সোমবার, ১৯শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং, ৭ই ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, রাত ৯:২৯
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Monday, October 9, 2017 9:20 pm
A- A A+ Print

‘পররাষ্ট্রনীতি মোটেও নতজানু নয়’

9

রোহিঙ্গা ইস্যুতে বাংলাদেশের পররাষ্ট্রনীতি মোটেও নতজানু  নয় বলে উল্লেখ করেছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ এইচ মাহমুদ আলী। তিনি বলেন, ‘সমালোচকদের উসকানিতে বাংলাদেশ রোহিঙ্গা ইস্যুতে যুদ্ধ করবে না।’ আজ সোমবার রাষ্ট্রীয় অতিথি ভবন পদ্মায় ঢাকায় নিযুক্ত বিভিন্ন দেশের কূটনীতিকদের রোহিঙ্গা ইস্যুতে ব্রিফিং শেষে সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী। রোহিঙ্গা ইস্যুতে বাংলাদেশ সরকার নতজানু নীতির পরিচয় দিয়েছে বলে যে সমালোচনা করা হয় তার জবাব অনেকটা ক্ষোভের সঙ্গেই দিয়েছেন পরাষ্ট্রমন্ত্রী। তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশ এ ব্যাপারে সঠিক পথেই আছে। কোনো উসকানিতে কাজ হবে না।’ পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘টকশোতে যেসব কথাবার্তা বলে, এগুলো কী ধরনের কথাবার্তা? যা করা সম্ভব তা তো আমরা করছি।’ মাহমুদ আলী বলেন, ‘নতজানু কী? তার মানে কি যুদ্ধ করব? না যুদ্ধ করবেন না। তাহলে কী করব? যুদ্ধ করা তো সম্ভব না। কারণ যুদ্ধ করলে তো সব ধ্বংস হয়ে যাবে। আপনারা দেখেন না সিরিয়া, ইরাকে, ইয়েমেনে কী হচ্ছে? কোথায় আমাদের সমর্থন করবে, না উল্টাপাল্টা কথা বলে। উল্টাপাল্টা কথা বললে কোনো কাজ হবে না। আমরা সেগুলো করব না। যুদ্ধ করতে বললে আমরা যুদ্ধ করব নাকি? কেন যুদ্ধ করব?’ পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘আমি মিয়ানমারের মন্ত্রীকে বলেছিলাম মিয়ানমারের সঙ্গে আমাদের বর্ডার হলো মাত্র ২৭১ কিলোমিটার। সেখানে ভারতের সঙ্গে আমাদের বর্ডার হলো চার হাজার কিলোমিটারেরও বেশি। ভারতের সঙ্গে এত দীর্ঘ বর্ডার নিয়েও যদি সমস্যার সমাধান করতে পারি, তাহলে এত ছোচ বর্ডার, এটা কেন পারব না। আর আমরা তো গত বছর তাদের দুজন ইনসারজেন্ট (বিদ্রোহী) এখানে ধরা পড়েছিল তাদেরকে আমরা হ্যান্ডওভার (হস্তান্তর) করে দিয়েছি, প্রত্যর্পণ করেছি মিয়ানমার সরকারের কাছে।’ পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘শান্তিপূর্ণ সীমান্তে যে আমরা বিশ্বাস করি সেটা তো আমরা প্রমাণ করেছি। কাজেই পারব না কেন? এখন দেখা যাক। বল তাদের কোর্টে।’ এর আগে যুক্তরাষ্ট্র, চীন, ভারত ও মিয়ানমার সহ ঢাকায় নিযুক্ত বিভিন্ন দেশের রাষ্ট্রদূতদেরকে রোহিঙ্গা ইস্যুতে ব্রিফ করেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাহমুদ আলী। এসময় রাষ্ট্রদূতরা রোহিঙ্গা ইস্যুতে বাংলাদেশের অবস্থানের প্রশংসা করেন বলে উল্লেখ করেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

Comments

Comments!

