বুধবার, ২১শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং, ৯ই ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, রাত ৩:২২
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Sunday, September 17, 2017 7:36 pm
A- A A+ Print

বৃষ্টিতে বেড়েছে রোহিঙ্গা শরণার্থীদের দুর্ভোগ

12

প্রাণ বাঁচাতে সীমান্ত অতিক্রম করে বাংলাদেশে পালিয়ে আসা রোহিঙ্গারা শুধু খাবার সংকট নয়, টানা বৃষ্টিতে বেড়েছে তাদের দুর্ভোগও। খোলা আকাশের নিচে টানা বৃষ্টিতে তাদের জীবন দুর্বিষহ হয়ে পড়েছে। সবচেয়ে খারাপ অবস্থার মধ্যে রয়েছেন বয়স্ক ও শিশু শরণার্থীরা। বৃষ্টিতে খাবার পানি ও ত্রাণ নিতে চরম দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে তাদের। একমুঠো খাবারের জন্য রোহিঙ্গা শিশুদের হাহাকার আর কান্নার রোল দেখা যায় রোহিঙ্গা ক্যাম্পে। রোববার সকালে কক্সবাজারের উখিয়ার কুতুপালং ও বালুখাল ক্যাম্প পরিদর্শন করে এমন চিত্রই চোখে পড়ে। স্থানীয়দের মতে,  একদিকে নিরাপত্তা, অন্যদিকে বৃষ্টির বাগড়ায় রোহিঙ্গারা মানসিকভাবে ভেঙে পড়েছেন। সবচেয়ে ভয়াবহ সমস্যা হল তাদের পানীর ও চিকিৎসার ব্যবস্থা করা। পালিয়ে আসা নারী, শিশু ও বৃদ্ধরা রাত কাটাচ্ছেন আশ্রয় কেন্দ্রের বাইরে খোলা আকাশের নিচে। কিন্তু বৃষ্টির কারণে বিপাকে পড়েছেন তারা। এ অবস্থায় তাঁবু বা গাছের নিচে আশ্রয় নিয়েছেন তারা। এদিকে উত্তর বঙ্গোপসাগর এলাকায় গভীর সঞ্চালনশীল মেঘমালার সৃষ্টি হয়েছে। এতে উত্তর বঙ্গোপসাগর ও বাংলাদেশের উপকূলীয় এলাকার ওপর দিয়ে ঝড়ো হাওয়া বয়ে যেতে পারে। এ সময় দেশের সমুদ্রবন্দরগুলোতে ৩ নম্বর সতর্কতা সংকেত দেখিয়ে যেতে বলা হয়েছে। আবহাওয়ার পূর্বাভাসে কক্সবাজার, মোংলা ও পায়রা সমুদ্রবন্দরসমূহকে ৩ নম্বর স্থানীয় সতর্কতা সংকেত দেখিয়ে যেতে বলা হয়েছে। উত্তর বঙ্গোপসাগরে অবস্থানরত মাছ ধরার নৌকা ও ট্রলারসমূহকে পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত উপকূলের কাছাকাছি এসে সাবধানে চলাচল করতে বলা হয়েছে। আবহাওয়াবিদ হাফিজুর রহমান রোববার সকাল ৯টা থেকে পরবর্তী ২৪ ঘণ্টা পর্যন্ত আবহাওয়ার পূর্বাভাসের বিষয়ে বলেন, খুলনা, বরিশাল ও চট্টগ্রাম বিভাগের অধিকাংশ জায়গায় এবং রাজশাহী, রংপুর, ময়মনসিংহ, ঢাকা ও সিলেট বিভাগের অনেক জায়গায় অস্থায়ী দমকা হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি অথবা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। সেই সঙ্গে দেশের কোথাও কোথাও মাঝারি থেকে ভারী অথবা অতিভারী বর্ষণ হতে পারে। জাতিসংঘ শরণার্থী সংস্থা ইউএনএইচসিআর কর্মকর্তা ভিভিয়েন ট্যান বলছেন,  গত ২৫ আগস্ট থেকে মিয়ানমারে সেনাবাহিনীর অভিযানের মুখে চার লাখেরও বেশি শরণার্থী বাংলাদেশে আশ্রয় নিয়েছে। এর আগে বাংলাদেশে ৫ লাখের বেশি রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীর মানুষ আশ্রয় নিয়েছিল।

Comments

Comments!

