বৃহস্পতিবার, ২২শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং, ১০ই ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, রাত ১:০৪
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Sunday, January 1, 2017 7:28 am | আপডেটঃ January 01, 2017 10:31 AM
A- A A+ Print

তুরস্কের নাইট ক্লাবে হামলা নিহত ৩৫

3

তুরস্কের ইস্তাম্বুলে একটি নাইট ক্লাবে হামলায় নিহত হয়েছেন কমপক্ষে ৩৫ এবং আহত হয়েছেন ৪০ জন। ইস্তাম্বুল গভর্নর ভাসিপ সাহিন এ তথ্য নিশ্চিত করে জানিয়েছেন, নিহত ব্যক্তিদের মধ্যে একজন পুলিশ কর্মকর্তা রয়েছেন। গভর্নর ভাসিপ সাহিনের দাবি, এটি একটি সন্ত্রাসী হামলা। তবে এ হামলার দায় এখনো কোনো পক্ষ স্বীকার করেনি। নতুন বছরের প্রথম প্রহরে শনিবার দিবাগত রাত ১টা ৩০ মিনিটে ইস্তাম্বুলের অরতাকয় এলাকায় রেইনা নাইট ক্লাবে এ হামলা হয়। গভর্নর জানিয়েছেন, হামলাকারী ছিল একজন। তুর্কি ভাষার সিএনএন জানিয়েছে, সান্তা ক্লজের পোশাকে সজ্জিত ছিল হামলাকারী। ভাসিপ সাহিন আরো জানিয়েছেন, নববর্ষ উদযাপন ও আনন্দরত লোকদের ওপর শক্তিশালী বন্দুক নিয়ে বর্বর ও নৃশংসভাবে হামলা চালায় এক সন্ত্রাসী। শহরের ইউরোপীয় পাশে বসফরাস নদীর তীরে হামলার শিকার রেইনা নাইট ক্লাব পরিদর্শনের সময় তিনি এ তথ্য জানান। হামলার সময় রেইনা নাইট ক্লাবে প্রায় ৭০০ লোক ছিলেন। জীবন বাঁচাতে অনেকে নদীতে ঝাঁপ দেন। তুরস্কের দোগান নিউজ এজেন্সি জানিয়েছে, হামলাকারী আরবিতে কথা বলছিল। তুরস্কের টেলিভিশন চ্যানেল এনটিভির খবরে বলা হয়েছে, পুলিশের বিশেষ বাহিনীর সদস্যরা নাইট ক্লাবে তল্লাশি চালাচ্ছেন। হামলার পরপর শোক জানিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা। তিনি এখন হাওয়াইয়ে নববর্ষের ছুটি কাটাচ্ছেন। এদিকে, হামলার পর সাময়িক সময়ের জন্য হামলার খবর প্রকাশ ও সম্প্রচার স্থগিত রাখতে বলে তুর্কি সরকার। জনমনে যেন আতঙ্ক ছড়িয়ে না পড়ে এবং শৃঙ্খলা বজায় থাকে, সে জন্য এ ধরনের নির্দেশ দিয়েছে সরকার। তুরস্কে এ ধরনের হামলা প্রথম নয়। সাম্প্রতিক সময়ে ইস্তাম্বুলে সন্ত্রাসী হামলা বেড়ে যাওয়ায় শহরজুড়ে ১ হাজার ৭০০ নিরাপত্তাকর্মী মোতায়েন রাখা হয়েছে। তুরস্কে অধিকাংশ হামলার দায় স্বীকার করেছে হয় ইসলামিক স্টেট (আইএস), না হয় কুর্দি যোদ্ধারা। কয়েক দিন আগে তুরস্কের রাজধানী আঙ্কারায় একটি অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেওয়ার সময় এক তুর্কি পুলিশ কর্মকর্তার হাতে নিহত হন রাশিয়ার রাষ্ট্রদূত আন্দ্রেই কারলভ। হত্যার পর ওই পুলিশ কর্মকর্তা চিৎকার করে বলছিলেন, সিরিয়ার আলেপ্পোয় রাশিয়ার ভূমিকার প্রতিশোধ হিসেবে রাষ্ট্রদূতকে হত্যা করা হয়েছে।   তথ্যসূত্র : বিবিসি অনলাইন।

Comments

Comments!

