রবিবার, ১৮ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং, ৬ই ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, সকাল ৯:০১
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Wednesday, January 18, 2017 7:48 pm
A- A A+ Print

প্রধানমন্ত্রীকে বহনকারী বিমানে ত্রুটি : বিমানের দুই কর্মকর্তা ফের রিমান্ডে

21

প্রধানমন্ত্রীকে বহনকারী বিমানে যান্ত্রিক ত্রুটির মামলায় গ্রেপ্তার বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনসের আরও দুই কর্মকর্তাকে আবারও পাঁচ দিন করে রিমান্ডে নেওয়ার আদেশ দিয়েছেন আদালত। বুধবার ঢাকার মহানগর হাকিম নুর নাহার ইয়াসমিন এ আদেশ দেন। ওই দুই কর্মকর্তা হলেন বিমানের প্রকৌশলী নাজমুল হক ও টেকনিশিয়ান শাহ আলম। মামলার তদন্ত কর্মকর্তা পুলিশের কাউন্টার টেররিজম ইউনিটের পরিদর্শক মাহবুব আলম আজ আসামিদের আদালতে হাজির করে ফের ১০ দিন রিমান্ডে নেওয়ার আবেদন করেন। শুনানি শেষে আদালত পাঁচ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন। এর আগে ১০ জানুয়ারি ওই দুই কর্মকর্তাকে সাত দিন করে রিমান্ডে নেওয়ার অনুমতি দেন আদালত। এ নিয়ে এই মামলায় বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনসের ১১ জন গ্রেপ্তার হলেন। ৮ জানুয়ারি এই মামলায় গ্রেপ্তার হওয়া বাংলাদেশ এয়ারলাইনসের সাত কর্মকর্তাকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন আদালত। গত বছরের ৩০ ডিসেম্বর এই সাতজনের আট দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন আদালত। কারাগারে পাঠানো সাত কর্মকর্তা হলেন বিমানের প্রধান প্রকৌশলী (প্রোডাকশন) দেবেশ চৌধুরী, প্রধান প্রকৌশলী (কোয়ালিটি অ্যাসুরেন্স) এস এ সিদ্দিক, প্রিন্সিপাল ইঞ্জিনিয়ার (মেইনটেন্যান্স অ্যান্ড সিস্টেম কন্ট্রোল) বিল্লাল হোসেন, সামিউল হক, লুৎফুর রহমান, মিলন চন্দ্র বিশ্বাস ও জাকির হোসাইন। এ ছাড়া মামলার অপর দুই আসামি বাংলাদেশ বিমানের প্রকৌশলী মো. রোকনুজ্জামান ও টেকনিশিয়ান সিদ্দিকুর রহমান কারাগারে রয়েছেন। আদালত সূত্র বলেছে, গত বছরের ২৭ নভেম্বর হাঙ্গেরি যাওয়ার পথে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে বহনকারী বিমানের ইঞ্জিনে ত্রুটি দেখা দেয়। এ কারণে বিমানটি তুর্কমেনিস্তানে জরুরি অবতরণ করে। এ ঘটনায় গঠিত তদন্ত কমিটির প্রতিবেদনে বলা হয়, এটা ‘মানবসৃষ্ট’। তদন্ত কমিটির প্রতিবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে দুই দফায় বিমানের প্রকৌশল বিভাগের নয়জনকে চাকরি থেকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়। তদন্ত কমিটির সুপারিশ অনুযায়ী, এ ঘটনায় ফৌজদারি মামলা করার ব্যাপারে সম্মতি দেন প্রধানমন্ত্রী। পরে ২০ ডিসেম্বর রাতে ঢাকা বিমানবন্দর থানায় বাংলাদেশ বিমানের প্রকৌশল বিভাগের নয়জন কর্মকর্তার বিরুদ্ধে মামলা করা হয়। এতে আসামিদের বিরুদ্ধে অপরাধমূলক ষড়যন্ত্র, অবহেলা ও ‘অন্তর্ঘাতমূলক কার্যক্রম’-এর অভিযোগ আনা হয়েছে।

Comments

Comments!

