শনিবার, ২৪শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং, ১২ই ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, সকাল ১১:৪৬
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Wednesday, July 19, 2017 5:27 pm
A- A A+ Print

ফিলিস্তিন ও ইসরাইলের মধ্য শান্তি সম্মেলন আয়োজন করবে চীন : আব্বাস-শি জিনপিং বৈঠক

9

বেইজিং: চলতি বছরের শেষের দিকে ফিলিস্তিন ও ইসরাইলের মধ্যে আলোচনার জন্য একটি সম্মেলনের আয়োজন করবে চীন। মঙ্গলবার চীনের পররাষ্ট্র বিষয়ক উপমন্ত্রী জাং মিং সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান। এই অঞ্চলের শান্তি প্রতিষ্ঠায় চীনা প্রেসিডেন্ট শি জিনপিংয়ের অব্যাহত ভূমিকা পালনের প্রতিশ্রুতির অংশ হিসেবে এই ঘোষণা দেয়া হয় বলে তিনি জানান। তেল সরবরাহের জন্য অস্থিতিশীল মধ্যপ্রাচ্য উপর নির্ভরতা সত্ত্বেও বেইজিং দীর্ঘসময় ধরে মধ্যপ্রাচ্যের বিরোধে নিষ্ক্রিয় ভূমিকা পালন করছে। তবে গত বছর চীন এ অঞ্চলে তার কূটনৈতিক তৎপরতা বৃদ্ধি করেছে। ইতোমধ্যে চীনের পক্ষ থেকে সিরিয়ার সংঘাত নিয়ে আলোচনার প্রস্তাব দেয়া হয়েছে। মঙ্গলবার ফিলিস্তিনের প্রেসিডেন্ট মাহমুদ আব্বাসের সঙ্গে এক বৈঠকে ‘দুই রাষ্ট্র সমাধানের’ জিনপিং তার সমর্থনের কথা পুনর্ব্যক্ত করেন। একই সঙ্গে ফিলিস্তিনকে সার্বভৌম রাষ্ট্র হিসেবে স্বীকৃতি দিয়ে ১৯৬৭ সালের মেনডেট অনুযায়ী পূর্ব জেরুজালেমকে রাজধানী করে ফিলিস্তিনের স্বাধীনতার প্রতি সমর্থন দেন। উপমন্ত্রী জাং মিং সাংবাদিকদের বলেন, মাহমুদ আব্বাসের সঙ্গে ঘনিষ্ট আলোচনায় শি বলেছেন যে, প্যালেস্টাইন এবং ইসরাইলের সঙ্গে চীন একটি ত্রিপাক্ষিক সংলাপের আয়োজন করবে এবং চলতি বছরের শেষের দিকে এই অঞ্চলের বিতর্ক সমাধানে সহায়তা করতে একটি শান্তি সম্মেলনের আয়োজন করবে। তিনি জানান, ফিলিস্তিনি জনগণকে চীনের ‘সত্যিকারের ভাল বন্ধু, অংশীদার এবং ভাই’ বলে অভিহিত করে শি বলেন, চীন-ফিলিস্তিন দ্বিপক্ষীয় সম্পর্ককে আরো এগিয়ে নিতে এবং মধ্যপ্রাচ্যে শান্তি প্রক্রিয়ার অগ্রগতি অব্যাহত রাখতে তার দেশ প্রচেষ্টা চালাবে।’ চীনে তার চতুর্থ রাষ্ট্রীয় সফরে আব্বাস বলেন, ‘ফিলিস্তিন আশা করে যে, মধ্যপ্রাচ্যের শান্তি প্রক্রিয়ায় চীন অধিকতর ভূমিকা রাখবে।’ বৈঠকে আব্বাস প্রেসিডেন্ট শি’কে সম্মানসূচক একটি স্বর্ণপদক উপহার দেন।   গত মার্চে ইসরাইলি প্রধানমন্ত্রী বেঞ্জামিন নেতানিয়াহুও বেইজিং সফরে চীনা প্রেসিডেন্টের সঙ্গে বৈঠক করেন। ওই বৈঠকে শি জিনপিং নেতানিয়াহুকে ‘যত তাড়াতাড়ি সম্ভব ইসরাইল ও ফিলিস্তিনের মধ্যে শান্তির আহ্বান জানান। জবাবে নেতানিয়াহু বলেছিলেন, মধ্যপ্রাচ্য বিষয়ে চীনকে আরো বড় ভূমিকায় দেখতে চায় ইসরাইল।   ১৯৯২ সালে কূটনৈতিক সম্পর্ক স্থাপিত হওয়ার পর চীন ও ইসরাইলের মধ্যে বাণিজ্য বেড়েছে। ইসরাইলে চীনের মোট বিনিয়োগ ছয় বিলিয়ন ডলার ছাড়িয়ে গেছে। গত বছর দু'দেশের মধ্যে উন্মুক্ত বাণিজ্য বিষয়ে আলোচনা শুরু হয়েছিল। সূত্র: ডেইলি সান

Comments

Comments!

