সোমবার, ১৯শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং, ৭ই ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, রাত ৩:৫১
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Friday, November 11, 2016 11:36 pm
A- A A+ Print

পরাজয়ের পর একদিনে হিলারির আবেগঘন ২০ টুইট

666

ওয়াশিংটন: মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে পরাজয় নিশ্চিত হওয়ার পর একের পর এক আবেগঘন টুইট করেছেন হিলারি ক্লিনটন। গত ৯ নভেম্বর একদিনে অন্তত ২০টি টুইট করেছেন তিনি। হিলারির করা সেই টুইটগুলো ভাষান্তর করে নিচে তুলে ধরা হল- আগের রাতে ডোনাল্ড ট্রাম্পকে অভিনন্দন জানানোর খবরটি নিশ্চিত করে এদিন প্রথম টুইটটি করেন হিলারি। টুইটে বলা হয়, ‘গত রাতে আমি ডোনাল্ড ট্রাম্পকে অভিনন্দন জানিয়েছি এবং আমাদের দেশের হয়ে তার সঙ্গে কাজ করার প্রস্তাব দিয়েছি।’ এরপর ডোনাল্ড ট্রাম্পের জন্য শুভকামনা জানিয়ে আরেকটি টুইট করেন হিলারি। টুইটে তিনি লিখেছেন, ‘আমি আশা করি তিনি সকল আমেরিকানের জন্য একজন সফল প্রেসিডেন্ট হবেন।’ নির্বাচনের ফলাফলের ব্যাপারে প্রতিক্রিয়া জানিয়ে করা টুইটে হিলারি লিখেছেন, ‘আমরা যা চেয়েছিলাম তেমনটা হয়নি। আমি দুঃখিত যে আমরা যে মূল্যবোধগুলো ও লক্ষ্যগুলো বিনিময় করেছিলাম তার জন্য এ নির্বাচনে আমরা জিততে পারিনি।’ সমর্থকদের উদ্দেশ্যে টুইটে হিলারি লিখেছেন, ‘আপনারা আমেরিকার সর্বোচ্চ ভালোটাকে প্রতিনিধিত্ব করেন। আর আপনাদের প্রার্থী হতে পারাকে আমি আমার জীবনের সবচেয়ে সম্মানজনক বিষয় বলে মনে করি।’ সমর্থকদের প্রতি দেওয়া আরেকটি টুইটে হিলারি লিখেছেন, ‘আমি আপনাদের স্মরণ করিয়ে দিতে চাই যে, আমাদের প্রচারণা কেবল এক ব্যক্তি কিংবা একটি নির্বাচনের বিষয় নয়। এটি হলো যে দেশকে আমরা ভালোবাসি সে দেশের বিষয়।’ পরে হিলারির আরেকটি টুইটে দেশের মানুষের মধ্যকার বিভাজনের কথা তুলে ধরে তিনি লিখেছেন, ‘আমরা দেখেছি, আমাদের জাতি ধারণার চেয়েও বেশি বিভক্ত। কিন্তু আমি এখনো আমেরিকায় আস্থা রাখি এবং সবসময় রাখব।’ এরপর হিলারির টুইটে আবারো উঠে আসে ডোনাল্ড ট্রাম্পের প্রসঙ্গ। টুইটে বলা হয়, ‘ডোনাল্ড ট্রাম্প আমাদের প্রেসিডেন্ট হতে যাচ্ছেন। আমরা খোলা মনে তার প্রতি অনুগত থাকব এবং নেতৃত্ব দেওয়ার সুযোগ দেব।’ সাংবিধানিক গণতন্ত্রে সবার অংশগ্রহণের ওপর গুরুত্বারোপ করে পরবর্তী টুইটে হিলারি বলেন, ‘চার বছর অন্তর নয়, বরং আমাদের সাংবিধানিক গণতন্ত্র সবসময় সবার অংশগ্রহণ দাবি করে।’ এরপর আরেকটি টুইটে হিলারি লিখেছেন, ‘নাগরিক হিসেবে আমাদের দায়িত্ব হলো অপেক্ষাকৃত ভালো, সুদৃঢ় ও স্বচ্ছ আমেরিকা প্রতিষ্ঠা করা যা আমরা চাই। এবং আমি জানি আপনারা তা করবেন।’ রানিং মেট টিম কেইনকে ধন্যবাদ জানিয়ে হিলারি আরেকটি টুইটে লিখেছেন, ‘‌আমাদের এ যাত্রায় অংশীদার হওয়ায় আমি টিম কেইন ও আন্নে হল্টনকে ধন্যবাদ জানাতে চাই।’ বিদায়ী প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা ও ফার্স্ট লেডি মিশেল ওবামাকেও ধন্যবাদ জানান হিলারি। টুইটারে হিলারি লিখেছেন, ‘বারাক ওবামা ও মিশেল ওবামা, আমাদের দেশ আপনাদের কাছে কৃতজ্ঞ। আপনাদের মাধুর্যপূর্ণ এবং দৃঢ় নেতৃত্বের জন্য আমরা ধন্যবাদ জানাই।’ নিজের পরিবারের সদস্যদের প্রতি ধন্যবাদ জানিয়ে হিলারি লিখেছেন, ‘বিল চেলসিয়া, মার্ক শার্লট, আইডান, আমার ভাইয়েরা এবং আমার পুরো পরিবার- তোমাদের সবার জন্য আমার যত ভালোবাসা তা পুরোপুরি প্রকাশ করে বোঝাতে পারি না।’ আরেকটি টুইটে হিলারি লিখেছেন, ‘এ পরাজয় কষ্ট দেয়। কিন্তু দয়া করে এ বিশ্বাস থেকে সরবেন না যে যা কিছু সঠিক তার জন্য লড়াই করাটা জরুরি।’ নারী ভোটারদের ধন্যবাদ জানিয়ে হিলারি লিখেছেন, ‘এ প্রচারণায় এবং আমার ওপর যারা আস্থা রেখেছেন, সেইসব নারীদেরকে বলছি- আপনাদের চ্যাম্পিয়ন হওয়ার চেয়ে আমার কাছে গর্বের আর কিছু নেই। আরেকটি টুইটে হিলারি লিখেছেন, ‘আমরা এখনো সর্ব শীর্ষের এবং সবচেয়ে কঠিন ছাদটি এখনো ছুতে পারিনি। কিন্তু একদিন কেউ না কেউ সে শিখরে পৌঁছাবে।’ আমেরিকান হিসেবে গর্ববোধ করেন উল্লেখ করে হিলারি লিখেছেন, ‘দেশ থেকে যা পেয়েছি তার জন্য আমি কৃতজ্ঞ। একজন আমেরিকান জন্ম নেওয়াকে আমি আশির্বাদ বলে মনে করি এবং প্রতিদিন তা ভাবি।’ পরবর্তী টুইটে হিলারি লিখেছেন, ‘আমরা একত্রিত হলে আরো শক্তিশালী হব এবং সেভাবে একসঙ্গে সামনে এগিয়ে যাব। আর এরজন্য লড়াই করতে আপনারা কখনো সংকোচ করবেন না।’ সবাইকে মনোবল ধরে রাখার আহ্বান জানিয়ে হিলারি তার আরেকটি টুইটে লিখেছেন, ‘আমাদেরকে একে অপরের উপর বিশ্বাস রাখতে হবে। আমাদের মাঝে ক্লান্তি তৈরি হতে দেওয়া যাবে না। আমাদের মনোবল হারানো যাবে না। আরো অনেক মৌসুম আসবে। অনেক কাজ করতে হবে।’ মনোবল ধরে রাখার আহ্বান বহাল রেখে আরেকটি টুইটে হিলারি বলেন, বাইবেলে বলা আছে: ভালো কিছু করার ক্ষেত্রে আমাদেরকে পরিশ্রান্ত হওয়া যাবে না। মনোবল না হারালে সঠিক সময়ে আমরা ফল পাব। নারী শিশু ও কিশোরীদের উদ্দেশ্যে সর্বশেষ টুইটটি করেছেন হিলারি। টুইটে হিলারি লিখেছেন, ‘সব বালিকা যারা দেখছ- তোমরা যে মূল্যবান ও ক্ষমতাবান এবং বিশ্বে তোমাদের সব সুযোগ রয়েছে সে ব্যাপারে কোনো সন্দেহ রেখ না।’

Comments

Comments!

