বৃহস্পতিবার, ২২শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং, ১০ই ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, রাত ৩:২৫
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Saturday, December 3, 2016 9:36 am | আপডেটঃ December 03, 2016 10:37 AM
A- A A+ Print

প্রথা ভেঙে তাইওয়ানের প্রেসিডেন্টের সঙ্গে ট্রাম্পের আলাপ

trump_sai_32713_1480737426

১৯৭৯ সালে আনুষ্ঠানিক সম্পর্ক ছিন্ন করার পর যুক্তরাষ্ট্রের কোনো প্রেসিডেন্ট কিংবা প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে জয়ী ব্যক্তি তাইওয়ানের রাষ্ট্রপ্রধানের সঙ্গে কথা বলেননি। সেই প্রথা ভেঙেছেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে জয়ী ডোনাল্ড ট্রাম্প। সরাসরি কথা বলেছেন তাইওয়ানের প্রেসিডেন্ট সাই ইং-ওয়েনের সঙ্গে। স্থানীয় সময় শুক্রবার ফোনে কথা বলেন দুই প্রেসিডেন্ট। ট্রাম্পের অন্তর্বর্তীকালীন দল জানিয়েছে, ফোনালাপে অর্থনৈতিক, রাজনৈতিক ও নিরাপত্তা সম্পর্ক জোরদারের বিষয়ে নজর দেন দুই প্রেসিডেন্ট। তাইওয়ানের প্রেসিডেন্টের সঙ্গে ট্রাম্পের এই আলাপন চীনকে ক্ষুব্ধ করতে পারে। কারণ, চীন তাইওয়ানকে বিচ্ছিন্নতাকামী প্রদেশ মনে করে। ফোনালাপের বিষয়ে এক টুইটে ট্রাম্প বলেন, প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে জয়ী হওয়ায় অভিনন্দন জানাতে তাঁকে কল করেছিলেন সাই। অন্তর্বর্তীকালীন দল আরো জানায়, চলতি বছরের জানুয়ারির নির্বাচনে জয়ী হওয়ায় সাইকে অভিনন্দন জানিয়েছেন ট্রাম্প। যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্টের দপ্তর হোয়াইট হাউসের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, ট্রাম্পের কথোপকথনের পরও তাইওয়ানের বিষয়ে যুক্তরাষ্ট্রের নীতিগত কোনো পরিবর্তন হবে না। চীনের ‘এক দেশ, এক নীতি’র প্রতি সমর্থন জানিয়ে ১৯৭৯ সালে তাইওয়ানের সঙ্গে আনুষ্ঠানিক কূটনৈতিক সম্পর্ক ছিন্ন করে যুক্তরাষ্ট্র।  তবে দেশটির সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের অনানুষ্ঠানিক বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক রয়েছে।

Comments

Comments!

 প্রথা ভেঙে তাইওয়ানের প্রেসিডেন্টের সঙ্গে ট্রাম্পের আলাপAmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

প্রথা ভেঙে তাইওয়ানের প্রেসিডেন্টের সঙ্গে ট্রাম্পের আলাপ

Saturday, December 3, 2016 9:36 am | আপডেটঃ December 03, 2016 10:37 AM
trump_sai_32713_1480737426

১৯৭৯ সালে আনুষ্ঠানিক সম্পর্ক ছিন্ন করার পর যুক্তরাষ্ট্রের কোনো প্রেসিডেন্ট কিংবা প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে জয়ী ব্যক্তি তাইওয়ানের রাষ্ট্রপ্রধানের সঙ্গে কথা বলেননি। সেই প্রথা ভেঙেছেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে জয়ী ডোনাল্ড ট্রাম্প। সরাসরি কথা বলেছেন তাইওয়ানের প্রেসিডেন্ট সাই ইং-ওয়েনের সঙ্গে।

স্থানীয় সময় শুক্রবার ফোনে কথা বলেন দুই প্রেসিডেন্ট।

ট্রাম্পের অন্তর্বর্তীকালীন দল জানিয়েছে, ফোনালাপে অর্থনৈতিক, রাজনৈতিক ও নিরাপত্তা সম্পর্ক জোরদারের বিষয়ে নজর দেন দুই প্রেসিডেন্ট।

তাইওয়ানের প্রেসিডেন্টের সঙ্গে ট্রাম্পের এই আলাপন চীনকে ক্ষুব্ধ করতে পারে। কারণ, চীন তাইওয়ানকে বিচ্ছিন্নতাকামী প্রদেশ মনে করে।

ফোনালাপের বিষয়ে এক টুইটে ট্রাম্প বলেন, প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে জয়ী হওয়ায় অভিনন্দন জানাতে তাঁকে কল করেছিলেন সাই। অন্তর্বর্তীকালীন দল আরো জানায়, চলতি বছরের জানুয়ারির নির্বাচনে জয়ী হওয়ায় সাইকে অভিনন্দন জানিয়েছেন ট্রাম্প।

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্টের দপ্তর হোয়াইট হাউসের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, ট্রাম্পের কথোপকথনের পরও তাইওয়ানের বিষয়ে যুক্তরাষ্ট্রের নীতিগত কোনো পরিবর্তন হবে না।

চীনের ‘এক দেশ, এক নীতি’র প্রতি সমর্থন জানিয়ে ১৯৭৯ সালে তাইওয়ানের সঙ্গে আনুষ্ঠানিক কূটনৈতিক সম্পর্ক ছিন্ন করে যুক্তরাষ্ট্র।  তবে দেশটির সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের অনানুষ্ঠানিক বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক রয়েছে।

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X