শুক্রবার, ২৩শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং, ১১ই ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, রাত ১০:৩৫
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Thursday, May 4, 2017 11:58 pm
A- A A+ Print

ব্যবসায়ী হত্যা : শাহাবুদ্দিন নাগরীর সম্পৃক্ততা পায়নি পুলিশ

download (1)

ব্যবসায়ী নুরুল ইসলাম হত্যাকাণ্ডে কবি ও সাবেক শুল্ক কর্মকর্তা শাহাবুদ্দিন নাগরীর সম্পৃক্ততা পায়নি ঢাকা মহানগর পুলিশের গোয়েন্দা বিভাগ (ডিবি)। আজ বৃহস্পতিবার স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দিতে নুরানী আক্তার সুমি হত্যার দায় স্বীকার করেছেন। ডিবির একটি সূত্র পরিচয় প্রকাশ না করার শর্তে প্রথম আলোকে জানায়, নুরানী আক্তার জবানবন্দিতে বলেন, তাঁর সঙ্গে নুরুল ইসলামের ঝগড়াঝাঁটি লেগেই থাকত। নুরুল ইসলামের কোনো আয়রোজগার ছিল না। তিনি নুরানীর আয়ের ওপর নির্ভরশীল ছিলেন। আর নুরানীর ফ্ল্যাট ভাড়া থেকে শুরু করে সব খরচ দিতেন শাহাবুদ্দিন নাগরী। সব শেষ পাসপোর্ট করা নিয়ে নুরানীর সঙ্গে নুরুল ইসলামের ঝগড়া হয়। নুরানী বিদেশে বেড়াতে যাওয়ার জন্য পাসপোর্ট করতে চেয়েছিলেন। নুরুল ইসলাম সে কাজে সহযোগিতা করছিলেন না। ১৩ এপ্রিল ভোরবেলায় এ নিয়ে দুজনের তুমুল ঝগড়া শুরু হয়। ঝগড়াঝাঁটির একপর্যায়ে তিনি নুরুল ইসলামকে ধাক্কা দিয়ে ফেলে দেন। ড্রেসিং টেবিলের কোনায় মাথা লেগে নুরুল ইসলাম পড়ে যান। তখনই তাঁর মৃত্যু হয়। এরপর নুরানী আক্তার মৃতদেহটি খাটের তলায় ঢোকানোর চেষ্টা করেন। কিন্তু পারেননি। বেলা তিনটার দিকে শাহাবুদ্দিন নাগরী ওই বাড়িতে আসেন। তিনি সোয়া সাতটার দিকে বেরিয়ে যান। নুরানী আক্তার তাঁকে নুরুল ইসলামের মৃত্যুর খবর দেননি। রাত একটার দিকে শাহাবুদ্দিন নাগরী খবর জানতে পারেন। এক বাড়িতে থেকেও কেন শাহাবুদ্দিন নাগরী জানতে পারেননি—এমন প্রশ্নের জবাবে ডিবি সূত্র জানায়, নুরানী আক্তার সুমি ও নুরুল ইসলাম নিজেদের স্বামী-স্ত্রী বলে পরিচয় দিলেও জিজ্ঞাসাবাদে নুরানী জানিয়েছেন, তাঁরা স্বামী-স্ত্রী ছিলেন না। তবে দম্পতি পরিচয়ে বাসা ভাড়া নিয়েছিলেন। শাহাবুদ্দিন নাগরী এলিফ্যান্ট রোডের ওই ফ্ল্যাটে এসে নুরানীর ঘরে বসতেন। ডিবির অতিরিক্ত উপকমিশনার রাজীব আল মাসুদ প্রথম আলোকে বলেন, নুরুল ইসলাম হত্যাকাণ্ডের তদন্ত শেষ পর্যায়ে। শিগগিরই অভিযোগপত্র দেওয়া হবে। এখন পর্যন্ত হত্যাকাণ্ডে শাহাবুদ্দিন নাগরীর জড়িত থাকার কোনো প্রমাণ পাওয়া যায়নি। নুরানী আক্তার ও নুরুল ইসলাম গত বছর এলিফ্যান্ট রোডের একটি অ্যাপার্টমেন্ট ভবনের চারতলার ফ্ল্যাটে স্বামী-স্ত্রী পরিচয়ে ওঠেন। সে সময় নুরুল ইসলাম নিজেকে ব্যবসায়ী পরিচয় দিয়েছিলেন। ফ্ল্যাটে ওঠার পরই নুরুল ইসলাম অ্যাপার্টমেন্টের ব্যবস্থাপক বাবু কুমার স্বর্ণকারকে বলে দেন, শাহাবুদ্দিন নাগরী তাঁর আপন বড় বোনের স্বামী। তিনি ফ্ল্যাটে ঢোকার সময় যেন খাতায় নাম লেখা না হয়। ১৩ এপ্রিল ওই ফ্ল্যাট থেকেই নুরুল ইসলামের মরদেহ উদ্ধার করা হয়। এক দিন পর নুরুল ইসলামের বোন শাহানা রহমান নিউমার্কেট থানায় নুরানী আক্তার ও তাঁর বন্ধু শাহাবুদ্দিন নাগরীকে আসামি করে হত্যা মামলা করেন। গত শুক্রবার মামলাটি ডিবিতে স্থানান্তর করা হয়।

