বুধবার, ২১শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং, ৯ই ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, সকাল ৯:৪২
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Wednesday, May 3, 2017 8:59 pm
A- A A+ Print

নগ্ন হয়ে পাহাড়চূড়ায় ছবি, বিপাকে মডেল

১৩

নিউজিল্যান্ডের স্থানীয় আদিবাসী ‘মাউরি’ জনগোষ্ঠীর কাছে মাউন্ট তারানাকি পাহাড়টি পবিত্র স্থান। আর এই পবিত্র পাহাড়ের চূড়ায় নগ্ন ছবি তুলে বিপাকে পড়েছেন প্লেবয় ম্যাগাজিনের মডেল জেয়লিন কুক। জেয়লিন কুকের ওপর বেজায় ক্ষিপ্ত মাউরি আদিবাসীরা। বিবিসির খবরে বলা হয়েছে, মাউন্ট তারানাকি পাহাড়টি একটি জীবন্ত আগ্নেয়গিরি। এর চূড়াকে মাউরিরা পরম পবিত্র স্থান হিসেবে গণ্য করেন। আর সেই চূড়ায় উঠে মডেলের নগ্ন ছবি তুলে তা প্রকাশ করায় বেজায় ক্ষিপ্ত হয়েছেন তাঁরা। এ ঘটনায় সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমেও ব্যাপক সমালোচনা হচ্ছে। স্থানীয় এক মাউরি ব্যক্তি জানান, ‘এখানে যা ঘটেছে, তা আমাদের সংস্কৃতির জন্য খুবই স্পর্শকাতর একটি ব্যাপার।’ . জেলিনি কুক। ছবি: ইনস্টাগ্রামজেলিনি কুক। ছবি: ইনস্টাগ্রামকয়েক দিন আগে নিউজিল্যান্ডে ওই পাহাড়ের চূড়ায় উঠে জেয়লিন কুক তাঁর সঙ্গীর সঙ্গে একটি ছবি তোলেন। এ সময় নগ্ন হয়ে একটি ছবিও তোলেন তিনি। ছবি ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্টে পোস্ট করেন। আর ওই ছবি দেওয়ার সঙ্গে সঙ্গে প্রায় ১০ হাজার লাইক পড়ে। মাউন্ট তারানাকি পাহাড়টি ‘মাউরি’দের কাছে পবিত্র একটি স্থান।মাউন্ট তারানাকি পাহাড়টি ‘মাউরি’দের কাছে পবিত্র একটি স্থান।মাউরি উপজাতির একজন মুখপাত্র ডেনিস গাহেয়ার বিবিসিকে বলেন, ‘এ ঘটনা ভ্যাটিকান সিটির সেন্টপিটার্স ব্যাসেলিকায় নগ্ন হয়ে ছবি তোলার শামিল। এটি পবিত্র একটি স্থান এবং এখানে এ ধরনের কাজ অত্যন্ত অনুপযুক্ত।’ ডেনিস গাহেয়ার আরও বলেন, ‘মানুষ হয়তো বলছে এটা শুধু পাথর এবং পৃথিবীর একটি স্থান; আপনি কীভাবে এটাকে অসম্মান করতে পারেন? কিন্তু ওই স্থানটা মাওরিদের পূর্বপুরুষের কবরস্থান হিসেবে বিবেচিত হয়। এটাকে পূর্বপুরুষদের স্মৃতি হিসেবে দেখা যায়।’ তিনি বলেন, ঐতিহ্যগতভাবে এ পাহাড়ের শীর্ষে আরোহণ করা অনুচিত হিসেবে দেখা হয় এবং শুধু আনুষ্ঠানিক উদ্দেশ্যেই সেখানে আরোহণ করা হয়। উল্লিখিত, পর্যটকের ওই ছবিটি কতটুকু প্রযোজ্য? এটা মাওরি আদিবাসীদের কাছে বিশ্বাসের প্রতি আঘাত।

Comments

Comments!

