শনিবার, ২৪শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং, ১২ই ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, বিকাল ৩:৪৫
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Monday, December 26, 2016 11:50 pm
A- A A+ Print

তৃণমূলের স‌ঙ্গে সম্পর্ক শেষ, রাজ্যসভা থেকে মিঠুনের পদত্যাগ

mithun-chakraborty_34931_1482761594

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের দল তৃণমূল কংগ্রেসের সঙ্গে সব সম্পর্ক চুকিয়ে রাজ্যসভার সাংসদ পদ ছেড়ে দিলেন ভারতের জনপ্রিয় অভিনেতা মিঠুন চক্রবর্তী। অভিনয়ের পাশাপাশি সমাজসেবার সঙ্গে যুক্ত ছিলেনেএ অভিনেতা। মিঠুনকে রাজনীতিতে এনেছিলেন তৃণমূলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তবে মিঠুনের রাজনৈতিক জীবন দীর্ঘ হল না। মমতার দলের টিকিটেই রাজ্যসভায় যান মিঠুন। কিন্তু রাজ্যসভায় নির্বাচিত হওয়ার পর মাত্র কয়েকদিন সংসদে গিয়েছিলেন হিন্দি ও বাংলা সিনেমার এ অভিনেতা। পরে অর্থলগ্নি সংস্থার অনিয়ম নিয়ে তদন্তের সূত্রে মিঠুনকে জিজ্ঞাসাবাদ করে সিবিআই। এরপর আর সংসদে যাননি এ বাঙালি। অসুস্থতার কারণ দেখিয়ে দফায় দফায় ছুটি নিয়েছেন সংসদ থেকে। এ বার পাকাপাকিভাবে রাজ্যসভার সাংসদ পদ ছেড়ে দিলেন মিঠুন। দীর্ঘ অভিনয় জীবনে মিঠুনের বিরুদ্ধে কখনও কোনো দুর্নীতির অভিযোগ ওঠেনি। কিন্তু মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের দলের সঙ্গে বিভিন্ন চিটফান্ড সংস্থার নাম জড়ানোর পর তার নামও জড়িয়ে যায়। পরে একটি চিটফান্ড সংস্থার অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকার জন্য নেয়া পারশ্রমিকের টাকাও ইডিকে ফিরিয়ে দেন মিঠুন। এর পরেই রাজনীতি থেকে দূরে সরে যান তিনি। তখন থেকেই গুঞ্জন শুরু হয় পদত্যাগ করবেন মিঠুন। তবে এ নিয়ে প্রকাশ্যে কোনো কথাও বলেননি তিনি। রাজ্যসভায় ২০২০ সালের এপ্রিলে তার মেয়াদ শেষ হওয়ার কথা।

Comments

Comments!

 তৃণমূলের স‌ঙ্গে সম্পর্ক শেষ, রাজ্যসভা থেকে মিঠুনের পদত্যাগAmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

তৃণমূলের স‌ঙ্গে সম্পর্ক শেষ, রাজ্যসভা থেকে মিঠুনের পদত্যাগ

Monday, December 26, 2016 11:50 pm
mithun-chakraborty_34931_1482761594

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের দল তৃণমূল কংগ্রেসের সঙ্গে সব সম্পর্ক চুকিয়ে রাজ্যসভার সাংসদ পদ ছেড়ে দিলেন ভারতের জনপ্রিয় অভিনেতা মিঠুন চক্রবর্তী।

অভিনয়ের পাশাপাশি সমাজসেবার সঙ্গে যুক্ত ছিলেনেএ অভিনেতা। মিঠুনকে রাজনীতিতে এনেছিলেন তৃণমূলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তবে মিঠুনের রাজনৈতিক জীবন দীর্ঘ হল না।

মমতার দলের টিকিটেই রাজ্যসভায় যান মিঠুন। কিন্তু রাজ্যসভায় নির্বাচিত হওয়ার পর মাত্র কয়েকদিন সংসদে গিয়েছিলেন হিন্দি ও বাংলা সিনেমার এ অভিনেতা।

পরে অর্থলগ্নি সংস্থার অনিয়ম নিয়ে তদন্তের সূত্রে মিঠুনকে জিজ্ঞাসাবাদ করে সিবিআই। এরপর আর সংসদে যাননি এ বাঙালি। অসুস্থতার কারণ দেখিয়ে দফায় দফায় ছুটি নিয়েছেন সংসদ থেকে।

এ বার পাকাপাকিভাবে রাজ্যসভার সাংসদ পদ ছেড়ে দিলেন মিঠুন।

দীর্ঘ অভিনয় জীবনে মিঠুনের বিরুদ্ধে কখনও কোনো দুর্নীতির অভিযোগ ওঠেনি। কিন্তু মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের দলের সঙ্গে বিভিন্ন চিটফান্ড সংস্থার নাম জড়ানোর পর তার নামও জড়িয়ে যায়।

পরে একটি চিটফান্ড সংস্থার অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকার জন্য নেয়া পারশ্রমিকের টাকাও ইডিকে ফিরিয়ে দেন মিঠুন। এর পরেই রাজনীতি থেকে দূরে সরে যান তিনি।

তখন থেকেই গুঞ্জন শুরু হয় পদত্যাগ করবেন মিঠুন। তবে এ নিয়ে প্রকাশ্যে কোনো কথাও বলেননি তিনি।

রাজ্যসভায় ২০২০ সালের এপ্রিলে তার মেয়াদ শেষ হওয়ার কথা।

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X