বৃহস্পতিবার, ২২শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং, ১০ই ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, বিকাল ৪:১৮
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Sunday, December 25, 2016 6:11 pm
A- A A+ Print

পরিসংখ্যানে বাংলাদেশ-নিউজিল্যান্ড সিরিজ

bd1482660681

সোমবার ভোর ৪টায় নিউজিল্যান্ডেরক্রাইস্টচার্চে ৩ ম্যাচ সিরিজের প্রথম ওয়ানডেতে মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ ও নিউজিল্যান্ড। ম্যাচের আগে দুই দলের পরিসংখ্যানে চোখ বুলিয়ে নেওয়া যাক: ম্যাচ:  দুই দল ২৫টি ওয়ানডে খেলেছে। নিউজিল্যান্ডের ১৭ জয়ের বিপরীতে বাংলাদেশ জিতেছে ৮টিতে।   দুই দলের প্রথম ম্যাচ: ১৯৯০ সালে শারজাহতে দুই দল প্রথম মুখোমুখি হয়। নিউজিল্যান্ড ম্যাচটি জিতেছিল ১৬১ রানে।   দুই দলের শেষ ম্যাচ: ২০১৫ বিশ্বকাপে হ্যামিলটনে দুই দল প্রথম মুখোমুখি হয়। নিউজিল্যান্ড ৩ উইকেটে ম্যাচটি জিতে নেয়।   নিউজিল্যান্ডে বাংলাদেশ: নিউজিল্যান্ডে বাংলাদেশ ৭টি ম্যাচ খেলেছে। এখনও জয়ের খাতা খুলতে পারেনি টাইগাররা।   ধারাবাহিক জয়: এপ্রিল ১৯৯০ থেকে ডিসেম্বর ২০০৭ পর্যন্ত নিউজিল্যান্ড টানা ১১টি ম্যাচ জিতেছিল। বাংলাদেশ অক্টোবর ২০১০ থেকে নভেম্বর ২০১৩ পর্যন্ত টানা ৭টি ম্যাচ জিতেছে।   সর্বোচ্চ রানের ইনিংস: ১৯৯০ সালের ২৮ এপ্রিল শারজাহতে ৪ উইকেটে ৩৩৮ রান করে নিউজিল্যান্ড। বাংলাদেশ ২০১৩ সালের ৩ নভেম্বর ফতুল্লাতে ৬ উইকেটে ৩০৯ রান করে।   সর্বনিম্ন রানের ইনিংস: ২০১৩ সালের ২৯ অক্টোবর ঢাকায় ১৬২ রানে অলআউট হয় নিউজিল্যান্ড। ২০০২ সালের ২৩ সেপ্টেম্বর কলম্বোতে বাংলাদেশ অলআউট হয় ৭৭ রানে।   রানের হিসেবে বড় জয়:  ২০০২ সালের ২৩ সেপ্টেম্বরকলম্বোতে ১৬৭ রানে জয় পায় নিউজিল্যান্ড। ২০১৩ সালে ঢাকায় নিউজিল্যান্ডকে সর্বোচ্চ ৪৩ রানে হারায় বাংলাদেশ।   উইকেটের হিসেবে বড় জয়: ২০০৭ সালের ৩১ ডিসেম্বর কুইন্সটাউনে নিউজিল্যান্ড ১০ উইকেটে জয় পায়। ২০০৮ সালের ৮ অক্টোবর ও ২০১০ সালের ১১ অক্টোবর ৭ উইকেটে নিউজিল্যান্ডকে হারায় বাংলাদেশ।   সর্বোচ্চ ব্যক্তিগত রান ( ইনিংস): মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ (১২৮), কেন উইলিয়ামসন (১০৮)।   সর্বোচ্চ ব্যক্তিগত রান: রস টেলর (৬৩৮), মুশফিকুর রহিম (৩৬০)।   এক সিরিজে সর্বোচ্চ রান: সাকিব আল হাসান (৪ ম্যাচে ২১৩), জেমি হাও (৩ ম্যাচে ১৬৯)।   সর্বোচ্চ ফিফটি: রস টেলর (৬), তামিম ইকবাল ও মোহাম্মদ আশরাফুল (৩)।   bd   সর্বোচ্চ সেঞ্চুরি: নিউজিল্যান্ডের একটি করে সেঞ্চুরি হাঁকিয়েছেন স্টিভেন ফ্লেমিং, রস টেলর, কেন উইলিয়ামসন, রস টেলর ও মার্টিন গাপটিল। বাংলাদেশের হয়ে সেঞ্চুরি পেয়েছেন ইমরুল কায়েস, সাকিব আল হাসান ও মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ।   সর্বোচ্চ রানের জুটি:  মার্টিন ক্রো ও জন রাইট (প্রথম উইকেটে ১৫৮)। মুশফিকুর রহিম ও নাঈম ইসলাম (চতুর্থ উইকেটে ১৫৪)।   সর্বোচ্চ ছক্কা:  রস টেলর (২৪), মুশফিকুর রহিম (৮)।   এক ইনিংসে সর্বোচ্চ ছক্কা: ব্রেন্ডন ম্যাককালাম (৬), শামসুর রহমান (৪)।   সর্বোচ্চ ডাক:  টিম সাউদি (৫)। মুশফিকুর রহিম (৩)।   সর্বোচ্চ উইকেট: কাইল মিলস (৩৩), সাকিব আল হাসান (২৮)।   এক ইনিংসে সর্বোচ্চ উইকেট: রুবেল হোসেন (৬), ড্যানিয়েল ভেট্টরি (৫) ও আফতাব আহমেদ (৫)।   এক সিরিজে সর্বোচ্চ উইকেট:  সাকিব আল হাসান (৪ ম্যাচে ১১ উইকেট)। কাইল মিলস (৩ ম্যাচে ৯ উইকেট)।   সর্বোচ্চ ডিসমিসাল: ব্রেন্ডন ম্যাককালাম ২১ ম্যাচে ৩৬ ডিসমিসাল। মুশফিকুর রহিম ১৮ ম্যাচে ১৩ ডিসমিসাল।   এক ইনিংসে সর্বোচ্চ ডিসমিসাল: ব্রেন্ডন ম্যাককালাম (৫), মুশফিকুর রহিম ও খালেদ মাসুদ (২)।   এক সিরিজে সর্বোচ্চ ডিসমিসাল: ব্রেন্ডন ম্যাককালাম (৮), মুশফিকুর রহিম (৫)।   সর্বোচ্চ ক্যাচ: স্কট স্টাইরিশ (৭), মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ (৬)।   এক ইনিংসে সর্বোচ্চ ক্যাচ: জুনায়েদ সিদ্দীক (৩)।   সর্বাধিক ম্যাচ: ব্রেন্ডন ম্যাককালাম (২১), মুশফিকুর রহিম (১৮)।   অধিনায়ক হিসেবে সর্বাধিক ম্যাচ : ড্যানিয়েল ভেট্টরি (১৬), সাকিব আল হাসান (৭)।  

