সোমবার, ১৯শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং, ৭ই ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, সকাল ১০:০৯
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Saturday, September 3, 2016 8:54 pm
A- A A+ Print

তারেক এলে আরেকজন চলে যাবেন: বিএনপি

bnp2-1-696x385

নেতা-কর্মীরা নিজেদের দায়িত্ব পালন করলে ছয় মাসের মধ্যে তারেক রহমানকে ফিরিয়ে আনা সম্ভব বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির নেতারা। তাঁরা এ-ও বলেছেন, তারেক রহমান এলে আরেকজন চলে যাবেন। আজ শনিবার বিকেলে রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন মিলনায়তনে তারেক রহমানের নবম কারামুক্তি দিবস উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভায় বিএনপির নেতারা এসব কথা বলেন। দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেন, সরকার তারেক রহমানকে ভয় পায়, কারণ তিনি বিএনপির ভবিষ্যৎ কান্ডারি। খালেদা জিয়াকে ভয় পায়, কারণ তিনি রাস্তায় নেমে ডাক দিলে রাস্তা সয়লাব হয়ে যাবে, গণ-অভ্যুত্থান সৃষ্টি হয়ে যেতে পারে। তাই এই ফ্যাসিবাদী সরকার ক্ষমতায় টিকে থাকার জন্য প্রতিপক্ষের ওপর অত্যাচার-নির্যাতন চালাচ্ছে। খন্দকার মোশাররফ বলেন, ‘দেশের জাতীয়তাবাদী শক্তির নেতা-কর্মীরা আজকে যেভাবে স্বৈরাচারী-ফ্যাসিবাদী সরকারের হাতে নির্যাতিত হচ্ছে, এর থেকে দেশকে যদি উদ্ধার করতে না পারি, তাহলে যতই স্লোগান দিই, কাজ হবে না। যখন জাতীয়তাবাদী শক্তি খালেদার নেতৃত্বে স্বৈরাচারী সরকারের পতন ঘটিয়ে সুষ্ঠু নির্বাচনের মাধ্যমে একটি সরকার প্রতিষ্ঠা হবে, সেদিনই তারেক রহমান বীরের বেশে দেশে আসবেন।’ স্থায়ী কমিটির আরেক সদস্য মির্জা আব্বাস বলেন, দল সুসংগঠিত না হলে এই বর্বর সরকারকে ক্ষমতা থেকে হটানো যাবে না। অনেকে বলে বিএনপি অগোছালো, কথা পুরোপুরি ঠিক না। সরকারের অত্যাচারে বিএনপি সংগঠিত হতে পারছে না। এ সরকার রক্ত আর জেল ছাড়া কিছু বোঝে না। তিনি বলেন, অত্যাচার করে বিএনপিকে সাময়িকভাবে দুর্বল করা যাবে, একেবারে নিঃশেষ করা যাবে না। বিএনপি আবার ঘুরে দাঁড়াবে, আবার ক্ষমতায় আসবে। এর আগে দলের ভাইস চেয়ারম্যান মো. শাহজাহান বলেছিলেন, ‘আমরা যদি আমাদের দায়িত্ব পালন করতে পারি, তাহলে ছয় মাসের মধ্যে তারেক রহমানকে দেশে আনা সম্ভব। আর উনি (তারেক) আসলে আরেকজন চলে যাবেন।’ তবে কে চলে যাবেন, তিনি তাঁর নাম উল্লেখ করেননি। এ বক্তব্যের রেশ টেনে মির্জা আব্বাস বলেন, ‘শাহজাহান বলেছেন তারেক রহমান আসলে একজন পালিয়ে যাবেন। আমি বলি, পালাবেন কেন? বিচার মোকাবিলা করবেন। তবে আপনারা যেভাবে করছেন সেভাবে নয়, নিরপেক্ষ বিচার হবে।’ মো. শাহজাহান বলেন, আজ দেশ এক কঠিন সংকট, ফ্যাসিবাদের মধ্য দিয়ে যাচ্ছে। সালাউদ্দিন কাদের চৌধুরীর ছেলেকে তাঁর মায়ের পাশ থেকে বাজপাখির মতো তুলে নেওয়া হলো। আজ পর্যন্ত তাঁর কোনো খবর নেই। ফাঁসির আসামির সন্তানকেও অপহরণ করতে হবে, এটা বোধ হয় বাংলাদেশ ছাড়া আরও কোথাও নেই। আলোচনা সভায় অন্য নেতারা বলেছেন, তারেক রহমান বিএনপির আগামী দিনের কান্ডারি, ভবিষ্যতের রাষ্ট্রনায়ক। এটা আওয়ামী লীগ বুঝেছে। সে জন্যই তারেক রহমানের বিরুদ্ধে এত মামলা, এত ষড়যন্ত্র। বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান হারুন আল রশীদের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় আরও বক্তব্য দেন ভাইস চেয়ারম্যান আমিনুল হক, এ জেড এম জাহিদ হোসেন, শামসুজ্জামান দুদু, আহমেদ আজম খান ও জয়নাল আবেদীন প্রমুখ।

Comments

Comments!

