বুধবার, ২২শে নভেম্বর, ২০১৭ ইং, ৮ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, বিকাল ৫:১৮
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Saturday, July 15, 2017 10:22 pm
A- A A+ Print

বাধাহীন যৌনাচারের উৎসব

73396_orl

লন্ডনের টর্চার গার্ডেন। একটি ক্লাবের নাম। প্রাপ্ত বয়স্কদের ক্লাব। এখানে রাতের আলোয় জমে ওঠে উন্মত্ততা। অবাধ যৌনাচার থেকে শুরু করে এমন কিছু নেই, যা সেখানে হয় না। আছে টপলেস সুন্দরী রমনীদের উত্তাল নাচ। আছে পোল ড্যান্স। তাতে বিবস্ত্রপ্রায় যুবতীর অঙ্গভঙ্গি, চাহনি, আকুতি পাগল করে তোলে পুরুষের হৃদয়। আলো আঁধারিতে তখন মঞ্চের বাইরে অন্য দৃশ্য। কোথাও বা স্বল্পবসনা এক নারীর গলায় রশির মতো একটা কিছু লাগিয়ে টেনে নিয়ে যাচ্ছে বাঘের মতো ক্ষিপ্রতায় দু’পুরুষ। আর বলছে আমরা তোমাকে ভালবাসি। তাই না। কোনো একটি কেজ বা খাঁচার মধ্যে জাপানের ভীষণ এক সুন্দরী। তিনি সামান্য এক টুকরো অন্তর্বাস পরে আছেন। বাইরে বাজছে উচ্চ শব্দে মিউজিক। বিভিন্ন স্থান থেকে এ ক্লাবে যোগ দেয়া যুগলরা তখন বেশির ভাগই আনড্রেস বা বিবস্ত্র। আটকে যাচ্ছেন একের মধ্যে অন্যজন। তাদের মাঝে এমন সময় সৃষ্টি হয় এক অবাধ কামাতুরতা। তাতে বাধা নেই কোনো। আশপাশেই আছে বিশেষ সব রুম। সেখানে ভালবাসায় মত্ত কোনো যুবক-যুবতী। ইউরোপে রগরগে এমন পার্টির সবচেয়ে বড় উৎসবের নাম টর্চার গার্ডেন। লন্ডনে প্রতি মাসে এ উৎসব আয়োজন করা হয়। আর এডিনবার্গে আয়োজন করা হয় বছরে তিনবার। এ খবর দিয়েছে অনলাইন দ্য সান। এ উৎসবে যোগ দেয়া যুবতীর কাছে পাণি প্রার্থনা করতে পারে যেকোনো যুবক। জুটেও যেতে পারে তা। তারপর ভিতরে চলতে থাকে তাদের বাধাহীন সম্পর্ক। এ উৎসবে ১৫ বছর ধরে যোগ দেন এমন একজন দক্ষিণ-পূর্ব লন্ডনের। তিনি বলেছেন, টর্চার গার্ডেন ভীষণ ভাল একটি উদ্যোগ। এখানে আপনি নাচতে পারবেন। গর্জিয়াস মানুষগুলোর সঙ্গে কিছু সময়ের জন্য নষ্টামিতে ডুবে যেতে পারবেন। আবেশ সৃষ্টিকারী লোকজনের সঙ্গে মিশে যেতে পারবেন। আরেক যুগল বলেছেন, তারা ২০ বছর যাবত বিবাহিত। তাদের ভাষায়, আমাদের যৌন জীবন আরো আনন্দময় হয়ে উঠেছে। উল্লেখ্য, ১৬ বছর ধরে এমন উৎসব আয়োজন হয়ে আসছে জাপান, মস্কো, নেপলস, রোম ও বার্লিনে।

Comments

Comments!

 বাধাহীন যৌনাচারের উৎসবAmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

বাধাহীন যৌনাচারের উৎসব

Saturday, July 15, 2017 10:22 pm
73396_orl

লন্ডনের টর্চার গার্ডেন। একটি ক্লাবের নাম। প্রাপ্ত বয়স্কদের ক্লাব। এখানে রাতের আলোয় জমে ওঠে উন্মত্ততা। অবাধ যৌনাচার থেকে শুরু করে এমন কিছু নেই, যা সেখানে হয় না। আছে টপলেস সুন্দরী রমনীদের উত্তাল নাচ। আছে পোল ড্যান্স। তাতে বিবস্ত্রপ্রায় যুবতীর অঙ্গভঙ্গি, চাহনি, আকুতি পাগল করে তোলে পুরুষের হৃদয়। আলো আঁধারিতে তখন মঞ্চের বাইরে অন্য দৃশ্য। কোথাও বা স্বল্পবসনা এক নারীর গলায় রশির মতো একটা কিছু লাগিয়ে টেনে নিয়ে যাচ্ছে বাঘের মতো ক্ষিপ্রতায় দু’পুরুষ। আর বলছে আমরা তোমাকে ভালবাসি। তাই না। কোনো একটি কেজ বা খাঁচার মধ্যে জাপানের ভীষণ এক সুন্দরী। তিনি সামান্য এক টুকরো অন্তর্বাস পরে আছেন। বাইরে বাজছে উচ্চ শব্দে মিউজিক। বিভিন্ন স্থান থেকে এ ক্লাবে যোগ দেয়া যুগলরা তখন বেশির ভাগই আনড্রেস বা বিবস্ত্র। আটকে যাচ্ছেন একের মধ্যে অন্যজন। তাদের মাঝে এমন সময় সৃষ্টি হয় এক অবাধ কামাতুরতা। তাতে বাধা নেই কোনো। আশপাশেই আছে বিশেষ সব রুম। সেখানে ভালবাসায় মত্ত কোনো যুবক-যুবতী। ইউরোপে রগরগে এমন পার্টির সবচেয়ে বড় উৎসবের নাম টর্চার গার্ডেন। লন্ডনে প্রতি মাসে এ উৎসব আয়োজন করা হয়। আর এডিনবার্গে আয়োজন করা হয় বছরে তিনবার। এ খবর দিয়েছে অনলাইন দ্য সান। এ উৎসবে যোগ দেয়া যুবতীর কাছে পাণি প্রার্থনা করতে পারে যেকোনো যুবক। জুটেও যেতে পারে তা। তারপর ভিতরে চলতে থাকে তাদের বাধাহীন সম্পর্ক। এ উৎসবে ১৫ বছর ধরে যোগ দেন এমন একজন দক্ষিণ-পূর্ব লন্ডনের। তিনি বলেছেন, টর্চার গার্ডেন ভীষণ ভাল একটি উদ্যোগ। এখানে আপনি নাচতে পারবেন। গর্জিয়াস মানুষগুলোর সঙ্গে কিছু সময়ের জন্য নষ্টামিতে ডুবে যেতে পারবেন। আবেশ সৃষ্টিকারী লোকজনের সঙ্গে মিশে যেতে পারবেন। আরেক যুগল বলেছেন, তারা ২০ বছর যাবত বিবাহিত। তাদের ভাষায়, আমাদের যৌন জীবন আরো আনন্দময় হয়ে উঠেছে। উল্লেখ্য, ১৬ বছর ধরে এমন উৎসব আয়োজন হয়ে আসছে জাপান, মস্কো, নেপলস, রোম ও বার্লিনে।

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X