সোমবার, ১৯শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং, ৭ই ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, সকাল ৮:০৬
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Monday, November 14, 2016 7:20 am
A- A A+ Print

ড. আব্দুর রাজ্জাক বিশ্বাসঘাতক: ওলামা লীগ

161068_1

আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ড. আব্দুর রাজ্জাককে বিশ্বাসঘাতক বলে মন্তব্য করেছে আওয়ামী ওলামা লীগ। রাষ্ট্রধর্ম সম্পর্কে তার মন্তব্যকে বাংলাদেশের ইতিহাসে এক অমার্জনীয় বিশ্বাসঘাতকতারই বহিঃপ্রকাশ বলে উল্লেখ করা হয়। সংবাদমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে ওলামা লীগ এ সব মন্তব্য ড. আব্দুর রাজ্জাকের শাস্তি দাবি করা হয়। বিবৃতিতে বলা হয়, শনিবার এক আলোচনা সভায় আব্দুর রাজ্জাক বলেছেন ‘সুযোগ পেলে রাষ্ট্রধর্ম তুলে দেওয়া হবে’ এমন বক্তব্য আওয়ামী লীগের নয়, এ বক্তব্য আব্দুর রাজ্জাকের ব্যক্তিগত বলে মনে করে ওলামা লীগ। তবে এ ধরনের বক্তব্য দিয়ে আব্দুর রাজ্জাক ধর্ম-দেশ ও দলবিরোধী অবস্থান গ্রহণ করেছেন। কারণ, আওয়ামী লীগের নির্বাচনী প্রতিশ্রুতি ছিল কোরআন ও সুন্নাহবিরোধী কোনো আইন পাস করা হবে না। বিবৃতিতে স্বাক্ষর করেন আওয়ামী ওলামা লীগের কার্যকরী সভাপতি আব্দুস সাত্তার, সাধারণ সম্পাদক আবুল হাসান শেখ শরীয়তপুরী, সহ-সভাপতি হাফেজ মুসতফা চৌধুরী, মুফতি মা’ছুম বিল্লাহ নাফেয়ী ও মাওলানা শোয়াইব আহমদ গোপালগঞ্জী ও হাফেজ মাওলানা আব্দুল জলীল। বিবৃতিতে আরো বলা হয়, এক্ষেত্রে নির্বাচনি প্রতিশ্রুতির বিপরীতে এই বক্তব্য দিয়ে আব্দুর রাজ্জাক নিজেকে চরম সাম্প্রদায়িক, দেশবিরোধী, দলবিরোধী এবং উগ্রহিন্দু সন্ত্রাসবাদীদের শ্রেণিভুক্ত প্রমাণ করলেন। এতে আওয়ামী লীগের ভাবমূর্তি নষ্ট করলেন। বিবৃতিতে ওলামা লীগ নেতারা বলেন, আব্দুর রাজ্জাক কাকে খুশী করতে এ বক্তব্য দিলেন? বিবৃতিতে এই কুলাঙ্গারকে দল থেকে বহিষ্কারসহ রাষ্ট্রধর্ম অবমাননার ফলশ্রুতিতে সর্বোচ্চ শাস্তি দাবি করেন। উল্লেখ্য, গত শনিবার দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবের ভিআইপি লাউঞ্জে সার্ক কালচারাল সোসাইটি আয়োজিত এক গোল টেবিল বৈঠকে আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ড. আব্দুর রাজ্জাক বলেন, ‘আমরা জীবন বাজি রেখে যুদ্ধ করেছি একটি অসাম্প্রদায়িক রাষ্ট্রের জন্য। আমি কখনোই বিশ্বাস করি না, ইসলাম ধর্ম বাংলাদেশের সংবিধানে রাষ্ট্রধর্ম থাকা উচিত। এটা আমাদের কৌশল। আমরা সুযোগ পেলে, সময় পেলে ইনশাহ আল্লাহ এটাকে সংবিধান থেকে তুলে দেব।’
 

Comments

Comments!

