বুধবার, ২১শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং, ৯ই ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, ভোর ৫:২৮
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Wednesday, November 23, 2016 12:39 am
A- A A+ Print

তামিমের কাছে মুশফিকের হার

162075_1

চট্টগ্রাম: চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে বিপিএলের চট্টগ্রাম পর্বের শেষ ম্যাচে মুশফিকুর রহিমের বরিশালের বিরুদ্ধে বড় জয় পেয়েছে তামিম ইকবালের চিটাগং ভাইকিংস। মঙ্গলবার দিনের দ্বিতীয় ম্যাচে বরিশালের বিপক্ষে ৭৮ রানের বিশাল জয় পেয়েছে চিটাগং। ভাইকিংসের দেয়া ১৮৬ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে বরিশালের অবস্থা শুরু থেকেই বেগতিক হয়ে যায়। আফগান ক্রিকেটার মোহাম্মদ নবীর ঘূর্ণি জাদুতে মাত্র ১২ রানের মাথায় চার উইকেট খুইয়ে বসে দলটি। দ্বিতীয় ওভারে দুই ওপেনার ডেভিড মালান (৫) নাদিফ চৌধুরীকে (৪) ফিরিয়ে জোড়া আঘাত হানেন নবী। এরপর বরিশালের নির্ভরযোগ্য ব্যাটসম্যান শাহরিয়ার নাফিসকে (১) বোল্ড করে প্যাভিলিয়নে ফেরত পাঠান শুভাশিষ রায়। দলের সংগ্রহ তখন মাত্র ১১। পরের ওভারে আবারো নবীর ঘূর্ণি। ১ রান করা জিভান ম্যান্ডিসকে ফেরত পাঠান তিনি। বরিশালের সংগ্রহ তখন চার উইকেটের বিনিময়ে ১২। এ অবস্থা থেকে দলকে টেনে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা চালান বরিশালের অধিনায়ক মুশফিকুর রহিম ও রায়াদ ইমরিত। দুই ব্যাটসম্যানের কল্যাণে ১২ রানে ৪ উইকেট হারিয়ে বসা দলটি সংগ্রহ করে ৩৭ রান। তবে ৩৭ রানের মাথায় ১৯ রান করা অধিনায়ককে ফেরত পাঠান তাসকিন আহমেদ। এরপর কেবল আসা যাওয়ার মিছিলই দীর্ঘ হয়েছে। থিসেরা পেরেরাকে শূন্য রানে বোল্ড করে ফেরত পাঠান শোয়েব মালিক। এর পরেই তাসকিনের শিকার হয়ে সাজঘরের মিছিলে যোগ দেন ৬ রান করা রায়াদ ইমরিত। তবে এসবের মধ্যে কেবল এনামুল হক জুনিয়রই কিছুটা প্রতিরোধ গড়ার চেষ্টা করেন। দলের হয়ে হার না মানা সবোর্চ্চ ব্যক্তিগত আসে তারই ব্যাট থেকে। ৩৭ বলে ৪২ রানের এনামুলের ইনিংসে ছিল চারটি ছয় ও একটি চারের মার। আসা-যাওয়ার মিছিলে যোগ দেয়া বরিশালের অন্য সদস্যরা হলেন- তাইজুল ইসলাম ১২, আবু হায়দার (৯) ও কামরুল ইসলাম রাব্বি (৪)। চিটাগংয়ের হয়ে মোহাম্মদ নবী ৩টি, শুভাশিষ রায় ও তাসকিন আহমেদ ২টি এবং শোয়েব মালিক ও ইমরান খান একটি করে উইকেট নেন। এর আগে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় টস জিতে শোয়েব মালিক ও ডোয়াইন স্মিথের ঝড়ো ব্যাটিংয়ে ১৮৫ রানের পাহাড় গড়ে চিটাগং ভাইকিংস। ২৮ বলে অর্ধশতক তুলে নেয়া স্মিথ থামেন ৬৯ রানের মাথায়। আর ২৬ বলে অর্ধশতক পাওয়া শোয়েব মালিক ইনিংসের শেষ বলে ৬৩ রানের মাথায় আউট হন। চিটাগংয়ের হয়ে কামরুল ইসলাম রাব্বি ও থিসেরা পেরেরা দুটি ও রায়াদ ইমরিত একটি করে উইকেট নেন।

Comments

Comments!

