রবিবার, ১৮ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং, ৬ই ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, রাত ৩:০৬
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Sunday, October 23, 2016 8:00 pm
A- A A+ Print

বাংলাদেশ-ভারত সীমান্তে বাংলা-উর্দুতে সন্দেহজনক কথাবার্তা!

photo-1477216402

অপ্রচলিত তরঙ্গমাধ্যম ব্যবহার করে বাংলাদেশ-ভারত সীমান্ত এলাকায় বাংলা ও উর্দু ভাষায় কথাবার্তা বলার সংকেত পাওয়া গেছে। বিষয়টি সন্দেহজনক হওয়ায় তরঙ্গ নির্ণয়ক ‘হ্যাম রেডিও’ ব্যবহারের মাধ্যমে ভারতের বিশেষজ্ঞদল কাজ করছে। ভারতের পত্রিকা ইকোনমিক টাইমসের অনলাইনে রোববারের এক প্রতিবেদনে এ কথা বলা হয়েছে। প্রতিবেদনে বলা হয়, বাংলাদেশ-ভারত সীমান্তের বশিরহাট ও সুন্দরবন এলাকা থেকে অপ্রচলিত তরঙ্গ ব্যবহার করে কোনো যোগাযোগমাধ্যমের সাহায্যে কথোপকথন চলার সংকেত পাওয়া গেছে। এই কথোপকথনের সময় বাংলা ও উর্দু ভাষা ব্যবহার করা হয়েছে বলে দাবি করা হয়। এ বিষয়ে বার্তা সংস্থা পিটিআইকে বেঙ্গল অ্যামেচিউর রেডিও ক্লাবের সেক্রেটারি অম্বরিশ নাগ বিশ্বাস বলেন, ‘এই ঘটনা উচ্চতর সন্দেহজনক ও নিরাপত্তার জন্য হুমকিস্বরূপ। কারণ, ওই কথাবার্তা চলার সময় যখনই আমরা শোনার চেষ্টা করেছি, তখনই তারা কথা বলা বন্ধ করে দিয়েছে। এর পর একটা নির্দিষ্ট সময় পর তারা আবারও কথা বলা শুরু করেছে। তারা বাংলা ও উর্দু ভাষা ব্যবহার করে যোগাযোগ করেছে।’ অম্বরিশ নাগ আরো বলেন, ‘যারা কথা বলেছে, তারা বাংলাদেশের কোনো আঞ্চলিক ভাষা ব্যবহার করেছে। আমি এ ধরনের কথোপকথন সংরক্ষণ করতে রেডিও ক্লাবের সদস্যদের বলি। গত জুন মাসে ও এই দুর্গাপূজার উৎসবের সময় এ ধরনের আলাপচারিতা চলেছে।’ এ ধরনের সংকেত চিহ্নিত করতে ও সংরক্ষণের জন্য ২৩ সদস্যের একটি দল কাজ করছে বলে জানান অম্বরিশ।

Comments

Comments!

 বাংলাদেশ-ভারত সীমান্তে বাংলা-উর্দুতে সন্দেহজনক কথাবার্তা!AmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

বাংলাদেশ-ভারত সীমান্তে বাংলা-উর্দুতে সন্দেহজনক কথাবার্তা!

Sunday, October 23, 2016 8:00 pm
photo-1477216402

অপ্রচলিত তরঙ্গমাধ্যম ব্যবহার করে বাংলাদেশ-ভারত সীমান্ত এলাকায় বাংলা ও উর্দু ভাষায় কথাবার্তা বলার সংকেত পাওয়া গেছে।

বিষয়টি সন্দেহজনক হওয়ায় তরঙ্গ নির্ণয়ক ‘হ্যাম রেডিও’ ব্যবহারের মাধ্যমে ভারতের বিশেষজ্ঞদল কাজ করছে।

ভারতের পত্রিকা ইকোনমিক টাইমসের অনলাইনে রোববারের এক প্রতিবেদনে এ কথা বলা হয়েছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়, বাংলাদেশ-ভারত সীমান্তের বশিরহাট ও সুন্দরবন এলাকা থেকে অপ্রচলিত তরঙ্গ ব্যবহার করে কোনো যোগাযোগমাধ্যমের সাহায্যে কথোপকথন চলার সংকেত পাওয়া গেছে। এই কথোপকথনের সময় বাংলা ও উর্দু ভাষা ব্যবহার করা হয়েছে বলে দাবি করা হয়।

এ বিষয়ে বার্তা সংস্থা পিটিআইকে বেঙ্গল অ্যামেচিউর রেডিও ক্লাবের সেক্রেটারি অম্বরিশ নাগ বিশ্বাস বলেন, ‘এই ঘটনা উচ্চতর সন্দেহজনক ও নিরাপত্তার জন্য হুমকিস্বরূপ। কারণ, ওই কথাবার্তা চলার সময় যখনই আমরা শোনার চেষ্টা করেছি, তখনই তারা কথা বলা বন্ধ করে দিয়েছে। এর পর একটা নির্দিষ্ট সময় পর তারা আবারও কথা বলা শুরু করেছে। তারা বাংলা ও উর্দু ভাষা ব্যবহার করে যোগাযোগ করেছে।’

অম্বরিশ নাগ আরো বলেন, ‘যারা কথা বলেছে, তারা বাংলাদেশের কোনো আঞ্চলিক ভাষা ব্যবহার করেছে। আমি এ ধরনের কথোপকথন সংরক্ষণ করতে রেডিও ক্লাবের সদস্যদের বলি। গত জুন মাসে ও এই দুর্গাপূজার উৎসবের সময় এ ধরনের আলাপচারিতা চলেছে।’

এ ধরনের সংকেত চিহ্নিত করতে ও সংরক্ষণের জন্য ২৩ সদস্যের একটি দল কাজ করছে বলে জানান অম্বরিশ।

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X