 বৃষ্টিতে বেড়েছে রোহিঙ্গা শরণার্থীদের দুর্ভোগAmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

বৃষ্টিতে বেড়েছে রোহিঙ্গা শরণার্থীদের দুর্ভোগ

Sunday, September 17, 2017 7:36 pm
12

প্রাণ বাঁচাতে সীমান্ত অতিক্রম করে বাংলাদেশে পালিয়ে আসা রোহিঙ্গারা শুধু খাবার সংকট নয়, টানা বৃষ্টিতে বেড়েছে তাদের দুর্ভোগও। খোলা আকাশের নিচে টানা বৃষ্টিতে তাদের জীবন দুর্বিষহ হয়ে পড়েছে। সবচেয়ে খারাপ অবস্থার মধ্যে রয়েছেন বয়স্ক ও শিশু শরণার্থীরা।

বৃষ্টিতে খাবার পানি ও ত্রাণ নিতে চরম দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে তাদের। একমুঠো খাবারের জন্য রোহিঙ্গা শিশুদের হাহাকার আর কান্নার রোল দেখা যায় রোহিঙ্গা ক্যাম্পে।

রোববার সকালে কক্সবাজারের উখিয়ার কুতুপালং ও বালুখাল ক্যাম্প পরিদর্শন করে এমন চিত্রই চোখে পড়ে।

স্থানীয়দের মতে,  একদিকে নিরাপত্তা, অন্যদিকে বৃষ্টির বাগড়ায় রোহিঙ্গারা মানসিকভাবে ভেঙে পড়েছেন। সবচেয়ে ভয়াবহ সমস্যা হল তাদের পানীর ও চিকিৎসার ব্যবস্থা করা।

পালিয়ে আসা নারী, শিশু ও বৃদ্ধরা রাত কাটাচ্ছেন আশ্রয় কেন্দ্রের বাইরে খোলা আকাশের নিচে। কিন্তু বৃষ্টির কারণে বিপাকে পড়েছেন তারা। এ অবস্থায় তাঁবু বা গাছের নিচে আশ্রয় নিয়েছেন তারা।

এদিকে উত্তর বঙ্গোপসাগর এলাকায় গভীর সঞ্চালনশীল মেঘমালার সৃষ্টি হয়েছে। এতে উত্তর বঙ্গোপসাগর ও বাংলাদেশের উপকূলীয় এলাকার ওপর দিয়ে ঝড়ো হাওয়া বয়ে যেতে পারে। এ সময় দেশের সমুদ্রবন্দরগুলোতে ৩ নম্বর সতর্কতা সংকেত দেখিয়ে যেতে বলা হয়েছে।

আবহাওয়ার পূর্বাভাসে কক্সবাজার, মোংলা ও পায়রা সমুদ্রবন্দরসমূহকে ৩ নম্বর স্থানীয় সতর্কতা সংকেত দেখিয়ে যেতে বলা হয়েছে।

উত্তর বঙ্গোপসাগরে অবস্থানরত মাছ ধরার নৌকা ও ট্রলারসমূহকে পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত উপকূলের কাছাকাছি এসে সাবধানে চলাচল করতে বলা হয়েছে।

আবহাওয়াবিদ হাফিজুর রহমান রোববার সকাল ৯টা থেকে পরবর্তী ২৪ ঘণ্টা পর্যন্ত আবহাওয়ার পূর্বাভাসের বিষয়ে বলেন, খুলনা, বরিশাল ও চট্টগ্রাম বিভাগের অধিকাংশ জায়গায় এবং রাজশাহী, রংপুর, ময়মনসিংহ, ঢাকা ও সিলেট বিভাগের অনেক জায়গায়

অস্থায়ী দমকা হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি অথবা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। সেই সঙ্গে দেশের কোথাও কোথাও মাঝারি থেকে ভারী অথবা অতিভারী বর্ষণ হতে পারে।

জাতিসংঘ শরণার্থী সংস্থা ইউএনএইচসিআর কর্মকর্তা ভিভিয়েন ট্যান বলছেন,  গত ২৫ আগস্ট থেকে মিয়ানমারে সেনাবাহিনীর অভিযানের মুখে চার লাখেরও বেশি শরণার্থী বাংলাদেশে আশ্রয় নিয়েছে। এর আগে বাংলাদেশে ৫ লাখের বেশি রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীর মানুষ আশ্রয় নিয়েছিল।

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X