সোমবার, ১৯শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং, ৭ই ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, সকাল ৬:২০
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Thursday, November 3, 2016 3:30 pm
A- A A+ Print

‘বাকশালী ব্যবস্থার মৃতদেহটাই পুনরুজ্জীবিত করে ক্ষমতায় সরকার’

158380_1-1

ঢাকা: বর্তমান ভোটারবিহীন সরকার পুরনো অন্ধ, বন্ধ্যা, বাকশালী ব্যবস্থার মৃতদেহটাই পুনরুজ্জীবিত করে নিজেদেরকে টিকিয়ে রেখেছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপি’র সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব অ্যাডভোকেট রুহুল কবির রিজভী। বৃহষ্পতিবার ১১টায় বিএনপির নয়াপল্টনের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন। তিনি বলেন, এই অনাচার যে বেশিদিন টিকে থাকবেনা বরং করুণ ও মর্মান্তিক পরিণতি বরণ করতে হয় আওয়ামী লীগ সেই শিক্ষা কোনদিনই গ্রহণ করেনি। কিন্তু তারা ইতিহাসের শিক্ষা গ্রহণ না করে আমাদের প্রিয় মাতৃভূমিকে সমূলে সর্বনাশের দিকে ধাবিত করছে। তিনি আরো বলেন, আমরা বিশ্বাস করতে চাই-ক্ষমতাসীন মহলের শুভ বুদ্ধির উদয় হবে এবং গণতন্ত্রের পথচলায় সভা-সমাবেশ অনুষ্ঠিত হতে কোনো বাধার সৃষ্টি করবে না। জাতীয় বিপ্লব ও সংহতি দিবস উপলক্ষে আগামী ৮ নভেম্বর ২০১৬’র শান্তিপূর্ণ জনসভা সফল করতে প্রশাসন যথাযথ উদ্যোগ গ্রহণ করবে। তিনি অভিযোগ করে বলেন, ৭ নভেম্বর জাতীয় বিপ্লব ও সংহতি দিবসকে কেন্দ্র করে ঢাকা মহানগরীসহ দেশের বিভিন্ন এলাকায় দলীয় নেতাকর্মীদের বাড়িতে বাড়িতে পুলিশ হানা দিচ্ছে ও ভয়ভীতি প্রদর্শন করছে। আমরা মনে করি-এটি বর্তমান শাসকগোষ্ঠী শুধু অগণতান্ত্রিক আচরণই নয় বরং এটি অবৈধ রাষ্ট্রক্ষমতার জোরে দেশব্যাপী আধিপত্য বজায়ের আরো একটি ন্যাক্কারজনক দৃষ্টান্ত। তিনি বলেন, অর্ধাহার ও অনাহারে থাকা গরীব মানুষের জন্য ১০ টাকা কেজি দরে চাল বিতরণের নামে দেশজুড়ে গরীব মানুষ ও ক্ষুধাকে নিয়ে তামাশা করা হচ্ছে। এ যেন ক্ষমতাসীন দলের নেতাদের পকেট ভারী করার জন্য পরিকল্পিত একটি সুযোগ সৃষ্টি করা। রিজভী বলেন, গরীবের পেটে লাথি মেরে সরকারী গোডাউন থেকে টনকে টন চাল আত্মসাৎ করছে শাসকদলের নেতাকর্মীরা। সমাজের অসহায়, দুস্থ ও গরীবদের মাঝে ১০ টাকা কেজি দরে চাল বিতরণের কথা বলা হলেও প্রকৃতপক্ষে এটি চলে যাচ্ছে ক্ষমতাসীন দলের বিত্তবানদের পকেটে।

Comments

Comments!

 ‘বাকশালী ব্যবস্থার মৃতদেহটাই পুনরুজ্জীবিত করে ক্ষমতায় সরকার’AmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

‘বাকশালী ব্যবস্থার মৃতদেহটাই পুনরুজ্জীবিত করে ক্ষমতায় সরকার’

Thursday, November 3, 2016 3:30 pm
158380_1-1

ঢাকা: বর্তমান ভোটারবিহীন সরকার পুরনো অন্ধ, বন্ধ্যা, বাকশালী ব্যবস্থার মৃতদেহটাই পুনরুজ্জীবিত করে নিজেদেরকে টিকিয়ে রেখেছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপি’র সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব অ্যাডভোকেট রুহুল কবির রিজভী।

বৃহষ্পতিবার ১১টায় বিএনপির নয়াপল্টনের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, এই অনাচার যে বেশিদিন টিকে থাকবেনা বরং করুণ ও মর্মান্তিক পরিণতি বরণ করতে হয় আওয়ামী লীগ সেই শিক্ষা কোনদিনই গ্রহণ করেনি। কিন্তু তারা ইতিহাসের শিক্ষা গ্রহণ না করে আমাদের প্রিয় মাতৃভূমিকে সমূলে সর্বনাশের দিকে ধাবিত করছে।

তিনি আরো বলেন, আমরা বিশ্বাস করতে চাই-ক্ষমতাসীন মহলের শুভ বুদ্ধির উদয় হবে এবং গণতন্ত্রের পথচলায় সভা-সমাবেশ অনুষ্ঠিত হতে কোনো বাধার সৃষ্টি করবে না। জাতীয় বিপ্লব ও সংহতি দিবস উপলক্ষে আগামী ৮ নভেম্বর ২০১৬’র শান্তিপূর্ণ জনসভা সফল করতে প্রশাসন যথাযথ উদ্যোগ গ্রহণ করবে।

তিনি অভিযোগ করে বলেন, ৭ নভেম্বর জাতীয় বিপ্লব ও সংহতি দিবসকে কেন্দ্র করে ঢাকা মহানগরীসহ দেশের বিভিন্ন এলাকায় দলীয় নেতাকর্মীদের বাড়িতে বাড়িতে পুলিশ হানা দিচ্ছে ও ভয়ভীতি প্রদর্শন করছে। আমরা মনে করি-এটি বর্তমান শাসকগোষ্ঠী শুধু অগণতান্ত্রিক আচরণই নয় বরং এটি অবৈধ রাষ্ট্রক্ষমতার জোরে দেশব্যাপী আধিপত্য বজায়ের আরো একটি ন্যাক্কারজনক দৃষ্টান্ত।

তিনি বলেন, অর্ধাহার ও অনাহারে থাকা গরীব মানুষের জন্য ১০ টাকা কেজি দরে চাল বিতরণের নামে দেশজুড়ে গরীব মানুষ ও ক্ষুধাকে নিয়ে তামাশা করা হচ্ছে। এ যেন ক্ষমতাসীন দলের নেতাদের পকেট ভারী করার জন্য পরিকল্পিত একটি সুযোগ সৃষ্টি করা।

রিজভী বলেন, গরীবের পেটে লাথি মেরে সরকারী গোডাউন থেকে টনকে টন চাল আত্মসাৎ করছে শাসকদলের নেতাকর্মীরা। সমাজের অসহায়, দুস্থ ও গরীবদের মাঝে ১০ টাকা কেজি দরে চাল বিতরণের কথা বলা হলেও প্রকৃতপক্ষে এটি চলে যাচ্ছে ক্ষমতাসীন দলের বিত্তবানদের পকেটে।

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X