শুক্রবার, ২৩শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং, ১১ই ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, বিকাল ৪:১৪
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Thursday, October 27, 2016 8:19 am
A- A A+ Print

বিএনপি নেতার সাথে হিলারি ঘনিষ্ঠ আলাপের ছবি

253445_1

সামাজিক মাধ্যমে কয়েকটি ছবি  বুধবার ভাইরাল হয়েছে। ছবিগুলোতে দেখা যাচ্ছে, মার্কিন প্রেসিডেন্ট প্রার্থী এবং সম্ভাব্য প্রেসিডেন্ট হিলারি ক্লিনটনের সাথে বেশ ঘনিষ্ঠভাবে দাঁড়িয়ে হাসিমুখে কথা বলছেন বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান এবং বিএনপিপন্থী সাংবাদিকদের সংগঠন বিএফইউজের সভাপতি শওকত মাহমুদ। হিলারি সাথে দাঁড়িয়ে আছেন স্বামী বিল ক্লিনটন। তিনিও শওকতের সাথে হিলারির আলাপ মনোযোগ দিয়ে শুনছিলেন। অনুষ্ঠানটি ছিল হিলারির মূলত নির্বাচনী ক্যাম্পেইনের। যদিও দৃশ্যমান উপলক্ষ্য ছিল তার জন্মদিন। সেখানে শ’ দুয়েক লোকজন উপস্থিত ছিলেন। তাদের মধ্যে বিএনপির একজন নেতার কথা শোনার জন্য সময় দেয়া বেশ অন্যরকম ঘটনা! বিশেষ করে বিএনপির ওই নেতা যখন তার দলের চেয়ারপার্সন এবং ভাইস চেয়ারম্যানের পক্ষ থেকে জন্মদিনের শুভেচ্ছা জানাচ্ছেন সেটা গ্রহণ করার সুযোগ দেয়ার তাৎপর্য রয়েছে বলে অনেকে মনে করছেন। ঢাকায় এমনিতেই হিলারির নির্বাচিত হওয়ার সম্ভাব্যতায় কেমন জানি হাওয়া বয়ে যাচ্ছে। শেখ হাসিনার নিপীড়নের শিকার ড. ইউনুসের ঘনিষ্ঠ বন্ধু বিল ক্লিন্টনের স্ত্রীর ক্ষমতায় আসাকে কোনোভাবেই মেনে নিতে পারছেন ঢাকার ক্ষমতাসীনরা। তার সাথে যোগ হয়েছে গত কয়েক বছরে ওয়াশিংটনের সাথের শীতল সম্পর্ক। জঙ্গিবাদের উত্থানের কারণে কিছুটা সেই শীতলতা কমলেও উল্লেখযোগ্য অগ্রগতি নেই। আবার বাংলাদেশে একটা সুষ্ঠু নির্বাচনের প্রয়োজনীয়তা প্রায়ই উল্লেখ করছেন মার্কিন কর্মকর্তারা। এদিকে গত কয়দিন আগে ঢাকায় সফররত এক মার্কিন কর্মকর্তার কাজেকর্মে ঢাকা বেশ ক্ষুব্ধ। ওই কর্মকর্তা নিরাপত্তা সংলাপ উপলক্ষে ঢাকা সফরে এসে বাংলাদেশের পরবর্তী নির্বাচনের বিষয়ে কিছু সুপারিশ করেন। বাংলাদেশের আগামী সংসদ নির্বাচনে সব রাজনৈতিক দলের অংশগ্রহণ যুক্তরাষ্ট্র দেখতে চায় জানিয়ে দেশটির গণতন্ত্র, মানবাধিকার ও শ্রমবিষয়ক ডেপুটি অ্যাসিস্টেন্ট সেক্রেটারি বরার্ট বারশিনস্কি বলেন, রাজনৈতিক দলগুলো যাতে নির্বাচনী প্রক্রিয়ায় স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করে এমন পরিবেশ তৈরি করতে হবে। দেশের জনগণ যাতে সত্যিকার অর্থে পছন্দ অনুযায়ী ভোট দিতে পারে, সেই ব্যবস্থাও নিশ্চিত করতে হবে। নির্বাচনে সব দলের সমান সুযোগ (লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড) নিশ্চিত করার তাগিদও দেন ওই কর্মকর্তা। সংলাপ শেষে ঢাকা ছেড়ে যাওয়ার আগে গণমাধ্যমের সঙ্গে আলাপে তিনি যুক্তরাষ্ট্রের আকাঙক্ষার বিষয়টি স্পষ্ট করেন। কিন্তু আচমকা নির্বাচন নিয়ে মার্কিন কর্মকর্তার ওই মন্তব্য বা সুপারিশ বিশেষত নিরাপত্তা সংলাপের বাইরে আলাদাভাবে গণমাধ্যমকে ডেকে এটি বলাকে সহজভাবে নেনটি সেগুনবাগিচার কর্মকর্তারা। অবশ্য তাদের সেই অসন্তোষের কথা তৎক্ষণাৎ ঢাকাস্থ মার্কিন দূতাবাসের উচ্চপর্যায়ের নজরে আনা হয়। সেগুনবাগিচার এক কর্মকর্তা এ প্রসঙ্গে বলেন, নির্বাচন নিয়ে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সুপারিশ থাকতেই পারে। কিন্তু সেটি উপযুক্ত ফোরামে বলাই কাম্য। তা না করে বাইরে বলা হলে সেখানে বিভ্রান্তির অবকাশ থাকে। এতে রাজনৈতিক পর্র্যায়েও প্রতিক্রিয়া হয়, যা কূটনীতিকদের আওতায় থাকে না। সেই বিষয়টিই দূতাবাসের নজরে আনা হয়েছে। এমন ক্ষুব্ধ ভাবটি মিলিয়ে যেতে না যেতেই হাসিমুখে হিলারি-শওকতের ঘনিষ্ঠ আলাপের ছবিগুলো বাংলাদেশের পররাষ্ট্র মন্ত্রনালয়ের কর্তাদের বুকের ধুঁকধুকানি যেন আরো বাড়িয়ে দিল! ধারণা করা যায়, অতিসত্ত্বর এর পাল্টা হিসেবে আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে হিলারি ঘনিষ্ট হয়ে আলাপের সুযোগ নেয়ার জন্য তোড়জোড় শুরু করবে বাংলাদেশের ক্ষমতাসীন পার্টি।

