সোমবার, ২৬শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং, ১৪ই ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, ভোর ৫:৫৪
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Friday, November 18, 2016 10:41 pm
A- A A+ Print

দেড় দিনে ১০ লাখ বার দেখা হয়েছে ‘অধিনায়ক ও নায়কেরা’

download

প্রকাশের পর গত দেড় দিনে শুধু ফেসবুকে মাশরাফির নায়কদের গল্পটি দেখা হয়েছে ১০ লাখের বেশি বার। পাশাপাশি ইউটিউব ও প্রথম আলো অনলাইনে দেখছেন বিপুলসংখ্যক মানুষ। আবেগ আর ভালোবাসার কমেন্টে ভরে যাচ্ছে ফেসবুক ফিড। নিজের ওয়ালে শেয়ার করেছেন ৩৬ হাজারের বেশি মানুষ। মাশরাফির প্রিয় চার তরুণ নায়ক কারা? তিনি সেটা বলেছেন ‘অধিনায়ক ও নায়কেরা’ তথ্যচিত্রে। ১৮তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে প্রথম আলো এই বিশেষ তথ্যচিত্রটি নির্মাণ করেছে। ১০ মিনিটের এই তথ্যচিত্রে বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের (টি-টোয়েন্টি ও ওয়ানডে) অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা তাঁর প্রিয় চার নায়ককে পরিচয় করিয়ে দিয়েছেন। তিনি বলেছেন, এই নায়কদের গল্প আরও সামনে নিয়ে আসা উচিত। গত বুধবার সন্ধ‍্যায় ফেসবুকে প্রকাশের পর থেকে ব্যাপক সাড়া ফেলেছে এই তথ্যচিত্র। বেশির ভাগই আবেগের কথা বলছেন, বলছেন ভালো লাগার কথা। অনেকেই কমেন্ট ও শেয়ারে বলেছেন, কাহিনিগুলো দেখে তাঁরা চোখের পানি ধরে রাখতে পারেননি। অভিবাদন ও ভালোবাসা জানাচ্ছেন মাশরাফিকে। প্রথম আলোকেও ধন্যবাদ জানাচ্ছেন অনেকে। পার্বতী ইসলাম নামের একজন বলেছেন, ‘সত্যি বলতে কি ভাষা হারিয়ে ফেলেছি ভিডিওটি দেখে—এত যেন কষ্ট নয়, স্বপ্নের ভালোবাসা। আমি তাদের স্যালুট করি, এদের প্রতি শ্রদ্ধা ও গভীরভাবে অভিনন্দন! তোমরা এগিয়ে যাও আর ভালোবাসার দিক থেকে মাশরাফি ভাইকে অনেক অনেক শুভেচ্ছা রইল।’ সৈয়দ মেহেদি লিখেছেন, ‘ভিডিও দেখে নিজেকে মনে মনে ধিক্কার দিয়েছি। এত বাধা পেরিয়েও এরা দেশের জন্য নিজেদেরকে বিলিয়ে দিচ্ছেন, আর আমি কেবলই নিজের জন্য, সংসারের জন্যই কেবল ছুটে চলছি। আজ থেকে প্রতিজ্ঞা করলাম, আমি কেবল আমার জন্য নই, আজ থেকে আমি সবার। আমি এ দেশের মানুষের জন্য কাজ করে যাব আজীবন।’ মডেল অভিনেত্রী পিয়া জান্নাতুল ফেসবুকে লিখেছেন তাঁর জীবনে দেখা সেরা ভিডিও এটি। একইভাবে উপস্থাপিকা ও অভিনেত্রী মারিয়া নূর তথ্যচিত্রটিকে খুবই অনুপ্রেরণাদায়ক উল্লেখ করে বলেছেন, এটাই তারুণ্যের শক্তি। ১১ নভেম্বর প্রথম আলোর প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে আয়োজিত সুধী সমাবেশে ‘অধিনায়ক ও নায়কেরা’ তথ্যচিত্রটি প্রথমবারের মতো প্রদর্শিত হয়। ছবিটি দেখে উপস্থিত সুধীজনের অনেকেই চোখের পানি সংবরণ করতে পারেননি। আনিসুল হকের পরিকল্পনায় তথ্যচিত্রটি নির্মাণ করেছেন রেদওয়ান রনি ও নিয়ামুল মুক্তা।

Comments

Comments!