 প্রধানমন্ত্রীকে বহনকারী বিমানে ত্রুটি : বিমানের দুই কর্মকর্তা ফের রিমান্ডেAmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

প্রধানমন্ত্রীকে বহনকারী বিমানে ত্রুটি : বিমানের দুই কর্মকর্তা ফের রিমান্ডে

Wednesday, January 18, 2017 7:48 pm
21

প্রধানমন্ত্রীকে বহনকারী বিমানে যান্ত্রিক ত্রুটির মামলায় গ্রেপ্তার বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনসের আরও দুই কর্মকর্তাকে আবারও পাঁচ দিন করে রিমান্ডে নেওয়ার আদেশ দিয়েছেন আদালত।

বুধবার ঢাকার মহানগর হাকিম নুর নাহার ইয়াসমিন এ আদেশ দেন। ওই দুই কর্মকর্তা হলেন বিমানের প্রকৌশলী নাজমুল হক ও টেকনিশিয়ান শাহ আলম।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা পুলিশের কাউন্টার টেররিজম ইউনিটের পরিদর্শক মাহবুব আলম আজ আসামিদের আদালতে হাজির করে ফের ১০ দিন রিমান্ডে নেওয়ার আবেদন করেন। শুনানি শেষে আদালত পাঁচ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন। এর আগে ১০ জানুয়ারি ওই দুই কর্মকর্তাকে সাত দিন করে রিমান্ডে নেওয়ার অনুমতি দেন আদালত। এ নিয়ে এই মামলায় বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনসের ১১ জন গ্রেপ্তার হলেন।

৮ জানুয়ারি এই মামলায় গ্রেপ্তার হওয়া বাংলাদেশ এয়ারলাইনসের সাত কর্মকর্তাকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন আদালত। গত বছরের ৩০ ডিসেম্বর এই সাতজনের আট দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন আদালত।

কারাগারে পাঠানো সাত কর্মকর্তা হলেন বিমানের প্রধান প্রকৌশলী (প্রোডাকশন) দেবেশ চৌধুরী, প্রধান প্রকৌশলী (কোয়ালিটি অ্যাসুরেন্স) এস এ সিদ্দিক, প্রিন্সিপাল ইঞ্জিনিয়ার (মেইনটেন্যান্স অ্যান্ড সিস্টেম কন্ট্রোল) বিল্লাল হোসেন, সামিউল হক, লুৎফুর রহমান, মিলন চন্দ্র বিশ্বাস ও জাকির হোসাইন। এ ছাড়া মামলার অপর দুই আসামি বাংলাদেশ বিমানের প্রকৌশলী মো. রোকনুজ্জামান ও টেকনিশিয়ান সিদ্দিকুর রহমান কারাগারে রয়েছেন।

আদালত সূত্র বলেছে, গত বছরের ২৭ নভেম্বর হাঙ্গেরি যাওয়ার পথে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে বহনকারী বিমানের ইঞ্জিনে ত্রুটি দেখা দেয়। এ কারণে বিমানটি তুর্কমেনিস্তানে জরুরি অবতরণ করে। এ ঘটনায় গঠিত তদন্ত কমিটির প্রতিবেদনে বলা হয়, এটা ‘মানবসৃষ্ট’। তদন্ত কমিটির প্রতিবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে দুই দফায় বিমানের প্রকৌশল বিভাগের নয়জনকে চাকরি থেকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়। তদন্ত কমিটির সুপারিশ অনুযায়ী, এ ঘটনায় ফৌজদারি মামলা করার ব্যাপারে সম্মতি দেন প্রধানমন্ত্রী। পরে ২০ ডিসেম্বর রাতে ঢাকা বিমানবন্দর থানায় বাংলাদেশ বিমানের প্রকৌশল বিভাগের নয়জন কর্মকর্তার বিরুদ্ধে মামলা করা হয়। এতে আসামিদের বিরুদ্ধে অপরাধমূলক ষড়যন্ত্র, অবহেলা ও ‘অন্তর্ঘাতমূলক কার্যক্রম’-এর অভিযোগ আনা হয়েছে।

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X