রবিবার, ১৮ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং, ৬ই ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, সকাল ৭:৩৩
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Thursday, December 8, 2016 6:05 pm
A- A A+ Print

ড. ইউনূসের বিরুদ্ধে নতুন করে তদন্ত শুরু

29

নোবেল জয়ী অর্থনীতিবিদ ড. মুহম্মদ ইউনূসের পরিবার এবং তার প্রতিষ্ঠিত গ্রামীণ ব্যাংকের বিরুদ্ধে নতুন করে তদন্ত শুরু করেছে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর)। এনবিআরের কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা শাখা সেন্ট্রাল ইন্টেলিজেন্স সেল (সিআইসি) দেশের সব ব্যাংকে এ সংক্রান্ত প্রয়োজনীয় তথ্য সরবরাহ করতে গত সপ্তাহে চিঠি পাঠিয়েছে। চিঠিতে সাত দিনের মধ্যে ড. ইউনূস, তার পরিবার এবং গ্রামীণ ব্যাংকের যেকোনো অ্যাকাউন্ট, ঋণ এবং অন্যান্য আর্থিক তথ্য প্রদান করতে বলা হয়েছে।
বৃহস্পতিবার এ খবর প্রকাশ করেছে কাতারভিত্তিক সংবাদ মাধ্যম আল জাজিরা। এদিকে চলতি বছরে ড. ইউনূস এনবিআরে যে আয়কর রিটার্ন দাখিল করেছেন তা যাচাই করতে তার আয়-ব্যায়ের প্রয়োজনীয় নথিপত্র চেয়ে তাকে চিঠি পাঠিয়েছেন এনবিআরের একজন কমিশনার। ড. ইউনূসের আর্থিক ব্যাপারে এনবিআর এবারই প্রথম আগ্রহ প্রকাশ করেনি। ২০১৫ সালে তার বিরুদ্ধে ১৫ লাখ ডলার কর পরিশোধ না করার অভিযোগে আদালতে মামলা দায়ের করেছিল এনবিআর। তবে মামলাটি হাইকোর্টের নির্দেশে স্থগিত রয়েছে। ২০০৭ সালে ড. ইউনূস নতুন রাজনৈতিক দল গঠনের উদ্যোগ নেয়ার মাধ্যমে বিতর্কের জন্ম দিয়েছিলেন। এরপর থেকেই ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের সঙ্গে তার বিরোধ চলে আসছে। যার জের ধরে ড. ইউনূসকে অনিয়মের অভিযোগে গ্রামীণ ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালকের পদ থেকে অপসারণ করা হয়। তার বিরুদ্ধে খাদ্যে ভেজাল দেয়ার অভিযোগে একটি মামলা দায়ের করা হয়। এছাড়া গ্রামীণ ব্যাংক ও এর অন্যান্য প্রতিষ্ঠানগুলোতে অনিয়মের বিষয়ে তদন্তের উদ্যোগ নেয়া হয়। এদিকে পদ্মা সেতু নির্মাণে বিশ্বব্যাংকের তিনশ কোটি ডলার বিনিয়োগ বন্ধ করতে লবিং করার জন্য ড. ইউনূসের বিরুদ্ধে অভিযোগ করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এই বিনিয়োগ বন্ধে ষড়যন্ত্রের জন্য ষড়যন্ত্রকারীদের বিচারের মুখোমুখি করারও কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী। তবে ড. ইউনূসের বিষয়ে এনবিআরের নতুন তদন্ত তাকে হয়রানি করার জন্য করা হচ্ছে না বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রীর তথ্য উপদেষ্টা ইকবাল সোবহান চৌধুরী। তিনি বলেন, শুধুমাত্র আর্থিক তথ্য জানতে চেয়ে এসব চিঠি পাঠানো হয়েছে, যা মন্ত্রী ও ব্যবসায়ীসহ যেকোনো নাগরিককেই পাঠানো যেতে পারে।
 

Comments

Comments!

