রবিবার, ১৮ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং, ৬ই ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, দুপুর ২:৩৫
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Wednesday, October 26, 2016 10:16 am
A- A A+ Print

দুয়ারে শীত

winter_top1477449393

  চলে যাচ্ছে হেমন্ত। আসছে শীত। রাত বাড়ার সাথে সাথে আবহাওয়া জানান দেয় দুয়ারে কড়া নাড়ছে শীত।
  ইটপাথরে ঘেরা এ যান্ত্রিক শহরে হয়ত শীতের আগমনকে বোঝা যায় না। কিন্তু গ্রামাঞ্চলে শীতের আবহটা বেশ ভালোই বোঝা যাচ্ছে। রাতে ঠাণ্ডা, আর সকালে কুয়াশায় ভিজছে মাঠের ঘাস, গাছপালা। দিনের থেকে তাপমাত্রাও হ্রাস পাচ্ছে রাতের বেলা।   পিপীলিকারা ব্যস্ত শীতের অন্ন মজুদ করতে। পাখিরাও শীতের আশ্রয় খুঁজছে। লোকজনও প্রস্তুত হচ্ছে শীতকে বরণ করে নিতে।   Winter   গ্রামে শীত এলেই অন্য এক পরিবেশ তৈরি হয়। সকালে চাঁদর গায়ে দিয়ে বেড়াঁনো, উঠানে খড়ে আগুন জ্বালিয়ে শীত নিবারণ আর গুড় দিয়ে মুড়ির মোয়া আহ!- কতই না মিষ্টি। সেই সঙ্গে খেজুরের রস বাড়িয়ে দেয় অন্যরকম দোলা।   গাছিরা ভোরে সূর্য উঠার আগেই খেজুর গাছ থেকে রস সংগ্রহ করেন। সেই রস দিয়ে তৈরি খেজুরর গুড় বাঙালি সংস্কৃতির একটি অবিচ্ছেদ্য অংশ। খেজুরের গুড় ছাড়া শীতকালে পিঠা-পায়েশ তৈরির কথা ভাবাই যায় না। শীত আসার সঙ্গে সঙ্গে দেশে খেজুরগুড় তৈরির ধুম পড়ে যায়।   Winter   শীত এলেই ঘরে ঘরে সুস্বাদু পিঠার উৎসব শুরু হয়ে যায়। কুয়াশা মোড়ানো শীতের হিমেল হাওয়ায় ধোয়া উঠা ভাঁপা পিঠার স্বাদ না নিলে যেন অতৃপ্তি মেটে না। গ্রামাঞ্চলের ঘরে ঘরে তাই শীত এলেই পিঠা তৈরি ও খাওয়ার ধুম লেগে যায়।   পিঠা বাঙালির ঐতিহ্য। পরিবার পরিজন মিলে পিঠা খাওয়া, আত্বীয়-স্বজনের বাড়িতে পাঠানো যেনো এক উৎসবে পরিণত হয়। গ্রামাঞ্চলে শীতে যেমন বাহারি পিঠা হয় তেমনি বাহারি তার নাম।   গ্রাম-বাংলার কিছু পিঠা হচ্ছে- নকশি পিঠা, চিতই পিঠা, রস পিঠা, ডিম চিতই পিঠা, দোল পিঠা, ভাপা পিঠা, পাটিসাপটা পিঠা, পাকান, আন্দশা, কাটা পিঠা, ছিট পিঠা, গোকুল পিঠা, চুটকি পিঠা, মুঠি পিঠা, জামদানি পিঠা, হাড়ি পিঠা, চাপড়ি পিঠা, পাতা পিঠা, ঝুড়ি পিঠা, তেল পিঠা, পুলি পিঠা, পাটিসপ্তা, নকশি পিঠা, ফুল পিঠা, মাল পোয়া, রস পাকন আরো নাম না জানা হাজারো পিঠা আছে এই বাংলায়।   Winter   এর মধ্যে ভাপা পিঠা, চিতই পিঠা, পাটিসাপটা এর প্রচলন সবথেকে বেশী। আর কিছুদিন পরেই হয়ত শীত চলে আসবে তার চিরা চরিতো সেই কুয়াশার চাঁদরে মুড়িয়ে। আমরাও অপেক্ষায় থাকি স্বাগত জানাতে।   আসুক তবে রসের মাস, আসুক তবে পিঠা-পুলির মাস। পিঠার উৎসবে জেগে উঠুক গ্রাম বাংলার সেই চেনারুপ। ছড়িয়ে যাক সবার ঘরে ঘরে।  

Comments

Comments!

