বুধবার, ২১শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং, ৯ই ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, ভোর ৫:৩২
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Saturday, November 19, 2016 4:51 pm
A- A A+ Print

তৈমুরের আগ্রহ নেই, তবু তিনিই বিএনপির প্রার্থী

6

নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন নির্বাচনে দলের মেয়র প্রার্থী হিসেবে তৈমুর আলম খন্দকারকে চূড়ান্ত করেছে বিএনপি। তৈমুর আলম বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা। কিছুদিন আগেও তিনি নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপির সভাপতি ছিলেন। গতকাল শুক্রবার রাতে বিএনপি চেয়ারপারসনের গুলশান কার্যালয়ে এক বৈঠকে তৈমুর আলমকে দলীয় প্রার্থী হতে প্রস্তুতি নেওয়ার জন্য বলা হয়েছে। বৈঠকে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া, মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, তৈমুর আলম ও নারায়ণগঞ্জের কয়েকজন নেতা উপস্থিত ছিলেন। আজ শনিবার দুপুরে টেলিফোনে তৈমুর আলম প্রথম আলোকে বলেন, গতকাল রাতের বৈঠকে তাঁকে মেয়র প্রার্থী হতে বলা হয়েছে। তিনি দলের প্রতি অনুগত। তবে বর্তমান রাজনৈতিক বাস্তবতায় ও নির্বাচনী ব্যবস্থায় তাঁর প্রার্থী হওয়ার কোনো আগ্রহ নেই। কেন আগ্রহ নেই, সেটাই চেয়ারপারসনকে বলেছেন। তবে দল যদি তাঁকে প্রার্থী করার ব্যাপারে অনড় থাকে, তিনি নির্বাচনে অংশ নেবেন। গতকালের বৈঠকে উপস্থিত নারায়ণগঞ্জের একজন নেতা প্রথম আলোকে বলেন, তৈমুর আলম নির্বাচন করতে চান না। কেন চান না, সেটাও তিনি ব্যাখ্যা করেছেন। এখন নির্বাচন সুষ্ঠু হচ্ছে না। বিএনপির প্রার্থী হিসেবে এই নির্বাচনে অংশ নিয়ে জয়লাভ করা সম্ভব নয় বলেই তৈমুর আলম মনে করেন। এই বিষয়গুলো তিনি দলীয় চেয়ারপারসনকে বারবার বলেছেন। ওই নেতা বলেন, তবে এটা ঠিক, বিএনপি প্রার্থী করলে তৈমুর আলম নির্বাচনে অংশ নেবেন। গত বৃহস্পতিবার রাতে গুলশানে বিএনপির স্থায়ী কমিটির বৈঠকের একপর্যায়ে সংবাদ সম্মেলন করেন মহাসচিব মির্জা ফখরুল। তিনি বলেন, নারায়ণগঞ্জের নির্বাচনে বিএনপি অংশ নেবে। আজ দুপুরে তৈমুর আলম বলেন, ‘ভালো নির্বাচন না হলে প্রার্থী হয়ে কী লাভ। চেয়ারপারসনকে বিগত উপজেলা, ইউনিয়ন পরিষদ ও পৌরসভা নির্বাচনের কথা বলেছি। নারায়ণগঞ্জের নির্বাচনের কথাও বলেছি। দলের নির্বাচিতদের মধ্যে যারা সরকারের দালালি করছে না, তারা সবাই হয় জেলে, নয়তো মেয়র, চেয়ারম্যান পদ থেকে বহিষ্কার হয়ে আছে। এ অবস্থায় নির্বাচন করার যৌক্তিকতা নিয়ে তাঁকে (চেয়ারপারসন) বলেছি।’ বিগত সিটি করপোরেশন নির্বাচনে বিএনপির মেয়র প্রার্থী ছিলেন তৈমুর আলম। ভোটের আগের দিন বিএনপি ওই নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ায়। যদিও বিএনপির এই সিদ্ধান্ত নিজের নয় বলে তখন জানিয়েছিলেন তিনি। তৈমুর মনে করেন, দলের প্রতি অনুগত থাকায় তিনি দলীয় যেকোনো সিদ্ধান্ত মানবেন। তবে তিনি চেয়ারপারসনকে বলেছেন, নির্বাচন করার ব্যাপারে তাঁর আগ্রহ নেই। সেই কারণগুলোও ব্যাখ্যা করেছেন। এখন দেখা যাক, দল শেষ পর্যন্ত কী সিদ্ধান্ত দেয়।

Comments

Comments!

