বৃহস্পতিবার, ২২শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং, ১০ই ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, দুপুর ২:৫২
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Friday, December 23, 2016 12:13 am
A- A A+ Print

বাবুল আক্তারকে সন্দেহ করেন না মিতুর বাবা

babul11482407494-1

মাহমুদা খানম মিতু হত্যাকাণ্ডে তার স্বামী বাবুল আক্তারকে কোনো ধরনের সন্দেহ করেন না বলে জানিয়েছেন মিতুর বাবা মোশাররফ হোসেন। বৃহস্পতিবার দুপুরে চট্টগ্রাম নগরীর লালদিঘীর পাড়স্থ গোয়েন্দা পুলিশের সদর দপ্তরের সামনে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এই কথা জানান। এর আগে সকালে মোশাররফ হোসেনকে ডাকেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা গোয়েন্দা পুলিশের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার মো. কামরুজ্জামান। এ সময় মোশাররফ হোসেনের সঙ্গে সাড়ে তিন ঘণ্টার বেশি সময় কথা বলেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা। মোশাররফ হোসেন বলেন, আমি বাবুল আক্তারকে সন্দেহ করি না। পুলিশ যদি সন্দেহ করে থাকে তবে তারা তদন্ত করে দেখুক। সাংবাদিকদের কাছেও যদি কোনো তথ্য প্রমাণ থাকে তবে তারাও সেটা উপস্থাপন করুক। শুধু বাবুল নয় অন্য যে কারো সম্পৃক্ততা থাকলে পুলিশ সেটা তদন্ত করে বের করুক। এ সময় তিনি মিতু হত্যাকাণ্ডের সুষ্ঠু বিচার দাবি করেন। মামলার তদন্ত কর্মকর্তা গোয়েন্দা পুলিশের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার মো. কামরুজ্জামান মিতুর বাবার সঙ্গে কথা বলার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, আমরা ওনার সঙ্গে কথা বলেছি। মিতু হত্যাকাণ্ডের বিভিন্ন বিষয় নিয়ে কথা হয়েছে। মিতুর বাবা গোয়েন্দা পুলিশকে সহায়তা করেছেন। এর আগে গত ১৫ ডিসেম্বর মামলার বাদী প্রাক্তন পুলিশ সুপার বাবুল আক্তারকে গোয়েন্দা কার্যালয়ে ডেকে এনে প্রায় তিন ঘণ্টা জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। মামলার তদন্ত শেষ করতে এবং শিগগিরই এই চাঞ্চল্যকর মামলার চার্জশিট দাখিল করার লক্ষ্যে মোশাররফ হোসেনকে ডাকেন বলে জানান কামরুজ্জামান। উল্লেখ্য, গত ৫ জুন সকালে চট্টগ্রাম মহানগরীর জিইসি মোড় এলাকায় ছেলেকে স্কুলবাসে তুলে দিতে যাওয়ার সময় নিজ বাসার কাছেই দুর্বৃত্তদের গুলিতে এবং ছুরিকাঘাতে নিহত হন তৎকালীন আলোচিত পুলিশ কর্মকর্তা বাবুল আক্তারের স্ত্রী মাহমুদা খানম মিতু। এই হত্যাকাণ্ডের পর বাবুল আক্তার বাদী হয়ে নগরীর পাঁচলাইশ থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন। স্ত্রী হত্যাকাণ্ডের পর বিভিন্ন ঘটনাক্রমে বাবুল আক্তার এখন আর পুলিশের চাকরিতে নেই।    

Comments

Comments!

 বাবুল আক্তারকে সন্দেহ করেন না মিতুর বাবাAmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

বাবুল আক্তারকে সন্দেহ করেন না মিতুর বাবা

Friday, December 23, 2016 12:13 am
babul11482407494-1

মাহমুদা খানম মিতু হত্যাকাণ্ডে তার স্বামী বাবুল আক্তারকে কোনো ধরনের সন্দেহ করেন না বলে জানিয়েছেন মিতুর বাবা মোশাররফ হোসেন।

বৃহস্পতিবার দুপুরে চট্টগ্রাম নগরীর লালদিঘীর পাড়স্থ গোয়েন্দা পুলিশের সদর দপ্তরের সামনে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এই কথা জানান।

এর আগে সকালে মোশাররফ হোসেনকে ডাকেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা গোয়েন্দা পুলিশের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার মো. কামরুজ্জামান। এ সময় মোশাররফ হোসেনের সঙ্গে সাড়ে তিন ঘণ্টার বেশি সময় কথা বলেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা।

মোশাররফ হোসেন বলেন, আমি বাবুল আক্তারকে সন্দেহ করি না। পুলিশ যদি সন্দেহ করে থাকে তবে তারা তদন্ত করে দেখুক। সাংবাদিকদের কাছেও যদি কোনো তথ্য প্রমাণ থাকে তবে তারাও সেটা উপস্থাপন করুক। শুধু বাবুল নয় অন্য যে কারো সম্পৃক্ততা থাকলে পুলিশ সেটা তদন্ত করে বের করুক। এ সময় তিনি মিতু হত্যাকাণ্ডের সুষ্ঠু বিচার দাবি করেন।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা গোয়েন্দা পুলিশের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার মো. কামরুজ্জামান মিতুর বাবার সঙ্গে কথা বলার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, আমরা ওনার সঙ্গে কথা বলেছি। মিতু হত্যাকাণ্ডের বিভিন্ন বিষয় নিয়ে কথা হয়েছে। মিতুর বাবা গোয়েন্দা পুলিশকে সহায়তা করেছেন।

এর আগে গত ১৫ ডিসেম্বর মামলার বাদী প্রাক্তন পুলিশ সুপার বাবুল আক্তারকে গোয়েন্দা কার্যালয়ে ডেকে এনে প্রায় তিন ঘণ্টা জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। মামলার তদন্ত শেষ করতে এবং শিগগিরই এই চাঞ্চল্যকর মামলার চার্জশিট দাখিল করার লক্ষ্যে মোশাররফ হোসেনকে ডাকেন বলে জানান কামরুজ্জামান।

উল্লেখ্য, গত ৫ জুন সকালে চট্টগ্রাম মহানগরীর জিইসি মোড় এলাকায় ছেলেকে স্কুলবাসে তুলে দিতে যাওয়ার সময় নিজ বাসার কাছেই দুর্বৃত্তদের গুলিতে এবং ছুরিকাঘাতে নিহত হন তৎকালীন আলোচিত পুলিশ কর্মকর্তা বাবুল আক্তারের স্ত্রী মাহমুদা খানম মিতু। এই হত্যাকাণ্ডের পর বাবুল আক্তার বাদী হয়ে নগরীর পাঁচলাইশ থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন। স্ত্রী হত্যাকাণ্ডের পর বিভিন্ন ঘটনাক্রমে বাবুল আক্তার এখন আর পুলিশের চাকরিতে নেই।

 

 

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X