Comments

Comments!

 বিএনপি নেতার সাথে হিলারি ঘনিষ্ঠ আলাপের ছবিAmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

বিএনপি নেতার সাথে হিলারি ঘনিষ্ঠ আলাপের ছবি

Thursday, October 27, 2016 8:19 am
253445_1

সামাজিক মাধ্যমে কয়েকটি ছবি  বুধবার ভাইরাল হয়েছে। ছবিগুলোতে দেখা যাচ্ছে, মার্কিন প্রেসিডেন্ট প্রার্থী এবং সম্ভাব্য প্রেসিডেন্ট হিলারি ক্লিনটনের সাথে বেশ ঘনিষ্ঠভাবে দাঁড়িয়ে হাসিমুখে কথা বলছেন বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান এবং বিএনপিপন্থী সাংবাদিকদের সংগঠন বিএফইউজের সভাপতি শওকত মাহমুদ। হিলারি সাথে দাঁড়িয়ে আছেন স্বামী বিল ক্লিনটন। তিনিও শওকতের সাথে হিলারির আলাপ মনোযোগ দিয়ে শুনছিলেন।

অনুষ্ঠানটি ছিল হিলারির মূলত নির্বাচনী ক্যাম্পেইনের। যদিও দৃশ্যমান উপলক্ষ্য ছিল তার জন্মদিন। সেখানে শ’ দুয়েক লোকজন উপস্থিত ছিলেন। তাদের মধ্যে বিএনপির একজন নেতার কথা শোনার জন্য সময় দেয়া বেশ অন্যরকম ঘটনা! বিশেষ করে বিএনপির ওই নেতা যখন তার দলের চেয়ারপার্সন এবং ভাইস চেয়ারম্যানের পক্ষ থেকে জন্মদিনের শুভেচ্ছা জানাচ্ছেন সেটা গ্রহণ করার সুযোগ দেয়ার তাৎপর্য রয়েছে বলে অনেকে মনে করছেন।