 তৈমুরের আগ্রহ নেই, তবু তিনিই বিএনপির প্রার্থীAmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

তৈমুরের আগ্রহ নেই, তবু তিনিই বিএনপির প্রার্থী

Saturday, November 19, 2016 4:51 pm
6

নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন নির্বাচনে দলের মেয়র প্রার্থী হিসেবে তৈমুর আলম খন্দকারকে চূড়ান্ত করেছে বিএনপি। তৈমুর আলম বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা। কিছুদিন আগেও তিনি নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপির সভাপতি ছিলেন।

গতকাল শুক্রবার রাতে বিএনপি চেয়ারপারসনের গুলশান কার্যালয়ে এক বৈঠকে তৈমুর আলমকে দলীয় প্রার্থী হতে প্রস্তুতি নেওয়ার জন্য বলা হয়েছে। বৈঠকে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া, মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, তৈমুর আলম ও নারায়ণগঞ্জের কয়েকজন নেতা উপস্থিত ছিলেন।

আজ শনিবার দুপুরে টেলিফোনে তৈমুর আলম প্রথম আলোকে বলেন, গতকাল রাতের বৈঠকে তাঁকে মেয়র প্রার্থী হতে বলা হয়েছে। তিনি দলের প্রতি অনুগত। তবে বর্তমান রাজনৈতিক বাস্তবতায় ও নির্বাচনী ব্যবস্থায় তাঁর প্রার্থী হওয়ার কোনো আগ্রহ নেই। কেন আগ্রহ নেই, সেটাই চেয়ারপারসনকে বলেছেন। তবে দল যদি তাঁকে প্রার্থী করার ব্যাপারে অনড় থাকে, তিনি নির্বাচনে অংশ নেবেন।

গতকালের বৈঠকে উপস্থিত নারায়ণগঞ্জের একজন নেতা প্রথম আলোকে বলেন, তৈমুর আলম নির্বাচন করতে চান না। কেন চান না, সেটাও তিনি ব্যাখ্যা করেছেন। এখন নির্বাচন সুষ্ঠু হচ্ছে না। বিএনপির প্রার্থী হিসেবে এই নির্বাচনে অংশ নিয়ে জয়লাভ করা সম্ভব নয় বলেই তৈমুর আলম মনে করেন। এই বিষয়গুলো তিনি দলীয় চেয়ারপারসনকে বারবার বলেছেন। ওই নেতা বলেন, তবে এটা ঠিক, বিএনপি প্রার্থী করলে তৈমুর আলম নির্বাচনে অংশ নেবেন।

গত বৃহস্পতিবার রাতে গুলশানে বিএনপির স্থায়ী কমিটির বৈঠকের একপর্যায়ে সংবাদ সম্মেলন করেন মহাসচিব মির্জা ফখরুল। তিনি বলেন, নারায়ণগঞ্জের নির্বাচনে বিএনপি অংশ নেবে।

আজ দুপুরে তৈমুর আলম বলেন, ‘ভালো নির্বাচন না হলে প্রার্থী হয়ে কী লাভ। চেয়ারপারসনকে বিগত উপজেলা, ইউনিয়ন পরিষদ ও পৌরসভা নির্বাচনের কথা বলেছি। নারায়ণগঞ্জের নির্বাচনের কথাও বলেছি। দলের নির্বাচিতদের মধ্যে যারা সরকারের দালালি করছে না, তারা সবাই হয় জেলে, নয়তো মেয়র, চেয়ারম্যান পদ থেকে বহিষ্কার হয়ে আছে। এ অবস্থায় নির্বাচন করার যৌক্তিকতা নিয়ে তাঁকে (চেয়ারপারসন) বলেছি।’

বিগত সিটি করপোরেশন নির্বাচনে বিএনপির মেয়র প্রার্থী ছিলেন তৈমুর আলম। ভোটের আগের দিন বিএনপি ওই নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ায়। যদিও বিএনপির এই সিদ্ধান্ত নিজের নয় বলে তখন জানিয়েছিলেন তিনি।

তৈমুর মনে করেন, দলের প্রতি অনুগত থাকায় তিনি দলীয় যেকোনো সিদ্ধান্ত মানবেন। তবে তিনি চেয়ারপারসনকে বলেছেন, নির্বাচন করার ব্যাপারে তাঁর আগ্রহ নেই। সেই কারণগুলোও ব্যাখ্যা করেছেন। এখন দেখা যাক, দল শেষ পর্যন্ত কী সিদ্ধান্ত দেয়।

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X