 নগ্ন হয়ে পাহাড়চূড়ায় ছবি, বিপাকে মডেলAmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

নগ্ন হয়ে পাহাড়চূড়ায় ছবি, বিপাকে মডেল

Wednesday, May 3, 2017 8:59 pm
১৩

নিউজিল্যান্ডের স্থানীয় আদিবাসী ‘মাউরি’ জনগোষ্ঠীর কাছে মাউন্ট তারানাকি পাহাড়টি পবিত্র স্থান। আর এই পবিত্র পাহাড়ের চূড়ায় নগ্ন ছবি তুলে বিপাকে পড়েছেন প্লেবয় ম্যাগাজিনের মডেল জেয়লিন কুক। জেয়লিন কুকের ওপর বেজায় ক্ষিপ্ত মাউরি আদিবাসীরা।

বিবিসির খবরে বলা হয়েছে, মাউন্ট তারানাকি পাহাড়টি একটি জীবন্ত আগ্নেয়গিরি। এর চূড়াকে মাউরিরা পরম পবিত্র স্থান হিসেবে গণ্য করেন। আর সেই চূড়ায় উঠে মডেলের নগ্ন ছবি তুলে তা প্রকাশ করায় বেজায় ক্ষিপ্ত হয়েছেন তাঁরা। এ ঘটনায় সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমেও ব্যাপক সমালোচনা হচ্ছে। স্থানীয় এক মাউরি ব্যক্তি জানান, ‘এখানে যা ঘটেছে, তা আমাদের সংস্কৃতির জন্য খুবই স্পর্শকাতর একটি ব্যাপার।’

.

জেলিনি কুক। ছবি: ইনস্টাগ্রামজেলিনি কুক। ছবি: ইনস্টাগ্রামকয়েক দিন আগে নিউজিল্যান্ডে ওই পাহাড়ের চূড়ায় উঠে জেয়লিন কুক তাঁর সঙ্গীর সঙ্গে একটি ছবি তোলেন। এ সময় নগ্ন হয়ে একটি ছবিও তোলেন তিনি। ছবি ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্টে পোস্ট করেন। আর ওই ছবি দেওয়ার সঙ্গে সঙ্গে প্রায় ১০ হাজার লাইক পড়ে।

মাউন্ট তারানাকি পাহাড়টি ‘মাউরি’দের কাছে পবিত্র একটি স্থান।মাউন্ট তারানাকি পাহাড়টি ‘মাউরি’দের কাছে পবিত্র একটি স্থান।মাউরি উপজাতির একজন মুখপাত্র ডেনিস গাহেয়ার বিবিসিকে বলেন, ‘এ ঘটনা ভ্যাটিকান সিটির সেন্টপিটার্স ব্যাসেলিকায় নগ্ন হয়ে ছবি তোলার শামিল। এটি পবিত্র একটি স্থান এবং এখানে এ ধরনের কাজ অত্যন্ত অনুপযুক্ত।’

ডেনিস গাহেয়ার আরও বলেন, ‘মানুষ হয়তো বলছে এটা শুধু পাথর এবং পৃথিবীর একটি স্থান; আপনি কীভাবে এটাকে অসম্মান করতে পারেন? কিন্তু ওই স্থানটা মাওরিদের পূর্বপুরুষের কবরস্থান হিসেবে বিবেচিত হয়। এটাকে পূর্বপুরুষদের স্মৃতি হিসেবে দেখা যায়।’ তিনি বলেন, ঐতিহ্যগতভাবে এ পাহাড়ের শীর্ষে আরোহণ করা অনুচিত হিসেবে দেখা হয় এবং শুধু আনুষ্ঠানিক উদ্দেশ্যেই সেখানে আরোহণ করা হয়। উল্লিখিত, পর্যটকের ওই ছবিটি কতটুকু প্রযোজ্য? এটা মাওরি আদিবাসীদের কাছে বিশ্বাসের প্রতি আঘাত।

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X