 ড. ইউনূসের বিরুদ্ধে নতুন করে তদন্ত শুরুAmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

ড. ইউনূসের বিরুদ্ধে নতুন করে তদন্ত শুরু

Thursday, December 8, 2016 6:05 pm
29

নোবেল জয়ী অর্থনীতিবিদ ড. মুহম্মদ ইউনূসের পরিবার এবং তার প্রতিষ্ঠিত গ্রামীণ ব্যাংকের বিরুদ্ধে নতুন করে তদন্ত শুরু করেছে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর)।

এনবিআরের কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা শাখা সেন্ট্রাল ইন্টেলিজেন্স সেল (সিআইসি) দেশের সব ব্যাংকে এ সংক্রান্ত প্রয়োজনীয় তথ্য সরবরাহ করতে গত সপ্তাহে চিঠি পাঠিয়েছে।

চিঠিতে সাত দিনের মধ্যে ড. ইউনূস, তার পরিবার এবং গ্রামীণ ব্যাংকের যেকোনো অ্যাকাউন্ট, ঋণ এবং অন্যান্য আর্থিক তথ্য প্রদান করতে বলা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার এ খবর প্রকাশ করেছে কাতারভিত্তিক সংবাদ মাধ্যম আল জাজিরা।

এদিকে চলতি বছরে ড. ইউনূস এনবিআরে যে আয়কর রিটার্ন দাখিল করেছেন তা যাচাই করতে তার আয়-ব্যায়ের প্রয়োজনীয় নথিপত্র চেয়ে তাকে চিঠি পাঠিয়েছেন এনবিআরের একজন কমিশনার।

ড. ইউনূসের আর্থিক ব্যাপারে এনবিআর এবারই প্রথম আগ্রহ প্রকাশ করেনি। ২০১৫ সালে তার বিরুদ্ধে ১৫ লাখ ডলার কর পরিশোধ না করার অভিযোগে আদালতে মামলা দায়ের করেছিল এনবিআর। তবে মামলাটি হাইকোর্টের নির্দেশে স্থগিত রয়েছে।

২০০৭ সালে ড. ইউনূস নতুন রাজনৈতিক দল গঠনের উদ্যোগ নেয়ার মাধ্যমে বিতর্কের জন্ম দিয়েছিলেন। এরপর থেকেই ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের সঙ্গে তার বিরোধ চলে আসছে।

যার জের ধরে ড. ইউনূসকে অনিয়মের অভিযোগে গ্রামীণ ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালকের পদ থেকে অপসারণ করা হয়। তার বিরুদ্ধে খাদ্যে ভেজাল দেয়ার অভিযোগে একটি মামলা দায়ের করা হয়। এছাড়া গ্রামীণ ব্যাংক ও এর অন্যান্য প্রতিষ্ঠানগুলোতে অনিয়মের বিষয়ে তদন্তের উদ্যোগ নেয়া হয়।

এদিকে পদ্মা সেতু নির্মাণে বিশ্বব্যাংকের তিনশ কোটি ডলার বিনিয়োগ বন্ধ করতে লবিং করার জন্য ড. ইউনূসের বিরুদ্ধে অভিযোগ করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এই বিনিয়োগ বন্ধে ষড়যন্ত্রের জন্য ষড়যন্ত্রকারীদের বিচারের মুখোমুখি করারও কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী।

তবে ড. ইউনূসের বিষয়ে এনবিআরের নতুন তদন্ত তাকে হয়রানি করার জন্য করা হচ্ছে না বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রীর তথ্য উপদেষ্টা ইকবাল সোবহান চৌধুরী।

তিনি বলেন, শুধুমাত্র আর্থিক তথ্য জানতে চেয়ে এসব চিঠি পাঠানো হয়েছে, যা মন্ত্রী ও ব্যবসায়ীসহ যেকোনো নাগরিককেই পাঠানো যেতে পারে।

 

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X