Comments

Comments!

 পরিসংখ্যানে বাংলাদেশ-নিউজিল্যান্ড সিরিজAmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

পরিসংখ্যানে বাংলাদেশ-নিউজিল্যান্ড সিরিজ

Sunday, December 25, 2016 6:11 pm
bd1482660681

সোমবার ভোর ৪টায় নিউজিল্যান্ডেরক্রাইস্টচার্চে ৩ ম্যাচ সিরিজের প্রথম ওয়ানডেতে মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ ও নিউজিল্যান্ড। ম্যাচের আগে দুই দলের পরিসংখ্যানে চোখ বুলিয়ে নেওয়া যাক:

ম্যাচ:  দুই দল ২৫টি ওয়ানডে খেলেছে। নিউজিল্যান্ডের ১৭ জয়ের বিপরীতে বাংলাদেশ জিতেছে ৮টিতে।

 

দুই দলের প্রথম ম্যাচ: ১৯৯০ সালে শারজাহতে দুই দল প্রথম মুখোমুখি হয়। নিউজিল্যান্ড ম্যাচটি জিতেছিল ১৬১ রানে।

 

দুই দলের শেষ ম্যাচ: ২০১৫ বিশ্বকাপে হ্যামিলটনে দুই দল প্রথম মুখোমুখি হয়। নিউজিল্যান্ড ৩ উইকেটে ম্যাচটি জিতে নেয়।

 

নিউজিল্যান্ডে বাংলাদেশ: নিউজিল্যান্ডে বাংলাদেশ ৭টি ম্যাচ খেলেছে। এখনও জয়ের খাতা খুলতে পারেনি টাইগাররা।

 

ধারাবাহিক জয়: এপ্রিল ১৯৯০ থেকে ডিসেম্বর ২০০৭ পর্যন্ত নিউজিল্যান্ড টানা ১১টি ম্যাচ জিতেছিল। বাংলাদেশ অক্টোবর ২০১০ থেকে নভেম্বর ২০১৩ পর্যন্ত টানা ৭টি ম্যাচ জিতেছে।

 

সর্বোচ্চ রানের ইনিংস: ১৯৯০ সালের ২৮ এপ্রিল শারজাহতে ৪ উইকেটে ৩৩৮ রান করে নিউজিল্যান্ড। বাংলাদেশ ২০১৩ সালের ৩ নভেম্বর ফতুল্লাতে ৬ উইকেটে ৩০৯ রান করে।

 