 পরাজয়ের পর একদিনে হিলারির আবেগঘন ২০ টুইটAmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

পরাজয়ের পর একদিনে হিলারির আবেগঘন ২০ টুইট

Friday, November 11, 2016 11:36 pm
666

ওয়াশিংটন: মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে পরাজয় নিশ্চিত হওয়ার পর একের পর এক আবেগঘন টুইট করেছেন হিলারি ক্লিনটন। গত ৯ নভেম্বর একদিনে অন্তত ২০টি টুইট করেছেন তিনি।

হিলারির করা সেই টুইটগুলো ভাষান্তর করে নিচে তুলে ধরা হল-

আগের রাতে ডোনাল্ড ট্রাম্পকে অভিনন্দন জানানোর খবরটি নিশ্চিত করে এদিন প্রথম টুইটটি করেন হিলারি। টুইটে বলা হয়, ‘গত রাতে আমি ডোনাল্ড ট্রাম্পকে অভিনন্দন জানিয়েছি এবং আমাদের দেশের হয়ে তার সঙ্গে কাজ করার প্রস্তাব দিয়েছি।’

এরপর ডোনাল্ড ট্রাম্পের জন্য শুভকামনা জানিয়ে আরেকটি টুইট করেন হিলারি। টুইটে তিনি লিখেছেন, ‘আমি আশা করি তিনি সকল আমেরিকানের জন্য একজন সফল প্রেসিডেন্ট হবেন।’

নির্বাচনের ফলাফলের ব্যাপারে প্রতিক্রিয়া জানিয়ে করা টুইটে হিলারি লিখেছেন, ‘আমরা যা চেয়েছিলাম তেমনটা হয়নি। আমি দুঃখিত যে আমরা যে মূল্যবোধগুলো ও লক্ষ্যগুলো বিনিময় করেছিলাম তার জন্য এ নির্বাচনে আমরা জিততে পারিনি।’

সমর্থকদের উদ্দেশ্যে টুইটে হিলারি লিখেছেন, ‘আপনারা আমেরিকার সর্বোচ্চ ভালোটাকে প্রতিনিধিত্ব করেন। আর আপনাদের প্রার্থী হতে পারাকে আমি আমার জীবনের সবচেয়ে সম্মানজনক বিষয় বলে মনে করি।’

সমর্থকদের প্রতি দেওয়া আরেকটি টুইটে হিলারি লিখেছেন, ‘আমি আপনাদের স্মরণ করিয়ে দিতে চাই যে, আমাদের প্রচারণা কেবল এক ব্যক্তি কিংবা একটি নির্বাচনের বিষয় নয়। এটি হলো যে দেশকে আমরা ভালোবাসি সে দেশের বিষয়।’

পরে হিলারির আরেকটি টুইটে দেশের মানুষের মধ্যকার বিভাজনের কথা তুলে ধরে তিনি লিখেছেন, ‘আমরা দেখেছি, আমাদের জাতি ধারণার চেয়েও বেশি বিভক্ত। কিন্তু আমি এখনো আমেরিকায় আস্থা রাখি এবং সবসময় রাখব।’

এরপর হিলারির টুইটে আবারো উঠে আসে ডোনাল্ড ট্রাম্পের প্রসঙ্গ। টুইটে বলা হয়, ‘ডোনাল্ড ট্রাম্প আমাদের প্রেসিডেন্ট হতে যাচ্ছেন। আমরা খোলা মনে তার প্রতি অনুগত থাকব এবং নেতৃত্ব দেওয়ার সুযোগ দেব।’

সাংবিধানিক গণতন্ত্রে সবার অংশগ্রহণের ওপর গুরুত্বারোপ করে পরবর্তী টুইটে হিলারি বলেন, ‘চার বছর অন্তর নয়, বরং আমাদের সাংবিধানিক গণতন্ত্র সবসময় সবার অংশগ্রহণ দাবি করে।’

এরপর আরেকটি টুইটে হিলারি লিখেছেন, ‘নাগরিক হিসেবে আমাদের দায়িত্ব হলো অপেক্ষাকৃত ভালো, সুদৃঢ় ও স্বচ্ছ আমেরিকা প্রতিষ্ঠা করা যা আমরা চাই। এবং আমি জানি আপনারা তা করবেন।’