ঢাকায় এমনিতেই হিলারির নির্বাচিত হওয়ার সম্ভাব্যতায় কেমন জানি হাওয়া বয়ে যাচ্ছে। শেখ হাসিনার নিপীড়নের শিকার ড. ইউনুসের ঘনিষ্ঠ বন্ধু বিল ক্লিন্টনের স্ত্রীর ক্ষমতায় আসাকে কোনোভাবেই মেনে নিতে পারছেন ঢাকার ক্ষমতাসীনরা।

তার সাথে যোগ হয়েছে গত কয়েক বছরে ওয়াশিংটনের সাথের শীতল সম্পর্ক। জঙ্গিবাদের উত্থানের কারণে কিছুটা সেই শীতলতা কমলেও উল্লেখযোগ্য অগ্রগতি নেই। আবার বাংলাদেশে একটা সুষ্ঠু নির্বাচনের প্রয়োজনীয়তা প্রায়ই উল্লেখ করছেন মার্কিন কর্মকর্তারা।

এদিকে গত কয়দিন আগে ঢাকায় সফররত এক মার্কিন কর্মকর্তার কাজেকর্মে ঢাকা বেশ ক্ষুব্ধ। ওই কর্মকর্তা নিরাপত্তা সংলাপ উপলক্ষে ঢাকা সফরে এসে বাংলাদেশের পরবর্তী নির্বাচনের বিষয়ে কিছু সুপারিশ করেন।

বাংলাদেশের আগামী সংসদ নির্বাচনে সব রাজনৈতিক দলের অংশগ্রহণ যুক্তরাষ্ট্র দেখতে চায় জানিয়ে দেশটির গণতন্ত্র, মানবাধিকার ও শ্রমবিষয়ক ডেপুটি অ্যাসিস্টেন্ট সেক্রেটারি বরার্ট বারশিনস্কি বলেন, রাজনৈতিক দলগুলো যাতে নির্বাচনী প্রক্রিয়ায় স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করে এমন পরিবেশ তৈরি করতে হবে। দেশের জনগণ যাতে সত্যিকার অর্থে পছন্দ অনুযায়ী ভোট দিতে পারে, সেই ব্যবস্থাও নিশ্চিত করতে হবে। নির্বাচনে সব দলের সমান সুযোগ (লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড) নিশ্চিত করার তাগিদও দেন ওই কর্মকর্তা।

সংলাপ শেষে ঢাকা ছেড়ে যাওয়ার আগে গণমাধ্যমের সঙ্গে আলাপে তিনি যুক্তরাষ্ট্রের আকাঙক্ষার বিষয়টি স্পষ্ট করেন।

কিন্তু আচমকা নির্বাচন নিয়ে মার্কিন কর্মকর্তার ওই মন্তব্য বা সুপারিশ বিশেষত নিরাপত্তা সংলাপের বাইরে আলাদাভাবে গণমাধ্যমকে ডেকে এটি বলাকে সহজভাবে নেনটি সেগুনবাগিচার কর্মকর্তারা।

অবশ্য তাদের সেই অসন্তোষের কথা তৎক্ষণাৎ ঢাকাস্থ মার্কিন দূতাবাসের উচ্চপর্যায়ের নজরে আনা হয়। সেগুনবাগিচার এক কর্মকর্তা এ প্রসঙ্গে বলেন, নির্বাচন নিয়ে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সুপারিশ থাকতেই পারে। কিন্তু সেটি উপযুক্ত ফোরামে বলাই কাম্য। তা না করে বাইরে বলা হলে সেখানে বিভ্রান্তির অবকাশ থাকে। এতে রাজনৈতিক পর্র্যায়েও প্রতিক্রিয়া হয়, যা কূটনীতিকদের আওতায় থাকে না। সেই বিষয়টিই দূতাবাসের নজরে আনা হয়েছে।

এমন ক্ষুব্ধ ভাবটি মিলিয়ে যেতে না যেতেই হাসিমুখে হিলারি-শওকতের ঘনিষ্ঠ আলাপের ছবিগুলো বাংলাদেশের পররাষ্ট্র মন্ত্রনালয়ের কর্তাদের বুকের ধুঁকধুকানি যেন আরো বাড়িয়ে দিল! ধারণা করা যায়, অতিসত্ত্বর এর পাল্টা হিসেবে আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে হিলারি ঘনিষ্ট হয়ে আলাপের সুযোগ নেয়ার জন্য তোড়জোড় শুরু করবে বাংলাদেশের ক্ষমতাসীন পার্টি।

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X