শনিবার, ২৪শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং, ১২ই ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, রাত ২:১৭
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Monday, December 26, 2016 6:01 pm
A- A A+ Print

বাংলাদেশের ইনিংসে ১৫৪ ডট বল!

40

নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ক্রাইস্টচার্চের হ্যাগলি ওভালে ৩৪১ রান তাড়া করে জিততে হলে দুটি রেকর্ড গড়তে হতো বাংলাদেশকে। প্রথমত, হ্যাগলি ওভালে ৩০০ বা তার বেশি রান তাড়া করে জিততে পারেনি কোনো দল। দ্বিতীয়ত, ওয়ানডে ইতিহাসে সর্বোচ্চ ৩১৯ রান তাড়া করে জয়ের রেকর্ড বাংলাদেশের! আজ জিততে হলে করতে হতো ৩৪২। তবে মাঠে নামার আগে একটি পরিসংখ্যান বাংলাদেশকে জয়ের স্বপ্ন দেখাচ্ছিল। তা হলো নিউজিল্যান্ডের মাটিতেই, ২০১৫ বিশ্বকাপে নেলসনে স্কটল্যান্ডের বিপক্ষে ৩১৯ রান করেছিল বাংলাদেশ। সেই সুখস্মৃতি ঠিকই ফিরে এসেছিল কিন্তু ‘জয়’ নামক সোনার হরিণটি পাওয়া হয়নি টাইগারদের। কন্ডিশন চিরচেনা ছিল না এটা সত্য। কিন্তু আহামরিও কঠিন ছিল না। বল খুব স্বাভাবিক উচ্চতায় এসেছিল। নিউজিল্যান্ডের পেসাররা শর্ট বল করছিলেন বেশি। বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানরা সেই ফাঁদেই পা বাড়িয়েছেন। উইকেটে সেট হতে পারলে রান তাড়া করা যেত খুব সহজেই।   Sports   ম্যাচের ‘পোস্ট মর্টেম’ যদি করা হয় তাহলে ব্যাটসম্যানদের ‘কাঠগড়ায়’ দাঁড় করাতে হবে। কারণ বাংলাদেশের ২৬৯ বলের ইনিংসে ১৫৪ বলই ছিল ডট! ৪৪.৫ ওভারে বাংলাদেশের রান ২৬৪। অর্থাৎ ২৫.৪ ওভার ডট খেলেছে তামিম, সাকিব, মুশফিক ও সৈকতরা। বাংলাদেশ অতিরিক্ত খাত থেকে পেয়েছে ২৬ রান। এ হিসাবে ব্যাটসম্যানদের ব্যাট থেকে এসেছে ২৩৮ রান, মাত্র ১১৫ বলে। ২৩ চার ও ৭ ছক্কায় বাংলাদেশের ইনিংসে বাউন্ডারি থেকে রান এসেছে ১৩৪। বাকি ১০৪ রান এসেছে এক রান, দুই রান ও তিন রানে।   Sports   বলাবাহুল্য বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানরা সিঙ্গেল ও ডাবলসের বদলে উচ্চাভিলাষী শট খেলায় বেশি আগ্রহ দেখিয়েছেন। তামিম ইকবাল সর্বোচ্চ ৫৯ বল খেলেছেন। ৩৯ বলে কোনো রান নিতে পারেননি দেশসেরা ওপেনার। মুশফিকুর রহিম ৪৮ বলের মধ্যে ২৪ বল এবং মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত ৪৪ বলের মধ্যে ২৪ বলে রান পাননি। সাকিবের ৫৪ বলের ইনিংসে ছিল ২৩টি ডট বল। এ ছাড়া ইমরুলের ২১ বলের ইনিংসে ছিল ১৭টি ডট বল। ১৫৪ ডট বলের অর্ধেক অর্থাৎ ৭৭ বলে যদি এক রান করে নেওয়া যেত তাহলে ৭৭ রানে হারতে হতো না বাংলাদেশকে।

Comments

Comments!

