সোমবার, ১৯শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং, ৭ই ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, সকাল ৬:০৯
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Thursday, July 28, 2016 8:16 am
A- A A+ Print

দিনাজপুরের ‘জঙ্গি’ আবদুল্লাহর লাশ গ্রহণ করবে না পরিবার

photo-1469649297

রাজধানীর কল্যাণপুরে যৌথ বাহিনীর অভিযানে নিহত দিনাজপুরের ‘জঙ্গি’ আবদুল্লাহর লাশ গ্রহণ করবেন না বলে জানিয়েছেন তার বাবা সোহরাব আলী। বুধবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে আবদুল্লাহর গ্রামের বাড়ী দিনাজপুরের নবাবগঞ্জ উপজেলার বল্লভপুরে এনটিভি অনলাইনের হিলি প্রতিনিধিকে তিনি এই কথা জানান। সোহরাব আলী জানান ছেলের জঙ্গির কর্মকান্ডের কথা তার পরিবারের কেউ কিছু জানেন না। এসময় তিনি দেশ ও জাতীর কাছে ক্ষমা চেয়ে বলেন, ছেলের লাশ তার পরিবার গ্রহণ করবে না। মঙ্গলবার রাজধানীর কল্যাণপুরে যৌথ বাহিনীর অভিযানে নিহত হন জঙ্গি আবদুল্লাহ সহ আরও আট জঙ্গি। পুলিশ ও গ্রামবাসী সুত্রে জানা গেছে, সোহরাব আলীর ৫ ছেলে ও ১ মেয়ের মধ্যে আবদুল্লাহ চতুর্থ। গ্রামের বল্লভপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ৫ম শ্রেনী পর্যন্ত লেখাপড়া করে হিলির একটি মাদ্রাসায় ভর্তি হয় আবদুল্লাহ। সেখানে এক বছর পড়ার পর নওগাঁর সাপাহারের একটি মাদ্রাসায় পড়তে যায় আবদুল্লাহ। এরপর নারায়ণগঞ্জের রুপগঞ্জের দেবই কাজীরবাগ আলীম মাদ্রাসায় দাখিল এবং আলিম পর্যন্ত লেখাপড়া করে সে। আবদুল্লাহর বড় ভাই নুর ইসলাম জানান, এক বছর আগে থেকে আবদুল্লাহ পরিবারের সাথে দেখা সাক্ষাত বন্ধ করে দেয়। কিন্তু মোবাইল ফোনে প্রায়ই কথা বলতো সে। এছাড়া তার সাথে আমাদের আর কোনো যোগাযোগ ছিল না। আবদুল্লাহ ১৯৯৩ সালের ১৫ জানুয়ারি জন্ম গ্রহণ করে। নবাবগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. ইসমাইল হোসেন জানান, আবদুল্লাহর বাবা ও ভাইয়েরা রাজমিস্ত্রির কাজ করে। তারা জামায়াতে ইসলামীর সমর্থক। তবে এখানে আবদুল্লাহর কোনো কর্মকাণ্ড কারও নজরে আসেনি। ছোট থেকেই সে বাইরে ছিল। আবদুল্লাহর বড়ভাই নুর ইসলাম জামায়াতে ইসলামের রাজনীতির সাথে তাদের জড়িত থাকার কথা অস্বীকার করেছেন।

Comments

Comments!

 দিনাজপুরের ‘জঙ্গি’ আবদুল্লাহর লাশ গ্রহণ করবে না পরিবারAmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

দিনাজপুরের ‘জঙ্গি’ আবদুল্লাহর লাশ গ্রহণ করবে না পরিবার

Thursday, July 28, 2016 8:16 am
photo-1469649297

রাজধানীর কল্যাণপুরে যৌথ বাহিনীর অভিযানে নিহত দিনাজপুরের ‘জঙ্গি’ আবদুল্লাহর লাশ গ্রহণ করবেন না বলে জানিয়েছেন তার বাবা সোহরাব আলী।

বুধবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে আবদুল্লাহর গ্রামের বাড়ী দিনাজপুরের নবাবগঞ্জ উপজেলার বল্লভপুরে এনটিভি অনলাইনের হিলি প্রতিনিধিকে তিনি এই কথা জানান।

সোহরাব আলী জানান ছেলের জঙ্গির কর্মকান্ডের কথা তার পরিবারের কেউ কিছু জানেন না। এসময় তিনি দেশ ও জাতীর কাছে ক্ষমা চেয়ে বলেন, ছেলের লাশ তার পরিবার গ্রহণ করবে না।

মঙ্গলবার রাজধানীর কল্যাণপুরে যৌথ বাহিনীর অভিযানে নিহত হন জঙ্গি আবদুল্লাহ সহ আরও আট জঙ্গি।

পুলিশ ও গ্রামবাসী সুত্রে জানা গেছে, সোহরাব আলীর ৫ ছেলে ও ১ মেয়ের মধ্যে আবদুল্লাহ চতুর্থ। গ্রামের বল্লভপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ৫ম শ্রেনী পর্যন্ত লেখাপড়া করে হিলির একটি মাদ্রাসায় ভর্তি হয় আবদুল্লাহ। সেখানে এক বছর পড়ার পর নওগাঁর সাপাহারের একটি মাদ্রাসায় পড়তে যায় আবদুল্লাহ। এরপর নারায়ণগঞ্জের রুপগঞ্জের দেবই কাজীরবাগ আলীম মাদ্রাসায় দাখিল এবং আলিম পর্যন্ত লেখাপড়া করে সে।

আবদুল্লাহর বড় ভাই নুর ইসলাম জানান, এক বছর আগে থেকে আবদুল্লাহ পরিবারের সাথে দেখা সাক্ষাত বন্ধ করে দেয়। কিন্তু মোবাইল ফোনে প্রায়ই কথা বলতো সে। এছাড়া তার সাথে আমাদের আর কোনো যোগাযোগ ছিল না। আবদুল্লাহ ১৯৯৩ সালের ১৫ জানুয়ারি জন্ম গ্রহণ করে।

নবাবগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. ইসমাইল হোসেন জানান, আবদুল্লাহর বাবা ও ভাইয়েরা রাজমিস্ত্রির কাজ করে। তারা জামায়াতে ইসলামীর সমর্থক। তবে এখানে আবদুল্লাহর কোনো কর্মকাণ্ড কারও নজরে আসেনি। ছোট থেকেই সে বাইরে ছিল।

আবদুল্লাহর বড়ভাই নুর ইসলাম জামায়াতে ইসলামের রাজনীতির সাথে তাদের জড়িত থাকার কথা অস্বীকার করেছেন।

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X