মঙ্গলবার, ২০শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং, ৮ই ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, রাত ১১:১২
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Saturday, September 30, 2017 8:32 pm
A- A A+ Print

বৈষম্যের সব দরজা ভেঙে ঢুকে গেছি: রোকেয়া হায়দার

7

‘১৯৮১ সালে ভয়েস অব আমেরিকায় যোগ দিই। সেখানেও দেখি নারী-পুরুষের মধ্যে চরম বৈষম্য। ধনী দেশে, উন্নত দেশে এ বৈষম্য আরও প্রকট। তবে আমি কোনো বাধা মানতে রাজি নই। বৈষম্যের সব দরজা ভেঙে ঢুকে গেছি।’ কথাগুলো মার্কিন রাষ্ট্রীয় বেতার ভয়েস অব আমেরিকার বাংলা বিভাগের প্রধান রোকেয়া হায়দারের। আজ শনিবার দুপুরে রাজধানীর প্রেসক্লাবে ‘শেয়ারিং মিটিং ইউথ রোকেয়া হায়দার’ শীর্ষক এক আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন। অনুষ্ঠানটির আয়োজন করেন প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক ফরিদা ইয়াসমিন। ১৯৬৯ সালে চট্টগ্রাম বেতারে স্থানীয় সংবাদ পাঠ দিয়ে শুরু। এরপর কিছুদিন রোকেয়া হায়দার বাংলাদেশ বেতার ও বাংলাদেশ টেলিভিশনে কাজ করেন। ভয়েস অব আমেরিকায় তাঁর ক্যারিয়ার ৩৬ বছরের। ২০১১ সালে তিনি বাংলা বিভাগের প্রধান হন। অনুষ্ঠানে রোকেয়া হায়দার বলেন, ‘নারী সাংবাদিকেরা শুধু নারীবিষয়ক সংবাদ কাভার করবেন কেন? তাঁরা রাজনীতি, অপরাধ, খেলাধুলা থেকে সব বিষয়ে কাজ করবেন। সে জন্য অবশ্য প্রস্তুতি নিতে হবে।’ এরপর তিনি নারী সাংবাদিক হিসেবে তাঁর চ্যালেঞ্জের কিছু অভিজ্ঞতার বর্ণনা দেন। সেখানে খেলাধুলা, জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদের অনুষ্ঠানসহ বিখ্যাত মানুষের সাক্ষাৎকার গ্রহণে কর্তব্যস্থল থেকে শুরু করে বিভিন্ন পর্যায়ে যেসব বাধার সম্মুখীন হয়েছেন, তা বলেন। রোকেয়া হায়দার বলেন, ‘কোনো কাজে নিজেকে যোগ্য মনে করলে, সব বাধা ভেঙে এগিয়ে যেতে হবে।’ তবে যেকোনো বিষয়ে রিপোর্টিংয়ের মধ্যে খেলাধুলা নিয়েই কাজ করতে তিনি বেশি ভালোবাসেন। নারীদের সাংবাদিকতা পেশায় দক্ষতার সঙ্গে কাজ করার জন্যও বেশ কিছু পরামর্শ দেন তিনি। আর সংবাদ উপস্থাপকদের বিভিন্ন ঘটনা সম্পর্কে খোঁজখবর রাখতে এবং উচ্চারণের প্রতি নজর দেওয়ার পরামর্শ দেন। অনুষ্ঠানে ফরিদা ইয়াসমিন বলেন, সমাজ এখনো পুরোপুরিভাবে নারীদের জন্য তৈরি হয়নি। এমনকি নারীরাও পুরুষতান্ত্রিক মানসিকতা দ্বারা আক্রান্ত। এ জন্য নারী সাংবাদিকদের একটি শক্তিশালী নেটওয়ার্ক দরকার। যেখানে নারীরা হাতে হাত রেখে চলবেন আর পুরুষেরাও সহযোগিতা করবেন।

Comments

Comments!

