সোমবার, ১৯শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং, ৭ই ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, সকাল ৬:০৯
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Sunday, October 8, 2017 6:47 pm
A- A A+ Print

প্রধান বিচারপতিকে দেশত্যাগে চাপ দেয়া হচ্ছে: রিজভী

1507441553

প্রধান বিচারপতিকে দেশ ত্যাগের জন্য চাপ দেয়া হচ্ছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী আহমেদ। রোববার বিকেল ৪টায় নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এই মন্তব্য করেন। রিজভী বলেন, প্রধান বিচারপতির ছুটির দরখাস্তে স্বাক্ষর জালিয়াতি করেছে সরকারের এজেন্সিরা। নজীরবিহীন ঘটনা হচ্ছে তাঁর দরখাস্তের ৯টি শব্দের বানানে ভুল। সন্ত্রাসী কায়দায় প্রধান বিচারপতিকে গৃহবন্দী করে রাখার পরে এখন নজরবন্দী করে রাখা হয়েছে। বর্তমান শেখ হাসিনা সরকার কতখানি বেপরোয়া ও নীতিজ্ঞানহীন স্বৈরাচার হতে পারে তার পরিমাপক যন্ত্র এখনও আবিস্কার হয়নি। তিনি বলেন, সরকারের মন্ত্রী, উপদেষ্টাসহ বিভিন্ন এজেন্সির লোকেরা প্রতিনিয়ত প্রধান বিচারপতির সঙ্গে দেখা করতে পারলেও সুপ্রিম কোর্টের নির্বাচিত প্রতিনিধিরা বারবার চেষ্টা করেও এখন পর্যন্ত দেখা করতে পারেননি। বিএনপির এই নেতা বলেন, প্রধান বিচারপতিকে সার্বক্ষণিক চাপ দেয়া হচ্ছে দেশ ত্যাগের জন্য। প্রধান বিচারপতির ওপর আক্রোশের নির্দেশদাতা স্বয়ং সরকার প্রধান। তিনি সম্পূর্ণ সুস্থ থাকলেও প্রচ- চাপ প্রয়োগের মাধ্যমে অসুস্থতার কথা বলা হচ্ছে। চিকিৎসার নামে ডাক্তার পাঠানো হচ্ছে। যা সরকারের নিলর্জ্জ নাটক। তিনি বলেন, বিচার বিভাগের উপর এই ঘৃন্য আক্রমণে বিরোধী দল এবং বিরোধীমতের মানুষদের সুবিচার পাওয়ার সম্ভাবনা নস্যাৎ হয়ে গেল। বিরোধী দলের নেতাকর্মী এবং ভিন্ন মত ও বিশ্বাসের মানুষেরা এখন সরকারের প্রতিহিংসার শিকার হতে থাকবে। প্রতিকার পাওয়ার আর কোন জায়গা থাকলো না। বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব বলেন, বিচার বিভাগের উপর সরকারের পরিকল্পিত আক্রমণ করছে। এরা ক্ষমতার চাহিদা মেটাতে সর্বোচ্চ আদালতের ওপর সর্বগ্রাসী আক্রমণ চালিয়েছে। মানুষের নিরাপদে বেঁচে থাকার তাগিদে এই মুহূর্তে দল মতের উর্ধ্বে উঠে বিভিন্ন শ্রেণী-পেশার মানুষকে ভয়াবহ দুঃশাসনের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াতে হবে। রিজভী আরও বলেন, শেখ হাসিনা রাশিয়া-চীনের মতো বন্ধু রাষ্ট্রগুলোকে পাশে নিতে পারেইনি বরং নিরপেক্ষও রাখতে পারেনি। এই রাষ্ট্রগুলো মিয়ানমার সরকারের নীতিকেই সমর্থন করেছে। এই সরকারের সবচেয়ে বড় বন্ধু ভারতও কাঁচকলা দেখিয়ে মিয়ানমার সরকারের নীতির প্রতি সমর্থন দিয়েছে। সুচি’র দূত হিসেবে বাংলাদেশে আসা মন্ত্রীকে রোহিঙ্গাদের স্বদেশে ফেরত পাঠানোর বিষয়ে রাজী করাতে সক্ষম হয়নি বাংলাদেশ সরকার। আন্তর্জাতিক সমালোচনাকে কিছুটা সামাল দেয়ার জন্য মিয়ানমারের দূত বাংলাদেশে এসেছিলেন, কিন্তু বাংলাদেশ সরকার তাদের কৌশল বুঝতে ব্যর্থ হয়েছে বলেও মন্তব্য করেন বিএনপির এই নেতা।

Comments

Comments!