 তারেক এলে আরেকজন চলে যাবেন: বিএনপিAmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

তারেক এলে আরেকজন চলে যাবেন: বিএনপি

Saturday, September 3, 2016 8:54 pm
bnp2-1-696x385

নেতা-কর্মীরা নিজেদের দায়িত্ব পালন করলে ছয় মাসের মধ্যে তারেক রহমানকে ফিরিয়ে আনা সম্ভব বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির নেতারা। তাঁরা এ-ও বলেছেন, তারেক রহমান এলে আরেকজন চলে যাবেন।

আজ শনিবার বিকেলে রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন মিলনায়তনে তারেক রহমানের নবম কারামুক্তি দিবস উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভায় বিএনপির নেতারা এসব কথা বলেন।

দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেন, সরকার তারেক রহমানকে ভয় পায়, কারণ তিনি বিএনপির ভবিষ্যৎ কান্ডারি। খালেদা জিয়াকে ভয় পায়, কারণ তিনি রাস্তায় নেমে ডাক দিলে রাস্তা সয়লাব হয়ে যাবে, গণ-অভ্যুত্থান সৃষ্টি হয়ে যেতে পারে। তাই এই ফ্যাসিবাদী সরকার ক্ষমতায় টিকে থাকার জন্য প্রতিপক্ষের ওপর অত্যাচার-নির্যাতন চালাচ্ছে।

খন্দকার মোশাররফ বলেন, ‘দেশের জাতীয়তাবাদী শক্তির নেতা-কর্মীরা আজকে যেভাবে স্বৈরাচারী-ফ্যাসিবাদী সরকারের হাতে নির্যাতিত হচ্ছে, এর থেকে দেশকে যদি উদ্ধার করতে না পারি, তাহলে যতই স্লোগান দিই, কাজ হবে না। যখন জাতীয়তাবাদী শক্তি খালেদার নেতৃত্বে স্বৈরাচারী সরকারের পতন ঘটিয়ে সুষ্ঠু নির্বাচনের মাধ্যমে একটি সরকার প্রতিষ্ঠা হবে, সেদিনই তারেক রহমান বীরের বেশে দেশে আসবেন।’

স্থায়ী কমিটির আরেক সদস্য মির্জা আব্বাস বলেন, দল সুসংগঠিত না হলে এই বর্বর সরকারকে ক্ষমতা থেকে হটানো যাবে না। অনেকে বলে বিএনপি অগোছালো, কথা পুরোপুরি ঠিক না। সরকারের অত্যাচারে বিএনপি সংগঠিত হতে পারছে না। এ সরকার রক্ত আর জেল ছাড়া কিছু বোঝে না। তিনি বলেন, অত্যাচার করে বিএনপিকে সাময়িকভাবে দুর্বল করা যাবে, একেবারে নিঃশেষ করা যাবে না। বিএনপি আবার ঘুরে দাঁড়াবে, আবার ক্ষমতায় আসবে।

এর আগে দলের ভাইস চেয়ারম্যান মো. শাহজাহান বলেছিলেন, ‘আমরা যদি আমাদের দায়িত্ব পালন করতে পারি, তাহলে ছয় মাসের মধ্যে তারেক রহমানকে দেশে আনা সম্ভব। আর উনি (তারেক) আসলে আরেকজন চলে যাবেন।’ তবে কে চলে যাবেন, তিনি তাঁর নাম উল্লেখ করেননি।

এ বক্তব্যের রেশ টেনে মির্জা আব্বাস বলেন, ‘শাহজাহান বলেছেন তারেক রহমান আসলে একজন পালিয়ে যাবেন। আমি বলি, পালাবেন কেন? বিচার মোকাবিলা করবেন। তবে আপনারা যেভাবে করছেন সেভাবে নয়, নিরপেক্ষ বিচার হবে।’

মো. শাহজাহান বলেন, আজ দেশ এক কঠিন সংকট, ফ্যাসিবাদের মধ্য দিয়ে যাচ্ছে। সালাউদ্দিন কাদের চৌধুরীর ছেলেকে তাঁর মায়ের পাশ থেকে বাজপাখির মতো তুলে নেওয়া হলো। আজ পর্যন্ত তাঁর কোনো খবর নেই। ফাঁসির আসামির সন্তানকেও অপহরণ করতে হবে, এটা বোধ হয় বাংলাদেশ ছাড়া আরও কোথাও নেই।

আলোচনা সভায় অন্য নেতারা বলেছেন, তারেক রহমান বিএনপির আগামী দিনের কান্ডারি, ভবিষ্যতের রাষ্ট্রনায়ক। এটা আওয়ামী লীগ বুঝেছে। সে জন্যই তারেক রহমানের বিরুদ্ধে এত মামলা, এত ষড়যন্ত্র।

বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান হারুন আল রশীদের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় আরও বক্তব্য দেন ভাইস চেয়ারম্যান আমিনুল হক, এ জেড এম জাহিদ হোসেন, শামসুজ্জামান দুদু, আহমেদ আজম খান ও জয়নাল আবেদীন প্রমুখ।

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X