রবিবার, ১৮ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং, ৬ই ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, দুপুর ১২:৩১
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Wednesday, July 5, 2017 3:54 pm
A- A A+ Print

দৃষ্টি সরাতেই মজহারকে অপহরণ : ফখরুল

download (1)

বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর অভিযোগ করে বলেছেন, সংবিধানের ষোড়শ সংশোধনীর রায়ের বিষয় থেকে দৃষ্টি সরাতেই সরকার কবি ও প্রাবন্ধিক ফরহাদ মজহারের অপহরণের ঘটনা ঘটিয়েছে। আজ বুধবার রাজধানীর নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে ফখরুল এ মন্তব্য করেন। সোমবার সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতিদের অপসারণ-সংক্রান্ত সংবিধানের ষোড়শ সংশোধনী বাতিল করে হাইকোর্টের রায় বহাল রাখেন আপিল বিভাগ। এর ফলে বিচারপতিদের অপসারণের ক্ষমতা সংসদের হাতে থাকছে না; বরং তা আগের মতোই সুপ্রিম জুডিশিয়াল কাউন্সিলের হাতে ন্যস্ত থাকবে। একই দিনে অপহরণের শিকার হন ফরহাদ মজহার। অবশ্য রায়ের আগে ভোরেই নিজ বাসা থেকে নামার পর দুর্বৃত্তরা অপহরণ করে তাঁকে নিয়ে যায় খুলনা বিভাগে। পরে যশোরের নোয়াপাড়া থেকে রাতে তাঁকে উদ্ধার করা হয়। গতকাল মঙ্গলবার ফরহাদ মজহারকে যশোর থেকে ঢাকায় আনা হয়। এর পর আদাবর থানা থেকে ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) গোয়েন্দা শাখার (ডিবি) কার্যালয়ে জিজ্ঞাসাবাদের পর তাঁকে আদালতে তোলা হয়। পরে তাঁকে নিজ জিম্মায় ছেড়ে দেন আদালত। এর একদিন পর বুধবার নয়াপল্টনে দলের কার্যালয়ে অপহরণের বিষয়ে  সাংবাদিকের এক প্রশ্নের জবাবে ফখরুল বলেন, ‘ফরহাদ সাহেবের ব্যাপারটা নিয়ে যেটা চলছে, এ রায়টা হলো ষোড়শ সংশোধনীর। তার পরেই কিন্তু ঘটনাটা ঘটল। অর্থাৎ ডাইভারশনটা (মোড়) এটা অনেকটা, এটা হচ্ছে আমাদের স্পেকুলেশনস (জল্পনা)।’ ‘আপনারা যদি না করে থাকেন, জড়িত না থাকেন, সত্যটা বের করেন।’ এক সাংবাদিকের আরেক প্রশ্নের জবাবে বিএনপির মহাসচিব বলেন, ‘কী করবে ভাই? আর বাকি রেখেছে কী? এখন শুধু জানটা নিয়ে নেওয়া বাকি। এই তো।’ ‘৮৬টা মামলা, আপনার ৩৬টা মামলায় চার্জশিট হয়ে গেছে। আপনার মামলায় প্রতিদিন যেতে হয়। আমার নেত্রীকে, দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে আজকে প্রতি সপ্তাহে আপনার কোর্টে যেতে হয়। কী অপরাধ তাঁর? কার কাছে বলব? কোথায় যাব?’

Comments

Comments!

 দৃষ্টি সরাতেই মজহারকে অপহরণ : ফখরুলAmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

দৃষ্টি সরাতেই মজহারকে অপহরণ : ফখরুল

Wednesday, July 5, 2017 3:54 pm
download (1)

বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর অভিযোগ করে বলেছেন, সংবিধানের ষোড়শ সংশোধনীর রায়ের বিষয় থেকে দৃষ্টি সরাতেই সরকার কবি ও প্রাবন্ধিক ফরহাদ মজহারের অপহরণের ঘটনা ঘটিয়েছে।

আজ বুধবার রাজধানীর নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে ফখরুল এ মন্তব্য করেন।

সোমবার সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতিদের অপসারণ-সংক্রান্ত সংবিধানের ষোড়শ সংশোধনী বাতিল করে হাইকোর্টের রায় বহাল রাখেন আপিল বিভাগ। এর ফলে বিচারপতিদের অপসারণের ক্ষমতা সংসদের হাতে থাকছে না; বরং তা আগের মতোই সুপ্রিম জুডিশিয়াল কাউন্সিলের হাতে ন্যস্ত থাকবে।

একই দিনে অপহরণের শিকার হন ফরহাদ মজহার। অবশ্য রায়ের আগে ভোরেই নিজ বাসা থেকে নামার পর দুর্বৃত্তরা অপহরণ করে তাঁকে নিয়ে যায় খুলনা বিভাগে। পরে যশোরের নোয়াপাড়া থেকে রাতে তাঁকে উদ্ধার করা হয়।

গতকাল মঙ্গলবার ফরহাদ মজহারকে যশোর থেকে ঢাকায় আনা হয়। এর পর আদাবর থানা থেকে ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) গোয়েন্দা শাখার (ডিবি) কার্যালয়ে জিজ্ঞাসাবাদের পর তাঁকে আদালতে তোলা হয়। পরে তাঁকে নিজ জিম্মায় ছেড়ে দেন আদালত।

এর একদিন পর বুধবার নয়াপল্টনে দলের কার্যালয়ে অপহরণের বিষয়ে  সাংবাদিকের এক প্রশ্নের জবাবে ফখরুল বলেন, ‘ফরহাদ সাহেবের ব্যাপারটা নিয়ে যেটা চলছে, এ রায়টা হলো ষোড়শ সংশোধনীর। তার পরেই কিন্তু ঘটনাটা ঘটল। অর্থাৎ ডাইভারশনটা (মোড়) এটা অনেকটা, এটা হচ্ছে আমাদের স্পেকুলেশনস (জল্পনা)।’

‘আপনারা যদি না করে থাকেন, জড়িত না থাকেন, সত্যটা বের করেন।’

এক সাংবাদিকের আরেক প্রশ্নের জবাবে বিএনপির মহাসচিব বলেন, ‘কী করবে ভাই? আর বাকি রেখেছে কী? এখন শুধু জানটা নিয়ে নেওয়া বাকি। এই তো।’

‘৮৬টা মামলা, আপনার ৩৬টা মামলায় চার্জশিট হয়ে গেছে। আপনার মামলায় প্রতিদিন যেতে হয়। আমার নেত্রীকে, দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে আজকে প্রতি সপ্তাহে আপনার কোর্টে যেতে হয়। কী অপরাধ তাঁর? কার কাছে বলব? কোথায় যাব?’

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X