 প্রধান বিচারপতিকে দেশত্যাগে চাপ দেয়া হচ্ছে: রিজভীAmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

প্রধান বিচারপতিকে দেশত্যাগে চাপ দেয়া হচ্ছে: রিজভী

Sunday, October 8, 2017 6:47 pm
1507441553

প্রধান বিচারপতিকে দেশ ত্যাগের জন্য চাপ দেয়া হচ্ছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী আহমেদ।

রোববার বিকেল ৪টায় নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এই মন্তব্য করেন।

রিজভী বলেন, প্রধান বিচারপতির ছুটির দরখাস্তে স্বাক্ষর জালিয়াতি করেছে সরকারের এজেন্সিরা। নজীরবিহীন ঘটনা হচ্ছে তাঁর দরখাস্তের ৯টি শব্দের বানানে ভুল। সন্ত্রাসী কায়দায় প্রধান বিচারপতিকে গৃহবন্দী করে রাখার পরে এখন নজরবন্দী করে রাখা হয়েছে। বর্তমান শেখ হাসিনা সরকার কতখানি বেপরোয়া ও নীতিজ্ঞানহীন স্বৈরাচার হতে পারে তার পরিমাপক যন্ত্র এখনও আবিস্কার হয়নি।

তিনি বলেন, সরকারের মন্ত্রী, উপদেষ্টাসহ বিভিন্ন এজেন্সির লোকেরা প্রতিনিয়ত প্রধান বিচারপতির সঙ্গে দেখা করতে পারলেও সুপ্রিম কোর্টের নির্বাচিত প্রতিনিধিরা বারবার চেষ্টা করেও এখন পর্যন্ত দেখা করতে পারেননি।

বিএনপির এই নেতা বলেন, প্রধান বিচারপতিকে সার্বক্ষণিক চাপ দেয়া হচ্ছে দেশ ত্যাগের জন্য। প্রধান বিচারপতির ওপর আক্রোশের নির্দেশদাতা স্বয়ং সরকার প্রধান। তিনি সম্পূর্ণ সুস্থ থাকলেও প্রচ- চাপ প্রয়োগের মাধ্যমে অসুস্থতার কথা বলা হচ্ছে। চিকিৎসার নামে ডাক্তার পাঠানো হচ্ছে। যা সরকারের নিলর্জ্জ নাটক।

তিনি বলেন, বিচার বিভাগের উপর এই ঘৃন্য আক্রমণে বিরোধী দল এবং বিরোধীমতের মানুষদের সুবিচার পাওয়ার সম্ভাবনা নস্যাৎ হয়ে গেল। বিরোধী দলের নেতাকর্মী এবং ভিন্ন মত ও বিশ্বাসের মানুষেরা এখন সরকারের প্রতিহিংসার শিকার হতে থাকবে। প্রতিকার পাওয়ার আর কোন জায়গা থাকলো না।

বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব বলেন, বিচার বিভাগের উপর সরকারের পরিকল্পিত আক্রমণ করছে। এরা ক্ষমতার চাহিদা মেটাতে সর্বোচ্চ আদালতের ওপর সর্বগ্রাসী আক্রমণ চালিয়েছে। মানুষের নিরাপদে বেঁচে থাকার তাগিদে এই মুহূর্তে দল মতের উর্ধ্বে উঠে বিভিন্ন শ্রেণী-পেশার মানুষকে ভয়াবহ দুঃশাসনের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াতে হবে।

রিজভী আরও বলেন, শেখ হাসিনা রাশিয়া-চীনের মতো বন্ধু রাষ্ট্রগুলোকে পাশে নিতে পারেইনি বরং নিরপেক্ষও রাখতে পারেনি। এই রাষ্ট্রগুলো মিয়ানমার সরকারের নীতিকেই সমর্থন করেছে। এই সরকারের সবচেয়ে বড় বন্ধু ভারতও কাঁচকলা দেখিয়ে মিয়ানমার সরকারের নীতির প্রতি সমর্থন দিয়েছে।

সুচি’র দূত হিসেবে বাংলাদেশে আসা মন্ত্রীকে রোহিঙ্গাদের স্বদেশে ফেরত পাঠানোর বিষয়ে রাজী করাতে সক্ষম হয়নি বাংলাদেশ সরকার। আন্তর্জাতিক সমালোচনাকে কিছুটা সামাল দেয়ার জন্য মিয়ানমারের দূত বাংলাদেশে এসেছিলেন, কিন্তু বাংলাদেশ সরকার তাদের কৌশল বুঝতে ব্যর্থ হয়েছে বলেও মন্তব্য করেন বিএনপির এই নেতা।

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X