সোমবার, ১৯শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং, ৭ই ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, সকাল ১০:০১
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Friday, November 11, 2016 11:21 pm
A- A A+ Print

বডি ল্যাঙ্গুয়েজ একেবারেই ভিন্ন কথা বলছে

160840_1

ওয়াশিংটন: নির্বাচনে জয়ী হওয়ার পর প্রেসিডেন্ট ওবামার সঙ্গে বৈঠক করতে ডোনাল্ড ট্রাম্প হোয়াইট হাউসে গিয়েছিলেন। বৈঠক শেষে দুজন এক সঙ্গে হাজির হয়েছিলেন সাংবাদিকদের সামনে। পাশাপাশি দুজন যে ভঙ্গীতে বসেছিলেন এবং যেভাবে কথা বলছিলেন, তা বিশ্লেষণ করে বৃহস্পতিবার থেকেই দুজনের মনোভাব ব্যাখ্যা করার চেষ্টা করছেন বিশেষজ্ঞরা। হোয়াইট হাউসের বৈঠকের পর মিস্টার ট্রাম্প প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামাকে ‘খুবই ভালো একজন মানুষ’ বলে বর্ণনা করেন এবং প্রেসিডেন্ট ওবামা মিস্টার ট্রাম্পের সাফল্য কামনা করেন। কিন্তু বিশেষজ্ঞরা বলছেন, ছবিতে তাদের শারীরিক অঙ্গভঙ্গী (বডি ল্যাঙ্গুয়েজ) একেবারেই ভিন্ন কথা বলছে। উল্লেখ্য, ডোনাল্ড ট্রাম্প এর আগে প্রেসিডেন্ট ওবামাকে যুক্তরাষ্ট্রের ইতিহাসের নিকৃষ্ট প্রেসিডেন্ট বলে বর্ণনা করেছিলেন। তিনি প্রেসিডেন্ট ওবামা আদৌ যুক্তরাষ্ট্রে জন্ম নিয়েছেন কীনা তা নিয়ে বহুদিন ধরে প্রশ্ন তুলে বিতর্ক সৃষ্টি করেছিলেন। অন্যদিকে প্রেসিডেন্ট ওবামা বলেছিলেন, ডোনাল্ড ট্রাম্প যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট পদের জন্য অনুপযুক্ত ব্যক্তি। তবে গতকাল হোয়াইট হাউসে প্রথম বৈঠকে দুজনে প্রায় এক ঘন্টার বেশি কথা বলেন। যখন তারা বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের সামনে বেরিয়ে আসেন, তখন অতীতের এই তিক্ততাকে অবশ্য তারা ভুলিয়ে দিতে চেয়েছেন ঐক্য আর শান্তির কথা বলে। কিন্তু বিশেষজ্ঞরা বলছেন, মুখে তারা যাই বলুন, তাদের অঙ্গভঙ্গী ভিন্ন কথা বলছে। ওবামা এবং ট্রাম্পের একসঙ্গে বসে কথা বলার সময় তোলা ছবি বিশ্লেষণ করেছেন বডি ল্যাঙ্গুয়েজ বিশেষজ্ঞ প্যাটি উড। তিনি লন্ডনের ডেইলি মেলকে বলেন, মুখে তারা যাই বলুন, তাদের বডি ল্যাঙ্গুয়েজ দেখে এটা স্পষ্ট বোঝা যায় যে দুজনের মধ্যে একটা ‘টেনশন’ আছে। তিনি বলেন, ওবামাকে দেখে মনে হচ্ছে তিনি খুবই অবসাদগ্রস্থ, যেন হাল ছেড়ে দিয়েছেন এবং মোটেই আশাবাদী নন। অন্যদিকে ট্রাম্পকে দেখে মনে হচ্ছে তিনি খুবই সিরিয়াস এবং এমন কিছু তথ্য তিনি শুনেছেন, যারপর তিনি শঙ্কার মধ্যে আছেন। প্যাটি উড বলেন, ‘একটা ছবিতে ওবামাকে দুই পা এতটাই ছড়িয়ে বসে থাকতে দেখা যাচ্ছে, যা দেখে মনে হচ্ছে যেন তিনি বলতে চাইছেন আমিই এখনো সবার উপরে।’ অন্যদিকে ট্রাম্প তার হাত জোড় করে যেভাবে নীচের দিকে ধরে রেখেছেন, সেটা দেখে মনে হচ্ছে তিনি এমন কিছু জেনেছেন, যেটা তার আগে জানা ছিল না। এটা কিন্তু তার স্বভাবসুলভ কোন ভঙ্গী নয়। সূত্র: বিবিসি

Comments

Comments!