 তুরস্কের নাইট ক্লাবে হামলা নিহত ৩৫AmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

তুরস্কের নাইট ক্লাবে হামলা নিহত ৩৫

Sunday, January 1, 2017 7:28 am | আপডেটঃ January 01, 2017 10:31 AM
3

তুরস্কের ইস্তাম্বুলে একটি নাইট ক্লাবে হামলায় নিহত হয়েছেন কমপক্ষে ৩৫ এবং আহত হয়েছেন ৪০ জন।

ইস্তাম্বুল গভর্নর ভাসিপ সাহিন এ তথ্য নিশ্চিত করে জানিয়েছেন, নিহত ব্যক্তিদের মধ্যে একজন পুলিশ কর্মকর্তা রয়েছেন।

গভর্নর ভাসিপ সাহিনের দাবি, এটি একটি সন্ত্রাসী হামলা। তবে এ হামলার দায় এখনো কোনো পক্ষ স্বীকার করেনি।

নতুন বছরের প্রথম প্রহরে শনিবার দিবাগত রাত ১টা ৩০ মিনিটে ইস্তাম্বুলের অরতাকয় এলাকায় রেইনা নাইট ক্লাবে এ হামলা হয়।

গভর্নর জানিয়েছেন, হামলাকারী ছিল একজন। তুর্কি ভাষার সিএনএন জানিয়েছে, সান্তা ক্লজের পোশাকে সজ্জিত ছিল হামলাকারী।

ভাসিপ সাহিন আরো জানিয়েছেন, নববর্ষ উদযাপন ও আনন্দরত লোকদের ওপর শক্তিশালী বন্দুক নিয়ে বর্বর ও নৃশংসভাবে হামলা চালায় এক সন্ত্রাসী। শহরের ইউরোপীয় পাশে বসফরাস নদীর তীরে হামলার শিকার রেইনা নাইট ক্লাব পরিদর্শনের সময় তিনি এ তথ্য জানান।

হামলার সময় রেইনা নাইট ক্লাবে প্রায় ৭০০ লোক ছিলেন। জীবন বাঁচাতে অনেকে নদীতে ঝাঁপ দেন।

তুরস্কের দোগান নিউজ এজেন্সি জানিয়েছে, হামলাকারী আরবিতে কথা বলছিল। তুরস্কের টেলিভিশন চ্যানেল এনটিভির খবরে বলা হয়েছে, পুলিশের বিশেষ বাহিনীর সদস্যরা নাইট ক্লাবে তল্লাশি চালাচ্ছেন।

হামলার পরপর শোক জানিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা। তিনি এখন হাওয়াইয়ে নববর্ষের ছুটি কাটাচ্ছেন।

এদিকে, হামলার পর সাময়িক সময়ের জন্য হামলার খবর প্রকাশ ও সম্প্রচার স্থগিত রাখতে বলে তুর্কি সরকার। জনমনে যেন আতঙ্ক ছড়িয়ে না পড়ে এবং শৃঙ্খলা বজায় থাকে, সে জন্য এ ধরনের নির্দেশ দিয়েছে সরকার।

তুরস্কে এ ধরনের হামলা প্রথম নয়। সাম্প্রতিক সময়ে ইস্তাম্বুলে সন্ত্রাসী হামলা বেড়ে যাওয়ায় শহরজুড়ে ১ হাজার ৭০০ নিরাপত্তাকর্মী মোতায়েন রাখা হয়েছে।

তুরস্কে অধিকাংশ হামলার দায় স্বীকার করেছে হয় ইসলামিক স্টেট (আইএস), না হয় কুর্দি যোদ্ধারা।

কয়েক দিন আগে তুরস্কের রাজধানী আঙ্কারায় একটি অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেওয়ার সময় এক তুর্কি পুলিশ কর্মকর্তার হাতে নিহত হন রাশিয়ার রাষ্ট্রদূত আন্দ্রেই কারলভ। হত্যার পর ওই পুলিশ কর্মকর্তা চিৎকার করে বলছিলেন, সিরিয়ার আলেপ্পোয় রাশিয়ার ভূমিকার প্রতিশোধ হিসেবে রাষ্ট্রদূতকে হত্যা করা হয়েছে।

 

তথ্যসূত্র : বিবিসি অনলাইন।

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X