 ফিলিস্তিন ও ইসরাইলের মধ্য শান্তি সম্মেলন আয়োজন করবে চীন : আব্বাস-শি জিনপিং বৈঠকAmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

ফিলিস্তিন ও ইসরাইলের মধ্য শান্তি সম্মেলন আয়োজন করবে চীন : আব্বাস-শি জিনপিং বৈঠক

Wednesday, July 19, 2017 5:27 pm
9

বেইজিং: চলতি বছরের শেষের দিকে ফিলিস্তিন ও ইসরাইলের মধ্যে আলোচনার জন্য একটি সম্মেলনের আয়োজন করবে চীন।

মঙ্গলবার চীনের পররাষ্ট্র বিষয়ক উপমন্ত্রী জাং মিং সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান।

এই অঞ্চলের শান্তি প্রতিষ্ঠায় চীনা প্রেসিডেন্ট শি জিনপিংয়ের অব্যাহত ভূমিকা পালনের প্রতিশ্রুতির অংশ হিসেবে এই ঘোষণা দেয়া হয় বলে তিনি জানান।

তেল সরবরাহের জন্য অস্থিতিশীল মধ্যপ্রাচ্য উপর নির্ভরতা সত্ত্বেও বেইজিং দীর্ঘসময় ধরে মধ্যপ্রাচ্যের বিরোধে নিষ্ক্রিয় ভূমিকা পালন করছে।

তবে গত বছর চীন এ অঞ্চলে তার কূটনৈতিক তৎপরতা বৃদ্ধি করেছে। ইতোমধ্যে চীনের পক্ষ থেকে সিরিয়ার সংঘাত নিয়ে আলোচনার প্রস্তাব দেয়া হয়েছে।

মঙ্গলবার ফিলিস্তিনের প্রেসিডেন্ট মাহমুদ আব্বাসের সঙ্গে এক বৈঠকে ‘দুই রাষ্ট্র সমাধানের’ জিনপিং তার সমর্থনের কথা পুনর্ব্যক্ত করেন। একই সঙ্গে ফিলিস্তিনকে সার্বভৌম রাষ্ট্র হিসেবে স্বীকৃতি দিয়ে ১৯৬৭ সালের মেনডেট অনুযায়ী পূর্ব জেরুজালেমকে রাজধানী করে ফিলিস্তিনের স্বাধীনতার প্রতি সমর্থন দেন।

উপমন্ত্রী জাং মিং সাংবাদিকদের বলেন, মাহমুদ আব্বাসের সঙ্গে ঘনিষ্ট আলোচনায় শি বলেছেন যে, প্যালেস্টাইন এবং ইসরাইলের সঙ্গে চীন একটি ত্রিপাক্ষিক সংলাপের আয়োজন করবে এবং চলতি বছরের শেষের দিকে এই অঞ্চলের বিতর্ক সমাধানে সহায়তা করতে একটি শান্তি সম্মেলনের আয়োজন করবে।

তিনি জানান, ফিলিস্তিনি জনগণকে চীনের ‘সত্যিকারের ভাল বন্ধু, অংশীদার এবং ভাই’ বলে অভিহিত করে শি বলেন, চীন-ফিলিস্তিন দ্বিপক্ষীয় সম্পর্ককে আরো এগিয়ে নিতে এবং মধ্যপ্রাচ্যে শান্তি প্রক্রিয়ার অগ্রগতি অব্যাহত রাখতে তার দেশ প্রচেষ্টা চালাবে।’

চীনে তার চতুর্থ রাষ্ট্রীয় সফরে আব্বাস বলেন, ‘ফিলিস্তিন আশা করে যে, মধ্যপ্রাচ্যের শান্তি প্রক্রিয়ায় চীন অধিকতর ভূমিকা রাখবে।’

বৈঠকে আব্বাস প্রেসিডেন্ট শি’কে সম্মানসূচক একটি স্বর্ণপদক উপহার দেন।

 

গত মার্চে ইসরাইলি প্রধানমন্ত্রী বেঞ্জামিন নেতানিয়াহুও বেইজিং সফরে চীনা প্রেসিডেন্টের সঙ্গে বৈঠক করেন। ওই বৈঠকে শি জিনপিং নেতানিয়াহুকে ‘যত তাড়াতাড়ি সম্ভব ইসরাইল ও ফিলিস্তিনের মধ্যে শান্তির আহ্বান জানান।

জবাবে নেতানিয়াহু বলেছিলেন, মধ্যপ্রাচ্য বিষয়ে চীনকে আরো বড় ভূমিকায় দেখতে চায় ইসরাইল।

 

১৯৯২ সালে কূটনৈতিক সম্পর্ক স্থাপিত হওয়ার পর চীন ও ইসরাইলের মধ্যে বাণিজ্য বেড়েছে।

ইসরাইলে চীনের মোট বিনিয়োগ ছয় বিলিয়ন ডলার ছাড়িয়ে গেছে। গত বছর দু’দেশের মধ্যে উন্মুক্ত বাণিজ্য বিষয়ে আলোচনা শুরু হয়েছিল।

সূত্র: ডেইলি সান

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X