 বডি ল্যাঙ্গুয়েজ একেবারেই ভিন্ন কথা বলছেAmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

বডি ল্যাঙ্গুয়েজ একেবারেই ভিন্ন কথা বলছে

Friday, November 11, 2016 11:21 pm
160840_1

ওয়াশিংটন: নির্বাচনে জয়ী হওয়ার পর প্রেসিডেন্ট ওবামার সঙ্গে বৈঠক করতে ডোনাল্ড ট্রাম্প হোয়াইট হাউসে গিয়েছিলেন। বৈঠক শেষে দুজন এক সঙ্গে হাজির হয়েছিলেন সাংবাদিকদের সামনে।

পাশাপাশি দুজন যে ভঙ্গীতে বসেছিলেন এবং যেভাবে কথা বলছিলেন, তা বিশ্লেষণ করে বৃহস্পতিবার থেকেই দুজনের মনোভাব ব্যাখ্যা করার চেষ্টা করছেন বিশেষজ্ঞরা।

হোয়াইট হাউসের বৈঠকের পর মিস্টার ট্রাম্প প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামাকে ‘খুবই ভালো একজন মানুষ’ বলে বর্ণনা করেন এবং প্রেসিডেন্ট ওবামা মিস্টার ট্রাম্পের সাফল্য কামনা করেন। কিন্তু বিশেষজ্ঞরা বলছেন, ছবিতে তাদের শারীরিক অঙ্গভঙ্গী (বডি ল্যাঙ্গুয়েজ) একেবারেই ভিন্ন কথা বলছে।

উল্লেখ্য, ডোনাল্ড ট্রাম্প এর আগে প্রেসিডেন্ট ওবামাকে যুক্তরাষ্ট্রের ইতিহাসের নিকৃষ্ট প্রেসিডেন্ট বলে বর্ণনা করেছিলেন। তিনি প্রেসিডেন্ট ওবামা আদৌ যুক্তরাষ্ট্রে জন্ম নিয়েছেন কীনা তা নিয়ে বহুদিন ধরে প্রশ্ন তুলে বিতর্ক সৃষ্টি করেছিলেন।

অন্যদিকে প্রেসিডেন্ট ওবামা বলেছিলেন, ডোনাল্ড ট্রাম্প যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট পদের জন্য অনুপযুক্ত ব্যক্তি।

তবে গতকাল হোয়াইট হাউসে প্রথম বৈঠকে দুজনে প্রায় এক ঘন্টার বেশি কথা বলেন। যখন তারা বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের সামনে বেরিয়ে আসেন, তখন অতীতের এই তিক্ততাকে অবশ্য তারা ভুলিয়ে দিতে চেয়েছেন ঐক্য আর শান্তির কথা বলে।

কিন্তু বিশেষজ্ঞরা বলছেন, মুখে তারা যাই বলুন, তাদের অঙ্গভঙ্গী ভিন্ন কথা বলছে।

ওবামা এবং ট্রাম্পের একসঙ্গে বসে কথা বলার সময় তোলা ছবি বিশ্লেষণ করেছেন বডি ল্যাঙ্গুয়েজ বিশেষজ্ঞ প্যাটি উড। তিনি লন্ডনের ডেইলি মেলকে বলেন, মুখে তারা যাই বলুন, তাদের বডি ল্যাঙ্গুয়েজ দেখে এটা স্পষ্ট বোঝা যায় যে দুজনের মধ্যে একটা ‘টেনশন’ আছে।

তিনি বলেন, ওবামাকে দেখে মনে হচ্ছে তিনি খুবই অবসাদগ্রস্থ, যেন হাল ছেড়ে দিয়েছেন এবং মোটেই আশাবাদী নন। অন্যদিকে ট্রাম্পকে দেখে মনে হচ্ছে তিনি খুবই সিরিয়াস এবং এমন কিছু তথ্য তিনি শুনেছেন, যারপর তিনি শঙ্কার মধ্যে আছেন।

প্যাটি উড বলেন, ‘একটা ছবিতে ওবামাকে দুই পা এতটাই ছড়িয়ে বসে থাকতে দেখা যাচ্ছে, যা দেখে মনে হচ্ছে যেন তিনি বলতে চাইছেন আমিই এখনো সবার উপরে।’

অন্যদিকে ট্রাম্প তার হাত জোড় করে যেভাবে নীচের দিকে ধরে রেখেছেন, সেটা দেখে মনে হচ্ছে তিনি এমন কিছু জেনেছেন, যেটা তার আগে জানা ছিল না। এটা কিন্তু তার স্বভাবসুলভ কোন ভঙ্গী নয়।

সূত্র: বিবিসি

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X