 বাংলাদেশের ইনিংসে ১৫৪ ডট বল!AmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

বাংলাদেশের ইনিংসে ১৫৪ ডট বল!

Monday, December 26, 2016 6:01 pm
40

নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ক্রাইস্টচার্চের হ্যাগলি ওভালে ৩৪১ রান তাড়া করে জিততে হলে দুটি রেকর্ড গড়তে হতো বাংলাদেশকে।

প্রথমত, হ্যাগলি ওভালে ৩০০ বা তার বেশি রান তাড়া করে জিততে পারেনি কোনো দল। দ্বিতীয়ত, ওয়ানডে ইতিহাসে সর্বোচ্চ ৩১৯ রান তাড়া করে জয়ের রেকর্ড বাংলাদেশের! আজ জিততে হলে করতে হতো ৩৪২। তবে মাঠে নামার আগে একটি পরিসংখ্যান বাংলাদেশকে জয়ের স্বপ্ন দেখাচ্ছিল। তা হলো নিউজিল্যান্ডের মাটিতেই, ২০১৫ বিশ্বকাপে নেলসনে স্কটল্যান্ডের বিপক্ষে ৩১৯ রান করেছিল বাংলাদেশ। সেই সুখস্মৃতি ঠিকই ফিরে এসেছিল কিন্তু ‘জয়’ নামক সোনার হরিণটি পাওয়া হয়নি টাইগারদের।

কন্ডিশন চিরচেনা ছিল না এটা সত্য। কিন্তু আহামরিও কঠিন ছিল না। বল খুব স্বাভাবিক উচ্চতায় এসেছিল। নিউজিল্যান্ডের পেসাররা শর্ট বল করছিলেন বেশি। বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানরা সেই ফাঁদেই পা বাড়িয়েছেন। উইকেটে সেট হতে পারলে রান তাড়া করা যেত খুব সহজেই।

 

Sports

 

ম্যাচের ‘পোস্ট মর্টেম’ যদি করা হয় তাহলে ব্যাটসম্যানদের ‘কাঠগড়ায়’ দাঁড় করাতে হবে। কারণ বাংলাদেশের ২৬৯ বলের ইনিংসে ১৫৪ বলই ছিল ডট! ৪৪.৫ ওভারে বাংলাদেশের রান ২৬৪। অর্থাৎ ২৫.৪ ওভার ডট খেলেছে তামিম, সাকিব, মুশফিক ও সৈকতরা। বাংলাদেশ অতিরিক্ত খাত থেকে পেয়েছে ২৬ রান। এ হিসাবে ব্যাটসম্যানদের ব্যাট থেকে এসেছে ২৩৮ রান, মাত্র ১১৫ বলে। ২৩ চার ও ৭ ছক্কায় বাংলাদেশের ইনিংসে বাউন্ডারি থেকে রান এসেছে ১৩৪। বাকি ১০৪ রান এসেছে এক রান, দুই রান ও তিন রানে।

 

Sports

 

বলাবাহুল্য বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানরা সিঙ্গেল ও ডাবলসের বদলে উচ্চাভিলাষী শট খেলায় বেশি আগ্রহ দেখিয়েছেন। তামিম ইকবাল সর্বোচ্চ ৫৯ বল খেলেছেন। ৩৯ বলে কোনো রান নিতে পারেননি দেশসেরা ওপেনার। মুশফিকুর রহিম ৪৮ বলের মধ্যে ২৪ বল এবং মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত ৪৪ বলের মধ্যে ২৪ বলে রান পাননি। সাকিবের ৫৪ বলের ইনিংসে ছিল ২৩টি ডট বল। এ ছাড়া ইমরুলের ২১ বলের ইনিংসে ছিল ১৭টি ডট বল। ১৫৪ ডট বলের অর্ধেক অর্থাৎ ৭৭ বলে যদি এক রান করে নেওয়া যেত তাহলে ৭৭ রানে হারতে হতো না বাংলাদেশকে।

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X