শনিবার, ১৬ই ডিসেম্বর, ২০১৭ ইং, ২রা পৌষ, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, সন্ধ্যা ৭:১১
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Wednesday, November 22, 2017 12:14 pm
A- A A+ Print

বৈঠকে বিএনপির সাংগঠনিক ত্রুটি তুলে ধরেছেন চেয়ারপারসনের উপদেষ্টারা

1511318597

খালেদা জিয়ার সামনে দলের সাংগঠনিক ত্রুটির বিষয়টি তুলে ধরেছেন বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টারা। দেশের বিভিন্ন এলাকায় কমিটি না থাকা, অসম্পূর্ণ কমিটি এবং অঙ্গ-সহযোগী সংগঠনগুলোর থেমে থাকা কমিটির কার্যক্রম বন্ধ থাকার বিষয়টি চেয়ারপারসনের নজরে এনেছেন তারা। মঙ্গলবার রাতে গুলশানে চেয়ারপারসনের কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত বৈঠকে খালেদা জিয়ার সামনে এসব বিষয় উত্থাপন করেন চেয়ারপারসনের উপদেষ্টারা। বৈঠক সূত্রের দাবি, নির্দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচন আদায়ের জন্য শান্তিপূর্ণভাবে গণতান্ত্রিক আন্দোলন গড়ে তুলতে জনগণের সঙ্গে সম্পর্ক নিবিড় করার নির্দেশ দিয়েছেন খালেদা জিয়া। মঙ্গলবারের বৈঠকে অংশ নেওয়া একাধিক উপদেষ্টা জানান, বৈঠকে প্রায় ১৫-২০ জন উপদেষ্টা আলোচনা করেছেন। তারা সাংগঠনিক দিক তুলে ধরার পাশাপাশি নির্বাচন নিয়েও নিজেদের অবস্থান ব্যক্ত করেন। এতে আগামী নির্বাচন কোনও দলীয় সরকারের অধীনে হবে না এবং শেখ হাসিনার অধীনে কোনও নির্বাচনে যাওয়া যাবে না; এ বিষয়ে একমত হন উপদেষ্টারা। সাবেক আইজিপি ও বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আবদুল কাইয়ূম বলেন, ‘বৈঠকে সাংগঠনিক দিক উপজীব্য করেই আলোচনা হয়েছে।’ বৈঠক সূত্র জানায়, খালেদা জিয়া তার উপদেষ্টাদের দলের সাংগঠনিক শক্তি বৃদ্ধির আহ্বান জানিয়েছেন। যেখানে কমিটি নেই কিংবা স্থগিত আছে এমন এলাকাগুলোতে বেশি বেশি যাতায়াতের পরামর্শ দেন তিনি। গুলশানে তার কার্যালয়ে রাত সাড়ে ৯টার দিকে এই বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। শেষ হয় রাত পৌনে ১২টার দিকে। বৈঠকে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর উপস্থিত ছিলেন। এদিকে, ৭৬ সদস্যের উপদেষ্টা কাউন্সিল সদস্যদের মধ্যে ৫৩ জন সদস্য উপস্থিত ছিলেন। বৈঠকে উপদেষ্টা কাউন্সিলের সদস্য হলেন- লুৎফর রহমান খান আজাদ, মেজর (অ.) কামরুল ইসলাম, সাবিহউদ্দিন আহমেদ, আমানউল্লাহ আমান, মিজানুর রহমান মিনু,  উকিল আব্দুস সাত্তার, আবুল খায়ের ভুঁইয়া, গাজী মাজহারুল আনোয়ার, আনহ আখতার হোসেন, মাজেদুল ইসলাম, জয়নুল আবদিন ফারুক, জয়নাল আবেদিন ভিপি জয়নাল, মনিরুল হক চৌধুরী, সৈয়দ মেহেদি আহমেদ রুমি, এম এ কাইয়ুম, জহুরুল ইসলাম, ইসমাইল জবিউল্লাহ, আবদুর রশিদ, হায়দার আলী, জিয়াউর রহমান খান, তাজমেরী এস ইসলাম, শাহিদা রফিক, গোলাম আকবর খন্দকার, কাজী আসাদ, কবির মুরাদ, অধ্যাপক শাহজাহান মিয়া, একরামুজ্জামান, ফজলুর রহমান, হাবিবুর রহমান হাবিব, আতাউর রহমান ঢালী, নজমুল হক নান্নু, তাহমিনা রুশদীর লুনা, এনামুল হক চৌধুরী, সিরাজুল ইসলাম, সুকোমল বড়ুয়া, বিজন কান্তি সরকার, আবদুল হক, কামরুল মুনির, বোরহান উদ্দিন, আবদুল বায়েছ ভুঁইয়া, আবদুস সালাম, শাহাজাদা মিয়া, এস এম ফজলুল হক, এম এ লতিফ, আবদুল কুদ্দুস, আবদুল মান্নান তালুকদার, ফরহাদ হালিম ডোনার, খন্দকার মুক্তাদির আহমেদ, মামুন আহমেদ, সৈয়দ শামসুল আলম, হেলালুজ্জামান তালুকদার লালু, মাহবুবুর রহমান, তৈমুর আলম খন্দকার প্রমুখ।

Comments

Comments!