 তামিমের কাছে মুশফিকের হারAmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

তামিমের কাছে মুশফিকের হার

Wednesday, November 23, 2016 12:39 am
162075_1

চট্টগ্রাম: চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে বিপিএলের চট্টগ্রাম পর্বের শেষ ম্যাচে মুশফিকুর রহিমের বরিশালের বিরুদ্ধে বড় জয় পেয়েছে তামিম ইকবালের চিটাগং ভাইকিংস।

মঙ্গলবার দিনের দ্বিতীয় ম্যাচে বরিশালের বিপক্ষে ৭৮ রানের বিশাল জয় পেয়েছে চিটাগং।

ভাইকিংসের দেয়া ১৮৬ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে বরিশালের অবস্থা শুরু থেকেই বেগতিক হয়ে যায়। আফগান ক্রিকেটার মোহাম্মদ নবীর ঘূর্ণি জাদুতে মাত্র ১২ রানের মাথায় চার উইকেট খুইয়ে বসে দলটি। দ্বিতীয় ওভারে দুই ওপেনার ডেভিড মালান (৫) নাদিফ চৌধুরীকে (৪) ফিরিয়ে জোড়া আঘাত হানেন নবী।

এরপর বরিশালের নির্ভরযোগ্য ব্যাটসম্যান শাহরিয়ার নাফিসকে (১) বোল্ড করে প্যাভিলিয়নে ফেরত পাঠান শুভাশিষ রায়। দলের সংগ্রহ তখন মাত্র ১১।

পরের ওভারে আবারো নবীর ঘূর্ণি। ১ রান করা জিভান ম্যান্ডিসকে ফেরত পাঠান তিনি। বরিশালের সংগ্রহ তখন চার উইকেটের বিনিময়ে ১২। এ অবস্থা থেকে দলকে টেনে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা চালান বরিশালের অধিনায়ক মুশফিকুর রহিম ও রায়াদ ইমরিত। দুই ব্যাটসম্যানের কল্যাণে ১২ রানে ৪ উইকেট হারিয়ে বসা দলটি সংগ্রহ করে ৩৭ রান। তবে ৩৭ রানের মাথায় ১৯ রান করা অধিনায়ককে ফেরত পাঠান তাসকিন আহমেদ।

এরপর কেবল আসা যাওয়ার মিছিলই দীর্ঘ হয়েছে। থিসেরা পেরেরাকে শূন্য রানে বোল্ড করে ফেরত পাঠান শোয়েব মালিক। এর পরেই তাসকিনের শিকার হয়ে সাজঘরের মিছিলে যোগ দেন ৬ রান করা রায়াদ ইমরিত।

তবে এসবের মধ্যে কেবল এনামুল হক জুনিয়রই কিছুটা প্রতিরোধ গড়ার চেষ্টা করেন। দলের হয়ে হার না মানা সবোর্চ্চ ব্যক্তিগত আসে তারই ব্যাট থেকে। ৩৭ বলে ৪২ রানের এনামুলের ইনিংসে ছিল চারটি ছয় ও একটি চারের মার।

আসা-যাওয়ার মিছিলে যোগ দেয়া বরিশালের অন্য সদস্যরা হলেন- তাইজুল ইসলাম ১২, আবু হায়দার (৯) ও কামরুল ইসলাম রাব্বি (৪)।

চিটাগংয়ের হয়ে মোহাম্মদ নবী ৩টি, শুভাশিষ রায় ও তাসকিন আহমেদ ২টি এবং শোয়েব মালিক ও ইমরান খান একটি করে উইকেট নেন।

এর আগে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় টস জিতে শোয়েব মালিক ও ডোয়াইন স্মিথের ঝড়ো ব্যাটিংয়ে ১৮৫ রানের পাহাড় গড়ে চিটাগং ভাইকিংস।

২৮ বলে অর্ধশতক তুলে নেয়া স্মিথ থামেন ৬৯ রানের মাথায়। আর ২৬ বলে অর্ধশতক পাওয়া শোয়েব মালিক ইনিংসের শেষ বলে ৬৩ রানের মাথায় আউট হন।

চিটাগংয়ের হয়ে কামরুল ইসলাম রাব্বি ও থিসেরা পেরেরা দুটি ও রায়াদ ইমরিত একটি করে উইকেট নেন।

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X