শুক্রবার, ১৫ই ডিসেম্বর, ২০১৭ ইং, ১লা পৌষ, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, সকাল ৮:২২
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Saturday, August 12, 2017 10:41 pm
A- A A+ Print

বিচারপতি খায়রুল হকের বিচার হওয়া উচিত: জাফরুল্লাহ চৌধুরী

179864_1

ঢাকা: মহান মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক ও গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেন, সাবেক প্রধান বিচারপতি খায়রুল হক ষোড়শ সংশোধনী বাতিলের রায় নিয়ে যেসব কথা বলছেন তা আদালত অবমাননাকর। এ জন্য খায়রুল হকের বিরুদ্ধে এখনই কিছু করা দরকার। তাকে বিচারের আওতায় আনা দরকার। তিনি বলেন, আদালত অবমাননার জন্য আমাকে শাস্তি পেতে হয়েছে। আমি আদালত অবমাননা করিনি। অবমাননা করেছেন বিচারপতি খায়রুল হক, বিচারপতি শামসুদ্দিন চৌধুরী মানিক, অর্থমন্ত্রী। তাদেরও বিচার হওয়া দরকার। আইনের শাসন নিশ্চিত করতে দেশে একটি স্বাধীন কমিশন গঠন করা দরকার। শনিবার বিকেলে রাজধানীর সেগুনবাগিচায় ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে (ডিআরইউ) এক আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন। ‘আইনের শাসন ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর ভূমিকা’ শীর্ষক এ আলোচনা সভার আযোজন করে মৌলিক অধিকার সুরক্ষা কমিটি নামে একটি সংগঠন। আলোচনায় অংশগ্রহণ করেন গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক ড. জাফরুল্লাহ চৌধুরী, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের শিক্ষক ড. আসিফ নজরুল, রিদওয়ানুল হক, অপরাধ বিজ্ঞানী প্রফেসর ডা. মোজাহেরুল হক প্রমুখ। আলোচনা সভা পরিচালনা করেন বাংলাদেশ সুপ্রিমকোর্টের আইনজীবী ব্যারিস্টার জ্যোতির্ময় বড়ুয়া। আসিফ নজরুল বলেন, বিচারপতি খায়রুল হক ষোড়শ সংশোধনী বাতিলের রায় পূর্বপরিকল্পিত বলছেন। এটি জাতির সঙ্গে প্রতারণা। আদালত অবমাননার শামিল। এ জন্য খায়রুল হকের বিচার হওয়া উচিত। তিনি বলেন, যদি ষোড়শ সংশোধনী পূর্বপরিকল্পিত হয় তাহলে তত্ত্বাবধায়ক সরকার নিয়ে খায়রুল হকের দেয়া ত্রয়োদশ সংশোধনী কী ছিল। ত্রয়োদশ সংশোধনীর আংশিক রায়ের ১৬ মাস পর সেই রায়ের কপিতে তিনি সই করেন। বিচারপতি খায়রুল হক যে সমস্ত কাজ করেছেন তার অনেক কিছুই সাংঘর্ষিক। অপরাধ বিজ্ঞানী প্রফেসর ডা. মোজাহেরুল হক বলেন, আইনশৃঙ্খলারক্ষাকারী বাহিনী যত সাইন্সের ব্যবহার বাড়াবে তত অপরাধ কমে যাবে। হাতের ছোয়া, থুথু, শব্দসহ বিভিন্ন বিষয়ের মাধ্যমে একজন অপরাধীকে চিহ্নিত করা সম্ভব। এ ক্ষেত্রে আমরা অনেক পিছিয়ে। এজন্য বিচারক, আইনজীবী ও আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সংশ্লিষ্ট সদস্যদের প্রশিক্ষণ দেয়া প্রয়োজন।
 

Comments

Comments!

 বিচারপতি খায়রুল হকের বিচার হওয়া উচিত: জাফরুল্লাহ চৌধুরীAmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

বিচারপতি খায়রুল হকের বিচার হওয়া উচিত: জাফরুল্লাহ চৌধুরী

Saturday, August 12, 2017 10:41 pm
179864_1

ঢাকা: মহান মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক ও গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেন, সাবেক প্রধান বিচারপতি খায়রুল হক ষোড়শ সংশোধনী বাতিলের রায় নিয়ে যেসব কথা বলছেন তা আদালত অবমাননাকর। এ জন্য খায়রুল হকের বিরুদ্ধে এখনই কিছু করা দরকার। তাকে বিচারের আওতায় আনা দরকার।

তিনি বলেন, আদালত অবমাননার জন্য আমাকে শাস্তি পেতে হয়েছে। আমি আদালত অবমাননা করিনি। অবমাননা করেছেন বিচারপতি খায়রুল হক, বিচারপতি শামসুদ্দিন চৌধুরী মানিক, অর্থমন্ত্রী। তাদেরও বিচার হওয়া দরকার। আইনের শাসন নিশ্চিত করতে দেশে একটি স্বাধীন কমিশন গঠন করা দরকার।

শনিবার বিকেলে রাজধানীর সেগুনবাগিচায় ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে (ডিআরইউ) এক আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

‘আইনের শাসন ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর ভূমিকা’ শীর্ষক এ আলোচনা সভার আযোজন করে মৌলিক অধিকার সুরক্ষা কমিটি নামে একটি সংগঠন।

আলোচনায় অংশগ্রহণ করেন গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক ড. জাফরুল্লাহ চৌধুরী, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের শিক্ষক ড. আসিফ নজরুল, রিদওয়ানুল হক, অপরাধ বিজ্ঞানী প্রফেসর ডা. মোজাহেরুল হক প্রমুখ।

আলোচনা সভা পরিচালনা করেন বাংলাদেশ সুপ্রিমকোর্টের আইনজীবী ব্যারিস্টার জ্যোতির্ময় বড়ুয়া।

আসিফ নজরুল বলেন, বিচারপতি খায়রুল হক ষোড়শ সংশোধনী বাতিলের রায় পূর্বপরিকল্পিত বলছেন। এটি জাতির সঙ্গে প্রতারণা। আদালত অবমাননার শামিল। এ জন্য খায়রুল হকের বিচার হওয়া উচিত।

তিনি বলেন, যদি ষোড়শ সংশোধনী পূর্বপরিকল্পিত হয় তাহলে তত্ত্বাবধায়ক সরকার নিয়ে খায়রুল হকের দেয়া ত্রয়োদশ সংশোধনী কী ছিল। ত্রয়োদশ সংশোধনীর আংশিক রায়ের ১৬ মাস পর সেই রায়ের কপিতে তিনি সই করেন। বিচারপতি খায়রুল হক যে সমস্ত কাজ করেছেন তার অনেক কিছুই সাংঘর্ষিক।

অপরাধ বিজ্ঞানী প্রফেসর ডা. মোজাহেরুল হক বলেন, আইনশৃঙ্খলারক্ষাকারী বাহিনী যত সাইন্সের ব্যবহার বাড়াবে তত অপরাধ কমে যাবে। হাতের ছোয়া, থুথু, শব্দসহ বিভিন্ন বিষয়ের মাধ্যমে একজন অপরাধীকে চিহ্নিত করা সম্ভব। এ ক্ষেত্রে আমরা অনেক পিছিয়ে। এজন্য বিচারক, আইনজীবী ও আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সংশ্লিষ্ট সদস্যদের প্রশিক্ষণ দেয়া প্রয়োজন।

 

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X