 বৈঠকে বিএনপির সাংগঠনিক ত্রুটি তুলে ধরেছেন চেয়ারপারসনের উপদেষ্টারাAmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

বৈঠকে বিএনপির সাংগঠনিক ত্রুটি তুলে ধরেছেন চেয়ারপারসনের উপদেষ্টারা

Wednesday, November 22, 2017 12:14 pm
1511318597

খালেদা জিয়ার সামনে দলের সাংগঠনিক ত্রুটির বিষয়টি তুলে ধরেছেন বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টারা। দেশের বিভিন্ন এলাকায় কমিটি না থাকা, অসম্পূর্ণ কমিটি এবং অঙ্গ-সহযোগী সংগঠনগুলোর থেমে থাকা কমিটির কার্যক্রম বন্ধ থাকার বিষয়টি চেয়ারপারসনের নজরে এনেছেন তারা।

মঙ্গলবার রাতে গুলশানে চেয়ারপারসনের কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত বৈঠকে খালেদা জিয়ার সামনে এসব বিষয় উত্থাপন করেন চেয়ারপারসনের উপদেষ্টারা।

বৈঠক সূত্রের দাবি, নির্দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচন আদায়ের জন্য শান্তিপূর্ণভাবে গণতান্ত্রিক আন্দোলন গড়ে তুলতে জনগণের সঙ্গে সম্পর্ক নিবিড় করার নির্দেশ দিয়েছেন খালেদা জিয়া।

মঙ্গলবারের বৈঠকে অংশ নেওয়া একাধিক উপদেষ্টা জানান, বৈঠকে প্রায় ১৫-২০ জন উপদেষ্টা আলোচনা করেছেন। তারা সাংগঠনিক দিক তুলে ধরার পাশাপাশি নির্বাচন নিয়েও নিজেদের অবস্থান ব্যক্ত করেন। এতে আগামী নির্বাচন কোনও দলীয় সরকারের অধীনে হবে না এবং শেখ হাসিনার অধীনে কোনও নির্বাচনে যাওয়া যাবে না; এ বিষয়ে একমত হন উপদেষ্টারা।

সাবেক আইজিপি ও বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আবদুল কাইয়ূম বলেন, ‘বৈঠকে সাংগঠনিক দিক উপজীব্য করেই আলোচনা হয়েছে।’

বৈঠক সূত্র জানায়, খালেদা জিয়া তার উপদেষ্টাদের দলের সাংগঠনিক শক্তি বৃদ্ধির আহ্বান জানিয়েছেন। যেখানে কমিটি নেই কিংবা স্থগিত আছে এমন এলাকাগুলোতে বেশি বেশি যাতায়াতের পরামর্শ দেন তিনি।

গুলশানে তার কার্যালয়ে রাত সাড়ে ৯টার দিকে এই বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। শেষ হয় রাত পৌনে ১২টার দিকে। বৈঠকে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর উপস্থিত ছিলেন।

এদিকে, ৭৬ সদস্যের উপদেষ্টা কাউন্সিল সদস্যদের মধ্যে ৫৩ জন সদস্য উপস্থিত ছিলেন।
বৈঠকে উপদেষ্টা কাউন্সিলের সদস্য হলেন- লুৎফর রহমান খান আজাদ, মেজর (অ.) কামরুল ইসলাম, সাবিহউদ্দিন আহমেদ, আমানউল্লাহ আমান, মিজানুর রহমান মিনু,  উকিল আব্দুস সাত্তার, আবুল খায়ের ভুঁইয়া, গাজী মাজহারুল আনোয়ার, আনহ আখতার হোসেন, মাজেদুল ইসলাম, জয়নুল আবদিন ফারুক, জয়নাল আবেদিন ভিপি জয়নাল, মনিরুল হক চৌধুরী, সৈয়দ মেহেদি আহমেদ রুমি, এম এ কাইয়ুম, জহুরুল ইসলাম, ইসমাইল জবিউল্লাহ, আবদুর রশিদ, হায়দার আলী, জিয়াউর রহমান খান, তাজমেরী এস ইসলাম, শাহিদা রফিক, গোলাম আকবর খন্দকার, কাজী আসাদ, কবির মুরাদ, অধ্যাপক শাহজাহান মিয়া, একরামুজ্জামান, ফজলুর রহমান, হাবিবুর রহমান হাবিব, আতাউর রহমান ঢালী, নজমুল হক নান্নু, তাহমিনা রুশদীর লুনা, এনামুল হক চৌধুরী, সিরাজুল ইসলাম, সুকোমল বড়ুয়া, বিজন কান্তি সরকার, আবদুল হক, কামরুল মুনির, বোরহান উদ্দিন, আবদুল বায়েছ ভুঁইয়া, আবদুস সালাম, শাহাজাদা মিয়া, এস এম ফজলুল হক, এম এ লতিফ, আবদুল কুদ্দুস, আবদুল মান্নান তালুকদার, ফরহাদ হালিম ডোনার, খন্দকার মুক্তাদির আহমেদ, মামুন আহমেদ, সৈয়দ শামসুল আলম, হেলালুজ্জামান তালুকদার লালু, মাহবুবুর রহমান, তৈমুর আলম খন্দকার প্রমুখ।

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X