রানিং মেট টিম কেইনকে ধন্যবাদ জানিয়ে হিলারি আরেকটি টুইটে লিখেছেন, ‘‌আমাদের এ যাত্রায় অংশীদার হওয়ায় আমি টিম কেইন ও আন্নে হল্টনকে ধন্যবাদ জানাতে চাই।’

বিদায়ী প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা ও ফার্স্ট লেডি মিশেল ওবামাকেও ধন্যবাদ জানান হিলারি। টুইটারে হিলারি লিখেছেন, ‘বারাক ওবামা ও মিশেল ওবামা, আমাদের দেশ আপনাদের কাছে কৃতজ্ঞ। আপনাদের মাধুর্যপূর্ণ এবং দৃঢ় নেতৃত্বের জন্য আমরা ধন্যবাদ জানাই।’

নিজের পরিবারের সদস্যদের প্রতি ধন্যবাদ জানিয়ে হিলারি লিখেছেন, ‘বিল চেলসিয়া, মার্ক শার্লট, আইডান, আমার ভাইয়েরা এবং আমার পুরো পরিবার- তোমাদের সবার জন্য আমার যত ভালোবাসা তা পুরোপুরি প্রকাশ করে বোঝাতে পারি না।’

আরেকটি টুইটে হিলারি লিখেছেন, ‘এ পরাজয় কষ্ট দেয়। কিন্তু দয়া করে এ বিশ্বাস থেকে সরবেন না যে যা কিছু সঠিক তার জন্য লড়াই করাটা জরুরি।’

নারী ভোটারদের ধন্যবাদ জানিয়ে হিলারি লিখেছেন, ‘এ প্রচারণায় এবং আমার ওপর যারা আস্থা রেখেছেন, সেইসব নারীদেরকে বলছি- আপনাদের চ্যাম্পিয়ন হওয়ার চেয়ে আমার কাছে গর্বের আর কিছু নেই।

আরেকটি টুইটে হিলারি লিখেছেন, ‘আমরা এখনো সর্ব শীর্ষের এবং সবচেয়ে কঠিন ছাদটি এখনো ছুতে পারিনি। কিন্তু একদিন কেউ না কেউ সে শিখরে পৌঁছাবে।’

আমেরিকান হিসেবে গর্ববোধ করেন উল্লেখ করে হিলারি লিখেছেন, ‘দেশ থেকে যা পেয়েছি তার জন্য আমি কৃতজ্ঞ। একজন আমেরিকান জন্ম নেওয়াকে আমি আশির্বাদ বলে মনে করি এবং প্রতিদিন তা ভাবি।’

পরবর্তী টুইটে হিলারি লিখেছেন, ‘আমরা একত্রিত হলে আরো শক্তিশালী হব এবং সেভাবে একসঙ্গে সামনে এগিয়ে যাব। আর এরজন্য লড়াই করতে আপনারা কখনো সংকোচ করবেন না।’

সবাইকে মনোবল ধরে রাখার আহ্বান জানিয়ে হিলারি তার আরেকটি টুইটে লিখেছেন, ‘আমাদেরকে একে অপরের উপর বিশ্বাস রাখতে হবে। আমাদের মাঝে ক্লান্তি তৈরি হতে দেওয়া যাবে না। আমাদের মনোবল হারানো যাবে না। আরো অনেক মৌসুম আসবে। অনেক কাজ করতে হবে।’

মনোবল ধরে রাখার আহ্বান বহাল রেখে আরেকটি টুইটে হিলারি বলেন, বাইবেলে বলা আছে: ভালো কিছু করার ক্ষেত্রে আমাদেরকে পরিশ্রান্ত হওয়া যাবে না। মনোবল না হারালে সঠিক সময়ে আমরা ফল পাব।

নারী শিশু ও কিশোরীদের উদ্দেশ্যে সর্বশেষ টুইটটি করেছেন হিলারি। টুইটে হিলারি লিখেছেন, ‘সব বালিকা যারা দেখছ- তোমরা যে মূল্যবান ও ক্ষমতাবান এবং বিশ্বে তোমাদের সব সুযোগ রয়েছে সে ব্যাপারে কোনো সন্দেহ রেখ না।’

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X