচ্ছেন না, ঠিক তেমনি হুমায়ূন আহমেদ যে এই ছবিতে কোনোভাবে সম্পৃক্ত নন, সেই বিষয়টিও নিশ্চিত করার দায়িত্ব তাঁর। পরিষ্কার করে বলে দেওয়া উচিত, হুমায়ূন আহমেদের সঙ্গে ডুব ছবির কোনো সম্পর্ক নেই।

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X