 ড. আব্দুর রাজ্জাক বিশ্বাসঘাতক: ওলামা লীগAmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

ড. আব্দুর রাজ্জাক বিশ্বাসঘাতক: ওলামা লীগ

Monday, November 14, 2016 7:20 am
161068_1

আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ড. আব্দুর রাজ্জাককে বিশ্বাসঘাতক বলে মন্তব্য করেছে আওয়ামী ওলামা লীগ। রাষ্ট্রধর্ম সম্পর্কে তার মন্তব্যকে বাংলাদেশের ইতিহাসে এক অমার্জনীয় বিশ্বাসঘাতকতারই বহিঃপ্রকাশ বলে উল্লেখ করা হয়।

সংবাদমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে ওলামা লীগ এ সব মন্তব্য ড. আব্দুর রাজ্জাকের শাস্তি দাবি করা হয়।

বিবৃতিতে বলা হয়, শনিবার এক আলোচনা সভায় আব্দুর রাজ্জাক বলেছেন ‘সুযোগ পেলে রাষ্ট্রধর্ম তুলে দেওয়া হবে’ এমন বক্তব্য আওয়ামী লীগের নয়, এ বক্তব্য আব্দুর রাজ্জাকের ব্যক্তিগত বলে মনে করে ওলামা লীগ। তবে এ ধরনের বক্তব্য দিয়ে আব্দুর রাজ্জাক ধর্ম-দেশ ও দলবিরোধী অবস্থান গ্রহণ করেছেন।

কারণ, আওয়ামী লীগের নির্বাচনী প্রতিশ্রুতি ছিল কোরআন ও সুন্নাহবিরোধী কোনো আইন পাস করা হবে না।

বিবৃতিতে স্বাক্ষর করেন আওয়ামী ওলামা লীগের কার্যকরী সভাপতি আব্দুস সাত্তার, সাধারণ সম্পাদক আবুল হাসান শেখ শরীয়তপুরী, সহ-সভাপতি হাফেজ মুসতফা চৌধুরী, মুফতি মা’ছুম বিল্লাহ নাফেয়ী ও মাওলানা শোয়াইব আহমদ গোপালগঞ্জী ও হাফেজ মাওলানা আব্দুল জলীল।

বিবৃতিতে আরো বলা হয়, এক্ষেত্রে নির্বাচনি প্রতিশ্রুতির বিপরীতে এই বক্তব্য দিয়ে আব্দুর রাজ্জাক নিজেকে চরম সাম্প্রদায়িক, দেশবিরোধী, দলবিরোধী এবং উগ্রহিন্দু সন্ত্রাসবাদীদের শ্রেণিভুক্ত প্রমাণ করলেন। এতে আওয়ামী লীগের ভাবমূর্তি নষ্ট করলেন।

বিবৃতিতে ওলামা লীগ নেতারা বলেন, আব্দুর রাজ্জাক কাকে খুশী করতে এ বক্তব্য দিলেন? বিবৃতিতে এই কুলাঙ্গারকে দল থেকে বহিষ্কারসহ রাষ্ট্রধর্ম অবমাননার ফলশ্রুতিতে সর্বোচ্চ শাস্তি দাবি করেন।

উল্লেখ্য, গত শনিবার দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবের ভিআইপি লাউঞ্জে সার্ক কালচারাল সোসাইটি আয়োজিত এক গোল টেবিল বৈঠকে আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ড. আব্দুর রাজ্জাক বলেন, ‘আমরা জীবন বাজি রেখে যুদ্ধ করেছি একটি অসাম্প্রদায়িক রাষ্ট্রের জন্য। আমি কখনোই বিশ্বাস করি না, ইসলাম ধর্ম বাংলাদেশের সংবিধানে রাষ্ট্রধর্ম থাকা উচিত। এটা আমাদের কৌশল। আমরা সুযোগ পেলে, সময় পেলে ইনশাহ আল্লাহ এটাকে সংবিধান থেকে তুলে দেব।’

 

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X