 বৈষম্যের সব দরজা ভেঙে ঢুকে গেছি: রোকেয়া হায়দারAmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

বৈষম্যের সব দরজা ভেঙে ঢুকে গেছি: রোকেয়া হায়দার

Saturday, September 30, 2017 8:32 pm
7

‘১৯৮১ সালে ভয়েস অব আমেরিকায় যোগ দিই। সেখানেও দেখি নারী-পুরুষের মধ্যে চরম বৈষম্য। ধনী দেশে, উন্নত দেশে এ বৈষম্য আরও প্রকট। তবে আমি কোনো বাধা মানতে রাজি নই। বৈষম্যের সব দরজা ভেঙে ঢুকে গেছি।’

কথাগুলো মার্কিন রাষ্ট্রীয় বেতার ভয়েস অব আমেরিকার বাংলা বিভাগের প্রধান রোকেয়া হায়দারের। আজ শনিবার দুপুরে রাজধানীর প্রেসক্লাবে ‘শেয়ারিং মিটিং ইউথ রোকেয়া হায়দার’ শীর্ষক এক আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন। অনুষ্ঠানটির আয়োজন করেন প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক ফরিদা ইয়াসমিন।
১৯৬৯ সালে চট্টগ্রাম বেতারে স্থানীয় সংবাদ পাঠ দিয়ে শুরু। এরপর কিছুদিন রোকেয়া হায়দার বাংলাদেশ বেতার ও বাংলাদেশ টেলিভিশনে কাজ করেন। ভয়েস অব আমেরিকায় তাঁর ক্যারিয়ার ৩৬ বছরের। ২০১১ সালে তিনি বাংলা বিভাগের প্রধান হন।
অনুষ্ঠানে রোকেয়া হায়দার বলেন, ‘নারী সাংবাদিকেরা শুধু নারীবিষয়ক সংবাদ কাভার করবেন কেন? তাঁরা রাজনীতি, অপরাধ, খেলাধুলা থেকে সব বিষয়ে কাজ করবেন। সে জন্য অবশ্য প্রস্তুতি নিতে হবে।’
এরপর তিনি নারী সাংবাদিক হিসেবে তাঁর চ্যালেঞ্জের কিছু অভিজ্ঞতার বর্ণনা দেন। সেখানে খেলাধুলা, জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদের অনুষ্ঠানসহ বিখ্যাত মানুষের সাক্ষাৎকার গ্রহণে কর্তব্যস্থল থেকে শুরু করে বিভিন্ন পর্যায়ে যেসব বাধার সম্মুখীন হয়েছেন, তা বলেন।
রোকেয়া হায়দার বলেন, ‘কোনো কাজে নিজেকে যোগ্য মনে করলে, সব বাধা ভেঙে এগিয়ে যেতে হবে।’ তবে যেকোনো বিষয়ে রিপোর্টিংয়ের মধ্যে খেলাধুলা নিয়েই কাজ করতে তিনি বেশি ভালোবাসেন।
নারীদের সাংবাদিকতা পেশায় দক্ষতার সঙ্গে কাজ করার জন্যও বেশ কিছু পরামর্শ দেন তিনি। আর সংবাদ উপস্থাপকদের বিভিন্ন ঘটনা সম্পর্কে খোঁজখবর রাখতে এবং উচ্চারণের প্রতি নজর দেওয়ার পরামর্শ দেন।
অনুষ্ঠানে ফরিদা ইয়াসমিন বলেন, সমাজ এখনো পুরোপুরিভাবে নারীদের জন্য তৈরি হয়নি। এমনকি নারীরাও পুরুষতান্ত্রিক মানসিকতা দ্বারা আক্রান্ত। এ জন্য নারী সাংবাদিকদের একটি শক্তিশালী নেটওয়ার্ক দরকার। যেখানে নারীরা হাতে হাত রেখে চলবেন আর পুরুষেরাও সহযোগিতা করবেন।

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X