 ‘পররাষ্ট্রনীতি মোটেও নতজানু নয়’AmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

‘পররাষ্ট্রনীতি মোটেও নতজানু নয়’

Monday, October 9, 2017 9:20 pm
9

রোহিঙ্গা ইস্যুতে বাংলাদেশের পররাষ্ট্রনীতি মোটেও নতজানু  নয় বলে উল্লেখ করেছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ এইচ মাহমুদ আলী। তিনি বলেন, ‘সমালোচকদের উসকানিতে বাংলাদেশ রোহিঙ্গা ইস্যুতে যুদ্ধ করবে না।’

আজ সোমবার রাষ্ট্রীয় অতিথি ভবন পদ্মায় ঢাকায় নিযুক্ত বিভিন্ন দেশের কূটনীতিকদের রোহিঙ্গা ইস্যুতে ব্রিফিং শেষে সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

রোহিঙ্গা ইস্যুতে বাংলাদেশ সরকার নতজানু নীতির পরিচয় দিয়েছে বলে যে সমালোচনা করা হয় তার জবাব অনেকটা ক্ষোভের সঙ্গেই দিয়েছেন পরাষ্ট্রমন্ত্রী। তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশ এ ব্যাপারে সঠিক পথেই আছে। কোনো উসকানিতে কাজ হবে না।’

পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘টকশোতে যেসব কথাবার্তা বলে, এগুলো কী ধরনের কথাবার্তা? যা করা সম্ভব তা তো আমরা করছি।’

মাহমুদ আলী বলেন, ‘নতজানু কী? তার মানে কি যুদ্ধ করব? না যুদ্ধ করবেন না। তাহলে কী করব? যুদ্ধ করা তো সম্ভব না। কারণ যুদ্ধ করলে তো সব ধ্বংস হয়ে যাবে।

আপনারা দেখেন না সিরিয়া, ইরাকে, ইয়েমেনে কী হচ্ছে? কোথায় আমাদের সমর্থন করবে, না উল্টাপাল্টা কথা বলে। উল্টাপাল্টা কথা বললে কোনো কাজ হবে না। আমরা সেগুলো করব না। যুদ্ধ করতে বললে আমরা যুদ্ধ করব নাকি? কেন যুদ্ধ করব?’

পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘আমি মিয়ানমারের মন্ত্রীকে বলেছিলাম মিয়ানমারের সঙ্গে আমাদের বর্ডার হলো মাত্র ২৭১ কিলোমিটার। সেখানে ভারতের সঙ্গে আমাদের বর্ডার হলো চার হাজার কিলোমিটারেরও বেশি। ভারতের সঙ্গে এত দীর্ঘ বর্ডার নিয়েও যদি সমস্যার সমাধান করতে পারি, তাহলে এত ছোচ বর্ডার, এটা কেন পারব না। আর আমরা তো গত বছর তাদের দুজন ইনসারজেন্ট (বিদ্রোহী) এখানে ধরা পড়েছিল তাদেরকে আমরা হ্যান্ডওভার (হস্তান্তর) করে দিয়েছি, প্রত্যর্পণ করেছি মিয়ানমার সরকারের কাছে।’

পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘শান্তিপূর্ণ সীমান্তে যে আমরা বিশ্বাস করি সেটা তো আমরা প্রমাণ করেছি। কাজেই পারব না কেন? এখন দেখা যাক। বল তাদের কোর্টে।’

এর আগে যুক্তরাষ্ট্র, চীন, ভারত ও মিয়ানমার সহ ঢাকায় নিযুক্ত বিভিন্ন দেশের রাষ্ট্রদূতদেরকে রোহিঙ্গা ইস্যুতে ব্রিফ করেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাহমুদ আলী। এসময় রাষ্ট্রদূতরা রোহিঙ্গা ইস্যুতে বাংলাদেশের অবস্থানের প্রশংসা করেন বলে উল্লেখ করেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X