সোমবার, ১৯শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং, ৭ই ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, সন্ধ্যা ৭:২৮
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Sunday, July 31, 2016 2:49 pm
A- A A+ Print

বাংলাদেশের বন্যার ছবি নিয়ে ভারতে বিপত্তি

148642_1

   
নয়াদিল্লি: ভারতের আসাম রাজ্যের বন্যা পরিস্থিতির এক অন্তর্বর্তী প্রতিবেদনে রাজ্যের কয়েকটি ছবির সঙ্গে দুই বছর পুরনো বাংলাদেশের বন্যার একটি বিখ্যাত ছবি সংযুক্ত করে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিংয়ের কাছে জমা দেওয়া হয়েছে। শনিবার আসামের বিজেপি দলীয় সরকার এ ভুলটি করেছে বলে জানিয়েছে এনডিটিভি। ওই দিন রাজ্যের বন্যা পরিস্থিতি দেখতে রাজনাথ সিং আসাম গিয়েছিলেন। তখন রাজ্যটির মুখ্যমন্ত্রী সর্বানন্দ সনৌয়াল ওই অন্তর্বর্তী প্রতিবেদনটি রাজনাথের কাছে হস্তান্তর করেন।
এতে নয়টি ছবি ছিল, যার মধ্যে একটি বাংলাদেশের নোয়াখালি অঞ্চলের বন্যার ছবি। বিখ্যাত ওই ছবিতে এক তরুণকে বন্যার পানি থেকে উদ্ধার করা একটি হরিণ শিশুকে বহন করে নিয়ে যেতে দেখা যায়। বন্যা কবলিত আসামের বিখ্যাত জাতীয় উদ্যান কাজিরাঙ্গার ছবি মনে করে রাজ্যটির কর্মকর্তারা ছবিটি প্রতিবেদনের ছবিগুলোর সঙ্গে জুড়ে দেন বলে দাবি করেছেন রাজ্য কর্মকর্তারা। বাংলাদেশের ওয়াইল্ডলাইফ ফটোগ্রাফার হাসিবুল ওয়াহাব নোয়াখালি থেকে ছবিটি তুলেছিলেন। ফেব্রুয়ারি, ২০১৪ সালে বার্তা সংস্থা ক্রেটার্স ছবিটি প্রচার করে। ওই সময় ছবিটি বিশ্বব্যাপী প্রশংসিত হয়। ছবিতে বেলাল নামের ওই তরুণটি জীবনের ঝুঁকি নিয়ে মাথা সমান পানি ভেঙে হরিণ শিশুটিকে উদ্ধার করে। বিষয়টি ধরিয়ে দেওয়া হলে আসাম সরকারের জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তারা ভুল স্বীকার করেন,তবে ভুলের দায় ‘কয়েকজন’ জেলা প্রশাসকের ওপর চাপিয়ে দেন;ওই জেলা প্রশাসকরাই ছবিটি রাজ্যের রাজধানীতে পাঠানোর বিষয়টি অনুমোদন করেছেন বলে দাবি করেন তারা। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক রাজ্য কর্মকর্তা বলেন,এটি বড় ধরনের ভুল। আমরা এটি স্বীকার করছি। আসলে ছবিটির সঙ্গে কাজিরাঙ্গা জাতীয় উদ্যানের পরিস্থিতির মিল থাকায় কয়েকজন ডিসি এটি আমাদের কাছে পাঠিয়েছেন। অন্য আরেকজন কর্মকর্তা জানিয়েছেন, কাজিরাঙ্গা ও এর আশপাশের বাসিন্দারা চলতি বন্যার সময় প্রাণিদের উদ্ধার করছেন, এ কারণেই ওই কর্মকর্তারা ‘ভুলক্রমে’ এই ছবিটিকেও যুক্ত করেছেন।

Comments

Comments!

 বাংলাদেশের বন্যার ছবি নিয়ে ভারতে বিপত্তিAmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

বাংলাদেশের বন্যার ছবি নিয়ে ভারতে বিপত্তি

Sunday, July 31, 2016 2:49 pm
148642_1

 

 

নয়াদিল্লি: ভারতের আসাম রাজ্যের বন্যা পরিস্থিতির এক অন্তর্বর্তী প্রতিবেদনে রাজ্যের কয়েকটি ছবির সঙ্গে দুই বছর পুরনো বাংলাদেশের বন্যার একটি বিখ্যাত ছবি সংযুক্ত করে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিংয়ের কাছে জমা দেওয়া হয়েছে।

শনিবার আসামের বিজেপি দলীয় সরকার এ ভুলটি করেছে বলে জানিয়েছে এনডিটিভি।

ওই দিন রাজ্যের বন্যা পরিস্থিতি দেখতে রাজনাথ সিং আসাম গিয়েছিলেন। তখন রাজ্যটির মুখ্যমন্ত্রী সর্বানন্দ সনৌয়াল ওই অন্তর্বর্তী প্রতিবেদনটি রাজনাথের কাছে হস্তান্তর করেন।

এতে নয়টি ছবি ছিল, যার মধ্যে একটি বাংলাদেশের নোয়াখালি অঞ্চলের বন্যার ছবি। বিখ্যাত ওই ছবিতে এক তরুণকে বন্যার পানি থেকে উদ্ধার করা একটি হরিণ শিশুকে বহন করে নিয়ে যেতে দেখা যায়।

বন্যা কবলিত আসামের বিখ্যাত জাতীয় উদ্যান কাজিরাঙ্গার ছবি মনে করে রাজ্যটির কর্মকর্তারা ছবিটি প্রতিবেদনের ছবিগুলোর সঙ্গে জুড়ে দেন বলে দাবি করেছেন রাজ্য কর্মকর্তারা।

বাংলাদেশের ওয়াইল্ডলাইফ ফটোগ্রাফার হাসিবুল ওয়াহাব নোয়াখালি থেকে ছবিটি তুলেছিলেন। ফেব্রুয়ারি, ২০১৪ সালে বার্তা সংস্থা ক্রেটার্স ছবিটি প্রচার করে। ওই সময় ছবিটি বিশ্বব্যাপী প্রশংসিত হয়।

ছবিতে বেলাল নামের ওই তরুণটি জীবনের ঝুঁকি নিয়ে মাথা সমান পানি ভেঙে হরিণ শিশুটিকে উদ্ধার করে।

বিষয়টি ধরিয়ে দেওয়া হলে আসাম সরকারের জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তারা ভুল স্বীকার করেন,তবে ভুলের দায় ‘কয়েকজন’ জেলা প্রশাসকের ওপর চাপিয়ে দেন;ওই জেলা প্রশাসকরাই ছবিটি রাজ্যের রাজধানীতে পাঠানোর বিষয়টি অনুমোদন করেছেন বলে দাবি করেন তারা।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক রাজ্য কর্মকর্তা বলেন,এটি বড় ধরনের ভুল। আমরা এটি স্বীকার করছি। আসলে ছবিটির সঙ্গে কাজিরাঙ্গা জাতীয় উদ্যানের পরিস্থিতির মিল থাকায় কয়েকজন ডিসি এটি আমাদের কাছে পাঠিয়েছেন।

অন্য আরেকজন কর্মকর্তা জানিয়েছেন, কাজিরাঙ্গা ও এর আশপাশের বাসিন্দারা চলতি বন্যার সময় প্রাণিদের উদ্ধার করছেন, এ কারণেই ওই কর্মকর্তারা ‘ভুলক্রমে’ এই ছবিটিকেও যুক্ত করেছেন।

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X