 দুয়ারে শীতAmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

দুয়ারে শীত

Wednesday, October 26, 2016 10:16 am
winter_top1477449393

  চলে যাচ্ছে হেমন্ত। আসছে শীত। রাত বাড়ার সাথে সাথে আবহাওয়া জানান দেয় দুয়ারে কড়া নাড়ছে শীত।

 

ইটপাথরে ঘেরা এ যান্ত্রিক শহরে হয়ত শীতের আগমনকে বোঝা যায় না। কিন্তু গ্রামাঞ্চলে শীতের আবহটা বেশ ভালোই বোঝা যাচ্ছে। রাতে ঠাণ্ডা, আর সকালে কুয়াশায় ভিজছে মাঠের ঘাস, গাছপালা। দিনের থেকে তাপমাত্রাও হ্রাস পাচ্ছে রাতের বেলা।

 

পিপীলিকারা ব্যস্ত শীতের অন্ন মজুদ করতে। পাখিরাও শীতের আশ্রয় খুঁজছে। লোকজনও প্রস্তুত হচ্ছে শীতকে বরণ করে নিতে।

 

Winter

 

গ্রামে শীত এলেই অন্য এক পরিবেশ তৈরি হয়। সকালে চাঁদর গায়ে দিয়ে বেড়াঁনো, উঠানে খড়ে আগুন জ্বালিয়ে শীত নিবারণ আর গুড় দিয়ে মুড়ির মোয়া আহ!- কতই না মিষ্টি। সেই সঙ্গে খেজুরের রস বাড়িয়ে দেয় অন্যরকম দোলা।

 

গাছিরা ভোরে সূর্য উঠার আগেই খেজুর গাছ থেকে রস সংগ্রহ করেন। সেই রস দিয়ে তৈরি খেজুরর গুড় বাঙালি সংস্কৃতির একটি অবিচ্ছেদ্য অংশ। খেজুরের গুড় ছাড়া শীতকালে পিঠা-পায়েশ তৈরির কথা ভাবাই যায় না। শীত আসার সঙ্গে সঙ্গে দেশে খেজুরগুড় তৈরির ধুম পড়ে যায়।

 

Winter

 

শীত এলেই ঘরে ঘরে সুস্বাদু পিঠার উৎসব শুরু হয়ে যায়। কুয়াশা মোড়ানো শীতের হিমেল হাওয়ায় ধোয়া উঠা ভাঁপা পিঠার স্বাদ না নিলে যেন অতৃপ্তি মেটে না। গ্রামাঞ্চলের ঘরে ঘরে তাই শীত এলেই পিঠা তৈরি ও খাওয়ার ধুম লেগে যায়।

 

পিঠা বাঙালির ঐতিহ্য। পরিবার পরিজন মিলে পিঠা খাওয়া, আত্বীয়-স্বজনের বাড়িতে পাঠানো যেনো এক উৎসবে পরিণত হয়। গ্রামাঞ্চলে শীতে যেমন বাহারি পিঠা হয় তেমনি বাহারি তার নাম।

 

গ্রাম-বাংলার কিছু পিঠা হচ্ছে- নকশি পিঠা, চিতই পিঠা, রস পিঠা, ডিম চিতই পিঠা, দোল পিঠা, ভাপা পিঠা, পাটিসাপটা পিঠা, পাকান, আন্দশা, কাটা পিঠা, ছিট পিঠা, গোকুল পিঠা, চুটকি পিঠা, মুঠি পিঠা, জামদানি পিঠা, হাড়ি পিঠা, চাপড়ি পিঠা, পাতা পিঠা, ঝুড়ি পিঠা, তেল পিঠা, পুলি পিঠা, পাটিসপ্তা, নকশি পিঠা, ফুল পিঠা, মাল পোয়া, রস পাকন আরো নাম না জানা হাজারো পিঠা আছে এই বাংলায়।

 

Winter

 

এর মধ্যে ভাপা পিঠা, চিতই পিঠা, পাটিসাপটা এর প্রচলন সবথেকে বেশী। আর কিছুদিন পরেই হয়ত শীত চলে আসবে তার চিরা চরিতো সেই কুয়াশার চাঁদরে মুড়িয়ে। আমরাও অপেক্ষায় থাকি স্বাগত জানাতে।

 

আসুক তবে রসের মাস, আসুক তবে পিঠা-পুলির মাস। পিঠার উৎসবে জেগে উঠুক গ্রাম বাংলার সেই চেনারুপ। ছড়িয়ে যাক সবার ঘরে ঘরে।

 

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X