বৃহস্পতিবার, ২২শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং, ১০ই ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, রাত ৮:৪৭
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Saturday, January 7, 2017 12:19 am
A- A A+ Print

নিরাপত্তা চেয়ে ডিএমপি বরাবর আবেদন করেছেন এমপি লিটনের স্ত্রী

%e0%a7%a9%e0%a7%af

ঢাকায় অবস্থানরত নিহত গাইবান্ধার-১ আসনে সংসদ সদস্য  মুনজুরুল ইসলাম লিটনের স্ত্রী সৈয়দা খুরশিদ জাহান চরম নিরাপত্তাহীনতায় রয়েছেন। তিনি পরিবারের নিরাপত্তার জন্য সার্বক্ষণিক পুলিশ চেয়েছেন। এর সত্যতা নিশ্চিত করে ধানমন্ডি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবদুল লতিফ বলেছেন, ‘নিহত এমপি লিটনের স্ত্রী সৈয়দা খুরশিদ জাহান পরিবারের নিরাপত্তার জন্য ঢাকা মহানগর পুলিশ কমিশনার বরাবর একটি আবেদন করেছেন’। তিনি বলেন, ‘আবেদনে তিনি বলেছেন, তারা নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন। নিরাপত্তার জন্য তাদের সার্বক্ষণিক পুলিশ প্রয়োজন। চিঠির বিষয়টি কমিশনারের কার্যালয় থেকে ধানমন্ডি থানাকে জানানো হয়েছে। এরপর থানা থেকে পুলিশের একটি দল খুরশিদ জাহানের সঙ্গে দেখা করেছে এবং যেকোনো সময় প্রয়োজন হলে পুলিশ সহযোগিতা করবে বলে জানিয়ে এসেছে’। প্রসঙ্গত, ৩১ ডিসেম্বর সন্ধ্যার পর সুন্দরগঞ্জের বামনডাঙ্গায় নিজ বাড়িতে দুর্বৃত্তদের গুলিতে খুন হন এমপি লিটন। এ হত্যাকাণ্ডের পর আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী এপর্যন্ত ৪০ জনকে গ্রেপ্তার করেছে।এরমধ্যে বেশ কয়েকজনকে জেলহাজতে প্রেরণ এবং অন্যদের জিজ্ঞাবাদ করা হচ্ছে। ৬ দিনেও উদ্ধার হয়নি গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জে দুর্বৃত্তদের গুলিতে মঞ্জুরুল ইসলাম লিটন এমপি হত্যাকাণ্ডের মূল রহস্য। ঘটনার পর থেকে র‌্যাব, পুলিশ, বিজিবি, পিবিআইসহ দেশের সর্বোচ্চ পর্যায়ের গোয়েন্দারা হত্যাকাণ্ডের মূল ক্লু উদ্ঘাটনের জন্য রাতদিন কাজ করে যাচ্ছেন। কিন্তু তারা এখনো হত্যাকাণ্ডের আসল কারণ উদঘাটন করতে পারেনি। সংশ্লিষ্ট সূত্রগুলো জানিয়েছে, আইনশৃঙ্খলা বাহিনী ও গোয়েন্দা সদস্যরা হত্যাকাণ্ডের আসল কারণ উদঘাটন করতে না পারলেও তারা বেশ কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয় চিহ্নিত করতে পেরেছে। যা হত্যাকাণ্ডের রহস্য উদঘাটনে মূল ফ্যাক্টর হিসেবে কাজ করতে পারে। আর সেদিকেই হাঁটছে তারা।

Comments

Comments!

 নিরাপত্তা চেয়ে ডিএমপি বরাবর আবেদন করেছেন এমপি লিটনের স্ত্রীAmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

নিরাপত্তা চেয়ে ডিএমপি বরাবর আবেদন করেছেন এমপি লিটনের স্ত্রী

Saturday, January 7, 2017 12:19 am
%e0%a7%a9%e0%a7%af

ঢাকায় অবস্থানরত নিহত গাইবান্ধার-১ আসনে সংসদ সদস্য  মুনজুরুল ইসলাম লিটনের স্ত্রী সৈয়দা খুরশিদ জাহান চরম নিরাপত্তাহীনতায় রয়েছেন। তিনি পরিবারের নিরাপত্তার জন্য সার্বক্ষণিক পুলিশ চেয়েছেন।

এর সত্যতা নিশ্চিত করে ধানমন্ডি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবদুল লতিফ বলেছেন, ‘নিহত এমপি লিটনের স্ত্রী সৈয়দা খুরশিদ জাহান পরিবারের নিরাপত্তার জন্য ঢাকা মহানগর পুলিশ কমিশনার বরাবর একটি আবেদন করেছেন’।

তিনি বলেন, ‘আবেদনে তিনি বলেছেন, তারা নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন। নিরাপত্তার জন্য তাদের সার্বক্ষণিক পুলিশ প্রয়োজন। চিঠির বিষয়টি কমিশনারের কার্যালয় থেকে ধানমন্ডি থানাকে জানানো হয়েছে। এরপর থানা থেকে পুলিশের একটি দল খুরশিদ জাহানের সঙ্গে দেখা করেছে এবং যেকোনো সময় প্রয়োজন হলে পুলিশ সহযোগিতা করবে বলে জানিয়ে এসেছে’।

প্রসঙ্গত, ৩১ ডিসেম্বর সন্ধ্যার পর সুন্দরগঞ্জের বামনডাঙ্গায় নিজ বাড়িতে দুর্বৃত্তদের গুলিতে খুন হন এমপি লিটন। এ হত্যাকাণ্ডের পর আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী এপর্যন্ত ৪০ জনকে গ্রেপ্তার করেছে।এরমধ্যে বেশ কয়েকজনকে জেলহাজতে প্রেরণ এবং অন্যদের জিজ্ঞাবাদ করা হচ্ছে।

৬ দিনেও উদ্ধার হয়নি গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জে দুর্বৃত্তদের গুলিতে মঞ্জুরুল ইসলাম লিটন এমপি হত্যাকাণ্ডের মূল রহস্য। ঘটনার পর থেকে র‌্যাব, পুলিশ, বিজিবি, পিবিআইসহ দেশের সর্বোচ্চ পর্যায়ের গোয়েন্দারা হত্যাকাণ্ডের মূল ক্লু উদ্ঘাটনের জন্য রাতদিন কাজ করে যাচ্ছেন। কিন্তু তারা এখনো হত্যাকাণ্ডের আসল কারণ উদঘাটন করতে পারেনি।

সংশ্লিষ্ট সূত্রগুলো জানিয়েছে, আইনশৃঙ্খলা বাহিনী ও গোয়েন্দা সদস্যরা হত্যাকাণ্ডের আসল কারণ উদঘাটন করতে না পারলেও তারা বেশ কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয় চিহ্নিত করতে পেরেছে। যা হত্যাকাণ্ডের রহস্য উদঘাটনে মূল ফ্যাক্টর হিসেবে কাজ করতে পারে। আর সেদিকেই হাঁটছে তারা।

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X