মঙ্গলবার, ২০শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং, ৮ই ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, সন্ধ্যা ৭:৪১
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Friday, December 23, 2016 12:33 am
A- A A+ Print

পানি বণ্টন নিয়ে ভারত-পাকিস্তান সংঘাতের আশঙ্কা

222222222222

একদিকে তিস্তা নদীর পানি বণ্টন নিয়ে যখন বাংলাদেশের সাথে বিবাদ চলছে, তখন পশ্চিম সীমান্তে পাকিস্তানের সাথেও ভারতের একটি পানি সমস্যা শুরু হওয়ার ইঙ্গিত পাওয়া যাচ্ছে। সিন্ধু অববাহিকা থেকে সর্বাধিক পরিমাণ পানি সরিয়ে নিতে চাইছে ভারত। ঊর্ধ্বতন সরকারি কর্মকর্তারা এ খবর নিশ্চিত করেছেন। তারা বলছেন সিন্ধু, চেনাব এবং ঝিলাম নদীতে আগামী কয়েক বছরের মধ্যে ভারত বড় বড় জলাশয় নির্মাণ করবে এবং খাল খনন করবে। এই তিনটি নদী ভারত-প্রশাসিত কাশ্মীরের ভেতর দিয়ে প্রবাহিত হলেও এক আন্তর্জাতিক চুক্তি অনুযায়ী এর বেশিরভাগ পানির হিস্যা পায় পাকিস্তান। এখন ভারতের এই পরিকল্পনায় পাকিস্তান অত্যন্ত নাখোশ হবে বলে বিশেষজ্ঞরা মনে করছেন। সিন্ধু অববাহিকায় ভারতের দুটি বিশাল পানি বিদ্যুৎ প্রকল্পের বিরুদ্ধে ইসলামাবাদ কর্তৃপক্ষ ইতোমধ্যেই প্রতিবাদ জানিয়েছে। ভারত ও পাকিস্তান ১৯৬০ সালে সিন্ধু পানি বণ্টন চুক্তিতে সই করে। ভারতীয় কর্মকর্তারা বলছেন, তারা এর আগে সিন্ধু অববাহিকায় পানি ব্যবহার নিয়ে তেমন একটা চিন্তাভাবনা করেনি এবং তাদের এই পরিকল্পনায় সিন্ধু চুক্তির বরখেলাপ হবে না। গত সেপ্টেম্বর মাসে ভারত-প্রশাসিত কাশ্মীরে সন্ত্রাসী হামলার পর থেকেই ভারত সিন্ধু চুক্তির পুনর্মূল্যায়ণ শুরু করে। বিশেষজ্ঞরা অবশ্য বলছেন, পাকিস্তানের ওপর চাপ প্রয়োগের জন্যই ভারত পানি বণ্টন ইস্যুটিকে ব্যবহার করতে চাইছে। সূত্র: বিবিসি
 

Comments

Comments!

 পানি বণ্টন নিয়ে ভারত-পাকিস্তান সংঘাতের আশঙ্কাAmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

পানি বণ্টন নিয়ে ভারত-পাকিস্তান সংঘাতের আশঙ্কা

Friday, December 23, 2016 12:33 am
222222222222

একদিকে তিস্তা নদীর পানি বণ্টন নিয়ে যখন বাংলাদেশের সাথে বিবাদ চলছে, তখন পশ্চিম সীমান্তে পাকিস্তানের সাথেও ভারতের একটি পানি সমস্যা শুরু হওয়ার ইঙ্গিত পাওয়া যাচ্ছে। সিন্ধু অববাহিকা থেকে সর্বাধিক পরিমাণ পানি সরিয়ে নিতে চাইছে ভারত।

ঊর্ধ্বতন সরকারি কর্মকর্তারা এ খবর নিশ্চিত করেছেন।

তারা বলছেন সিন্ধু, চেনাব এবং ঝিলাম নদীতে আগামী কয়েক বছরের মধ্যে ভারত বড় বড় জলাশয় নির্মাণ করবে এবং খাল খনন করবে।

এই তিনটি নদী ভারত-প্রশাসিত কাশ্মীরের ভেতর দিয়ে প্রবাহিত হলেও এক আন্তর্জাতিক চুক্তি অনুযায়ী এর বেশিরভাগ পানির হিস্যা পায় পাকিস্তান।

এখন ভারতের এই পরিকল্পনায় পাকিস্তান অত্যন্ত নাখোশ হবে বলে বিশেষজ্ঞরা মনে করছেন।

সিন্ধু অববাহিকায় ভারতের দুটি বিশাল পানি বিদ্যুৎ প্রকল্পের বিরুদ্ধে ইসলামাবাদ কর্তৃপক্ষ ইতোমধ্যেই প্রতিবাদ জানিয়েছে।

ভারত ও পাকিস্তান ১৯৬০ সালে সিন্ধু পানি বণ্টন চুক্তিতে সই করে।

ভারতীয় কর্মকর্তারা বলছেন, তারা এর আগে সিন্ধু অববাহিকায় পানি ব্যবহার নিয়ে তেমন একটা চিন্তাভাবনা করেনি এবং তাদের এই পরিকল্পনায় সিন্ধু চুক্তির বরখেলাপ হবে না।

গত সেপ্টেম্বর মাসে ভারত-প্রশাসিত কাশ্মীরে সন্ত্রাসী হামলার পর থেকেই ভারত সিন্ধু চুক্তির পুনর্মূল্যায়ণ শুরু করে।

বিশেষজ্ঞরা অবশ্য বলছেন, পাকিস্তানের ওপর চাপ প্রয়োগের জন্যই ভারত পানি বণ্টন ইস্যুটিকে ব্যবহার করতে চাইছে।

সূত্র: বিবিসি

 

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X