শুক্রবার, ২৩শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং, ১১ই ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, রাত ৮:৪৭
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Monday, May 1, 2017 11:53 pm | আপডেটঃ May 01, 2017 11:54 PM
A- A A+ Print

‘পাকিস্তানের আদালতে যে আইনের শাসন চলছে, তা আজো আমরা পাইনি’: প্রধান বিচারপতি

173771_1

প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহা বলেছেন পৃথিবীর উন্নত দেশগুলোতে এমনকি ভারত, পাকিস্তানের মতো দেশে নিম্ন আদালতের বিচারকদের পদোন্নতি ও বদলি সবই করে থাকে সুপ্রিম কোর্ট। শুধু বাংলাদেশে এটি দেখা যায় না। তিনি বলেন, পাকিস্তানে ১৯৭৩ সালের পর থেকে নিম্ন আদালতে যে আইনের শাসন চলছে, তা আজকে আমরা পাইনি। বাংলাদেশে এখনও হয়নি। ভারত তো অনেক উপরে, শ্রীলংকা অনেক উপরে, নেপালতো আরো অনেক উপরে। রবিবার দুপুরে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের ‘ভূমি আইন ও ব্যবস্থা বিভাগের উদ্বোধন ও নবীনবরণ-২০১৭’ অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন। সুরেন্দ্র কুমার সিনহা বলেন, আমরা আইনের শাসন প্রতিষ্ঠা করতে পারিনি। এক্ষেত্রে পিছিয়ে আছি বলেই মুখ খুলতে বাধ্য হচ্ছি। আমাদের সংবিধানে জুডিশিয়াল রিভিউর ক্ষমতা একমাত্র সুপ্রিমকোর্টকে দেয়া হয়েছে। সংবিধান বলছে, কোনো আইন অন্য প্রচলিত আইনের পরিপন্থী হলে তা বেআইনি হয়ে যায়। তিনি বলেন, আইন সংশ্লিষ্ট বিষয়গুলোর মধ্যে ভূমি আইন হচ্ছে আইনের মূল স্তম্ভ। কিন্তু ভূমি আইনের জটিল বিষয় সম্পর্কে অনেক আইনজীবীরই জানা নেই। এ দেশের বেশিরভাগ ভূমি আইন ব্রিটিশ শাসনামলে করা, যেগুলোর বেশ কয়েকটি ক্রটিপূর্ণ। তাই ভূমি আইন সংস্কার করা জরুরি হয়ে পড়েছে। কারণ প্রকৃত আইনের শাসন থেকে বঞ্চিত হচ্ছে শ্রমিক ও কৃষকরা। তাই মাটি ও মানুষের পক্ষে আইন করতে হলে ভূমি আইন জরুরি। প্রসঙ্গত, সম্প্রতি কোনও দেশের প্রধান বিচারপতি এত কথা বলেন না মন্তব্য করেছিলেন আইনমন্ত্রী আনিসুল হক। তাকে ইঙ্গিত করেই জবিতে ‘ভূমি আইন ও ব্যবস্থা বিভাগের উদ্বোধন ও নবীনবরণ’ অনুষ্ঠানে প্রধান বিচারপতি কথাগুলো বলেছেন বলে মনে করা হচ্ছে।
 

Comments

Comments!

 ‘পাকিস্তানের আদালতে যে আইনের শাসন চলছে, তা আজো আমরা পাইনি’: প্রধান বিচারপতিAmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

‘পাকিস্তানের আদালতে যে আইনের শাসন চলছে, তা আজো আমরা পাইনি’: প্রধান বিচারপতি

Monday, May 1, 2017 11:53 pm | আপডেটঃ May 01, 2017 11:54 PM
173771_1

প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহা বলেছেন পৃথিবীর উন্নত দেশগুলোতে এমনকি ভারত, পাকিস্তানের মতো দেশে নিম্ন আদালতের বিচারকদের পদোন্নতি ও বদলি সবই করে থাকে সুপ্রিম কোর্ট। শুধু বাংলাদেশে এটি দেখা যায় না।

তিনি বলেন, পাকিস্তানে ১৯৭৩ সালের পর থেকে নিম্ন আদালতে যে আইনের শাসন চলছে, তা আজকে আমরা পাইনি। বাংলাদেশে এখনও হয়নি। ভারত তো অনেক উপরে, শ্রীলংকা অনেক উপরে, নেপালতো আরো অনেক উপরে।

রবিবার দুপুরে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের ‘ভূমি আইন ও ব্যবস্থা বিভাগের উদ্বোধন ও নবীনবরণ-২০১৭’ অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।

সুরেন্দ্র কুমার সিনহা বলেন, আমরা আইনের শাসন প্রতিষ্ঠা করতে পারিনি। এক্ষেত্রে পিছিয়ে আছি বলেই মুখ খুলতে বাধ্য হচ্ছি। আমাদের সংবিধানে জুডিশিয়াল রিভিউর ক্ষমতা একমাত্র সুপ্রিমকোর্টকে দেয়া হয়েছে। সংবিধান বলছে, কোনো আইন অন্য প্রচলিত আইনের পরিপন্থী হলে তা বেআইনি হয়ে যায়।

তিনি বলেন, আইন সংশ্লিষ্ট বিষয়গুলোর মধ্যে ভূমি আইন হচ্ছে আইনের মূল স্তম্ভ। কিন্তু ভূমি আইনের জটিল বিষয় সম্পর্কে অনেক আইনজীবীরই জানা নেই। এ দেশের বেশিরভাগ ভূমি আইন ব্রিটিশ শাসনামলে করা, যেগুলোর বেশ কয়েকটি ক্রটিপূর্ণ। তাই ভূমি আইন সংস্কার করা জরুরি হয়ে পড়েছে। কারণ প্রকৃত আইনের শাসন থেকে বঞ্চিত হচ্ছে শ্রমিক ও কৃষকরা। তাই মাটি ও মানুষের পক্ষে আইন করতে হলে ভূমি আইন জরুরি।

প্রসঙ্গত, সম্প্রতি কোনও দেশের প্রধান বিচারপতি এত কথা বলেন না মন্তব্য করেছিলেন আইনমন্ত্রী আনিসুল হক। তাকে ইঙ্গিত করেই জবিতে ‘ভূমি আইন ও ব্যবস্থা বিভাগের উদ্বোধন ও নবীনবরণ’ অনুষ্ঠানে প্রধান বিচারপতি কথাগুলো বলেছেন বলে মনে করা হচ্ছে।

 

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X