 দেড় দিনে ১০ লাখ বার দেখা হয়েছে ‘অধিনায়ক ও নায়কেরা’AmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

দেড় দিনে ১০ লাখ বার দেখা হয়েছে ‘অধিনায়ক ও নায়কেরা’

Friday, November 18, 2016 10:41 pm
download

প্রকাশের পর গত দেড় দিনে শুধু ফেসবুকে মাশরাফির নায়কদের গল্পটি দেখা হয়েছে ১০ লাখের বেশি বার। পাশাপাশি ইউটিউব ও প্রথম আলো অনলাইনে দেখছেন বিপুলসংখ্যক মানুষ। আবেগ আর ভালোবাসার কমেন্টে ভরে যাচ্ছে ফেসবুক ফিড। নিজের ওয়ালে শেয়ার করেছেন ৩৬ হাজারের বেশি মানুষ।
মাশরাফির প্রিয় চার তরুণ নায়ক কারা? তিনি সেটা বলেছেন ‘অধিনায়ক ও নায়কেরা’ তথ্যচিত্রে। ১৮তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে প্রথম আলো এই বিশেষ তথ্যচিত্রটি নির্মাণ করেছে। ১০ মিনিটের এই তথ্যচিত্রে বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের (টি-টোয়েন্টি ও ওয়ানডে) অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা তাঁর প্রিয় চার নায়ককে পরিচয় করিয়ে দিয়েছেন। তিনি বলেছেন, এই নায়কদের গল্প আরও সামনে নিয়ে আসা উচিত।
গত বুধবার সন্ধ‍্যায় ফেসবুকে প্রকাশের পর থেকে ব্যাপক সাড়া ফেলেছে এই তথ্যচিত্র। বেশির ভাগই আবেগের কথা বলছেন, বলছেন ভালো লাগার কথা। অনেকেই কমেন্ট ও শেয়ারে বলেছেন, কাহিনিগুলো দেখে তাঁরা চোখের পানি ধরে রাখতে পারেননি। অভিবাদন ও ভালোবাসা জানাচ্ছেন মাশরাফিকে। প্রথম আলোকেও ধন্যবাদ জানাচ্ছেন অনেকে। পার্বতী ইসলাম নামের একজন বলেছেন, ‘সত্যি বলতে কি ভাষা হারিয়ে ফেলেছি ভিডিওটি দেখে—এত যেন কষ্ট নয়, স্বপ্নের ভালোবাসা। আমি তাদের স্যালুট করি, এদের প্রতি শ্রদ্ধা ও গভীরভাবে অভিনন্দন! তোমরা এগিয়ে যাও আর ভালোবাসার দিক থেকে মাশরাফি ভাইকে অনেক অনেক শুভেচ্ছা রইল।’ সৈয়দ মেহেদি লিখেছেন, ‘ভিডিও দেখে নিজেকে মনে মনে ধিক্কার দিয়েছি। এত বাধা পেরিয়েও এরা দেশের জন্য নিজেদেরকে বিলিয়ে দিচ্ছেন, আর আমি কেবলই নিজের জন্য, সংসারের জন্যই কেবল ছুটে চলছি। আজ থেকে প্রতিজ্ঞা করলাম, আমি কেবল আমার জন্য নই, আজ থেকে আমি সবার। আমি এ দেশের মানুষের জন্য কাজ করে যাব আজীবন।’ মডেল অভিনেত্রী পিয়া জান্নাতুল ফেসবুকে লিখেছেন তাঁর জীবনে দেখা সেরা ভিডিও এটি। একইভাবে উপস্থাপিকা ও অভিনেত্রী মারিয়া নূর তথ্যচিত্রটিকে খুবই অনুপ্রেরণাদায়ক উল্লেখ করে বলেছেন, এটাই তারুণ্যের শক্তি।
১১ নভেম্বর প্রথম আলোর প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে আয়োজিত সুধী সমাবেশে ‘অধিনায়ক ও নায়কেরা’ তথ্যচিত্রটি প্রথমবারের মতো প্রদর্শিত হয়। ছবিটি দেখে উপস্থিত সুধীজনের অনেকেই চোখের পানি সংবরণ করতে পারেননি। আনিসুল হকের পরিকল্পনায় তথ্যচিত্রটি নির্মাণ করেছেন রেদওয়ান রনি ও নিয়ামুল মুক্তা।

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X