সর্বনিম্ন রানের ইনিংস: ২০১৩ সালের ২৯ অক্টোবর ঢাকায় ১৬২ রানে অলআউট হয় নিউজিল্যান্ড। ২০০২ সালের ২৩ সেপ্টেম্বর কলম্বোতে বাংলাদেশ অলআউট হয় ৭৭ রানে।

 

রানের হিসেবে বড় জয়:  ২০০২ সালের ২৩ সেপ্টেম্বরকলম্বোতে ১৬৭ রানে জয় পায় নিউজিল্যান্ড। ২০১৩ সালে ঢাকায় নিউজিল্যান্ডকে সর্বোচ্চ ৪৩ রানে হারায় বাংলাদেশ।

 

উইকেটের হিসেবে বড় জয়: ২০০৭ সালের ৩১ ডিসেম্বর কুইন্সটাউনে নিউজিল্যান্ড ১০ উইকেটে জয় পায়। ২০০৮ সালের ৮ অক্টোবর ও ২০১০ সালের ১১ অক্টোবর ৭ উইকেটে নিউজিল্যান্ডকে হারায় বাংলাদেশ।

 

সর্বোচ্চ ব্যক্তিগত রান ( ইনিংস): মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ (১২৮), কেন উইলিয়ামসন (১০৮)।

 

সর্বোচ্চ ব্যক্তিগত রান: রস টেলর (৬৩৮), মুশফিকুর রহিম (৩৬০)।

 

এক সিরিজে সর্বোচ্চ রান: সাকিব আল হাসান (৪ ম্যাচে ২১৩), জেমি হাও (৩ ম্যাচে ১৬৯)।

 

সর্বোচ্চ ফিফটি: রস টেলর (৬), তামিম ইকবাল ও মোহাম্মদ আশরাফুল (৩)।

 

bd

 

সর্বোচ্চ সেঞ্চুরি: নিউজিল্যান্ডের একটি করে সেঞ্চুরি হাঁকিয়েছেন স্টিভেন ফ্লেমিং, রস টেলর, কেন উইলিয়ামসন, রস টেলর ও মার্টিন গাপটিল। বাংলাদেশের হয়ে সেঞ্চুরি পেয়েছেন ইমরুল কায়েস, সাকিব আল হাসান ও মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ।

 

সর্বোচ্চ রানের জুটি:  মার্টিন ক্রো ও জন রাইট (প্রথম উইকেটে ১৫৮)। মুশফিকুর রহিম ও নাঈম ইসলাম (চতুর্থ উইকেটে ১৫৪)।

 

সর্বোচ্চ ছক্কা:  রস টেলর (২৪), মুশফিকুর রহিম (৮)।

 

এক ইনিংসে সর্বোচ্চ ছক্কা: ব্রেন্ডন ম্যাককালাম (৬), শামসুর রহমান (৪)।

 

সর্বোচ্চ ডাক:  টিম সাউদি (৫)। মুশফিকুর রহিম (৩)।

 

সর্বোচ্চ উইকেট: কাইল মিলস (৩৩), সাকিব আল হাসান (২৮)।

 

এক ইনিংসে সর্বোচ্চ উইকেট: রুবেল হোসেন (৬), ড্যানিয়েল ভেট্টরি (৫) ও আফতাব আহমেদ (৫)।

 

এক সিরিজে সর্বোচ্চ উইকেট:  সাকিব আল হাসান (৪ ম্যাচে ১১ উইকেট)। কাইল মিলস (৩ ম্যাচে ৯ উইকেট)।

 

সর্বোচ্চ ডিসমিসাল: ব্রেন্ডন ম্যাককালাম ২১ ম্যাচে ৩৬ ডিসমিসাল। মুশফিকুর রহিম ১৮ ম্যাচে ১৩ ডিসমিসাল।

 

এক ইনিংসে সর্বোচ্চ ডিসমিসাল: ব্রেন্ডন ম্যাককালাম (৫), মুশফিকুর রহিম ও খালেদ মাসুদ (২)।

 

এক সিরিজে সর্বোচ্চ ডিসমিসাল: ব্রেন্ডন ম্যাককালাম (৮), মুশফিকুর রহিম (৫)।

 

সর্বোচ্চ ক্যাচ: স্কট স্টাইরিশ (৭), মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ (৬)।

 

এক ইনিংসে সর্বোচ্চ ক্যাচ: জুনায়েদ সিদ্দীক (৩)।

 

সর্বাধিক ম্যাচ: ব্রেন্ডন ম্যাককালাম (২১), মুশফিকুর রহিম (১৮)।

 

অধিনায়ক হিসেবে সর্বাধিক ম্যাচ : ড্যানিয়েল ভেট্টরি (১৬), সাকিব আল হাসান (৭)।

 

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X