শনিবার, ২৪শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং, ১২ই ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, রাত ২:০৭
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Wednesday, July 27, 2016 11:44 pm
A- A A+ Print

ঢাকায় পোশাক কারখানায় কাজ করতেন ‘জঙ্গি’ মতিয়ার!

14

রাজধানীর কল্যাণপুরে নিহত ‘জঙ্গি’ সদস্য মতিয়ার রহমান ঢাকায় পোশাক কারখানায় কাজ করতেন বলে জানা গেছে। আজ বুধবার রাতে নিহত নয় জঙ্গির মধ্যে পরিচয় পাওয়া সাতজনের একজন মতিয়ার। তাঁর বাড়ি সাতক্ষীরার তালা উপজেলার পাটকেলঘাটা থানার ধানদিয়া ইউনিয়নের ওমরপুর গ্রামে। এ ব্যাপারে স্থানীয় চেয়ারম্যান মো. জাহাঙ্গীর আলম এ তথ্য দিয়ে বলেন, মতিয়ারের বাবা নাসিরউদ্দিন খাল-বিলের মাছ ধরে সংসার নির্বাহ করেন। এর বেশি তিনি জানেন না বলে জানান। আজ রাতে এ খবর প্রচার হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে পুলিশ তৎপর হয়ে ওঠে। পাটকেলঘাটা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মনোজিত কুমার জানান, নিহত জঙ্গি মতিয়ারের বাড়িতে পুলিশের সহকারী উপপরিদর্শক (এএসআই) সনাতন কুমারকে পাঠানো হয়েছে। এদিকে, নিহত মতিয়ার সম্পর্কে ধানদিয়া ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) এক নম্বর ওয়ার্ড সদস্য গোলাম সরওয়ার বাবলু বলেন, মতিয়ার রহমানের বাবা নাসিরউদ্দিনের চার স্ত্রী। এখন কোনো স্ত্রীই তাঁর কাছে থাকেন না। মতিয়ারের মা খায়রুননেসা তাঁর প্রথম স্ত্রী। মতিয়ারের বয়স যখন দেড় বছর, তখন তাঁর মা-বাবার ছাড়াছাড়ি হয়ে যায়। প্রায় ২০ বছর আগে মতিয়ার ও তাঁর মা ওমরপুর গ্রাম ছেড়ে বাপের বাড়ি ধানদিয়ায় চলে যান। ইউপি সদস্য বাবলু আরো জানান, মতিয়ারের বাবা অত্যন্ত দরিদ্র মানুষ। তাঁদের কোনো জমি নেই। শুধু বসতভিটাটুকু রয়েছে। মতিয়ারের মা ও মতিয়ার ঢাকায় তৈরি পোশাক কারখানায় কাজ করতেন বলেও জানান তিনি। তবে তাঁদের সঙ্গে জঙ্গিবাদের কোনো সম্পর্ক আছে কি না, তা তিনি জানেন না বলে জানান। বাবলু আরো জানান, গ্রামের বাড়ির সঙ্গে তাঁদের কোনো যোগাযোগ নেই। সর্বশেষ কিছুদিন আগে তাঁর মা একবার এসেছিলেন বলে জানান তিনি।

Comments

Comments!

 ঢাকায় পোশাক কারখানায় কাজ করতেন ‘জঙ্গি’ মতিয়ার!AmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

ঢাকায় পোশাক কারখানায় কাজ করতেন ‘জঙ্গি’ মতিয়ার!

Wednesday, July 27, 2016 11:44 pm
14

রাজধানীর কল্যাণপুরে নিহত ‘জঙ্গি’ সদস্য মতিয়ার রহমান ঢাকায় পোশাক কারখানায় কাজ করতেন বলে জানা গেছে।

আজ বুধবার রাতে নিহত নয় জঙ্গির মধ্যে পরিচয় পাওয়া সাতজনের একজন মতিয়ার। তাঁর বাড়ি সাতক্ষীরার তালা উপজেলার পাটকেলঘাটা থানার ধানদিয়া ইউনিয়নের ওমরপুর গ্রামে।

এ ব্যাপারে স্থানীয় চেয়ারম্যান মো. জাহাঙ্গীর আলম এ তথ্য দিয়ে বলেন, মতিয়ারের বাবা নাসিরউদ্দিন খাল-বিলের মাছ ধরে সংসার নির্বাহ করেন। এর বেশি তিনি জানেন না বলে জানান।

আজ রাতে এ খবর প্রচার হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে পুলিশ তৎপর হয়ে ওঠে।

পাটকেলঘাটা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মনোজিত কুমার জানান, নিহত জঙ্গি মতিয়ারের বাড়িতে পুলিশের সহকারী উপপরিদর্শক (এএসআই) সনাতন কুমারকে পাঠানো হয়েছে।

এদিকে, নিহত মতিয়ার সম্পর্কে ধানদিয়া ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) এক নম্বর ওয়ার্ড সদস্য গোলাম সরওয়ার বাবলু বলেন, মতিয়ার রহমানের বাবা নাসিরউদ্দিনের চার স্ত্রী। এখন কোনো স্ত্রীই তাঁর কাছে থাকেন না। মতিয়ারের মা খায়রুননেসা তাঁর প্রথম স্ত্রী। মতিয়ারের বয়স যখন দেড় বছর, তখন তাঁর মা-বাবার ছাড়াছাড়ি হয়ে যায়। প্রায় ২০ বছর আগে মতিয়ার ও তাঁর মা ওমরপুর গ্রাম ছেড়ে বাপের বাড়ি ধানদিয়ায় চলে যান।

ইউপি সদস্য বাবলু আরো জানান, মতিয়ারের বাবা অত্যন্ত দরিদ্র মানুষ। তাঁদের কোনো জমি নেই। শুধু বসতভিটাটুকু রয়েছে। মতিয়ারের মা ও মতিয়ার ঢাকায় তৈরি পোশাক কারখানায় কাজ করতেন বলেও জানান তিনি। তবে তাঁদের সঙ্গে জঙ্গিবাদের কোনো সম্পর্ক আছে কি না, তা তিনি জানেন না বলে জানান।

বাবলু আরো জানান, গ্রামের বাড়ির সঙ্গে তাঁদের কোনো যোগাযোগ নেই। সর্বশেষ কিছুদিন আগে তাঁর মা একবার এসেছিলেন বলে জানান তিনি।

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X