Comments

Comments!

 ব্যবসায়ী হত্যা : শাহাবুদ্দিন নাগরীর সম্পৃক্ততা পায়নি পুলিশAmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

ব্যবসায়ী হত্যা : শাহাবুদ্দিন নাগরীর সম্পৃক্ততা পায়নি পুলিশ

Thursday, May 4, 2017 11:58 pm
download (1)

ব্যবসায়ী নুরুল ইসলাম হত্যাকাণ্ডে কবি ও সাবেক শুল্ক কর্মকর্তা শাহাবুদ্দিন নাগরীর সম্পৃক্ততা পায়নি ঢাকা মহানগর পুলিশের গোয়েন্দা বিভাগ (ডিবি)। আজ বৃহস্পতিবার স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দিতে নুরানী আক্তার সুমি হত্যার দায় স্বীকার করেছেন।

ডিবির একটি সূত্র পরিচয় প্রকাশ না করার শর্তে প্রথম আলোকে জানায়, নুরানী আক্তার জবানবন্দিতে বলেন, তাঁর সঙ্গে নুরুল ইসলামের ঝগড়াঝাঁটি লেগেই থাকত। নুরুল ইসলামের কোনো আয়রোজগার ছিল না। তিনি নুরানীর আয়ের ওপর নির্ভরশীল ছিলেন। আর নুরানীর ফ্ল্যাট ভাড়া থেকে শুরু করে সব খরচ দিতেন শাহাবুদ্দিন নাগরী। সব শেষ পাসপোর্ট করা নিয়ে নুরানীর সঙ্গে নুরুল ইসলামের ঝগড়া হয়। নুরানী বিদেশে বেড়াতে যাওয়ার জন্য পাসপোর্ট করতে চেয়েছিলেন। নুরুল ইসলাম সে কাজে সহযোগিতা করছিলেন না। ১৩ এপ্রিল ভোরবেলায় এ নিয়ে দুজনের তুমুল ঝগড়া শুরু হয়। ঝগড়াঝাঁটির একপর্যায়ে তিনি নুরুল ইসলামকে ধাক্কা দিয়ে ফেলে দেন। ড্রেসিং টেবিলের কোনায় মাথা লেগে নুরুল ইসলাম পড়ে যান। তখনই তাঁর মৃত্যু হয়। এরপর নুরানী আক্তার মৃতদেহটি খাটের তলায় ঢোকানোর চেষ্টা করেন। কিন্তু পারেননি। বেলা তিনটার দিকে শাহাবুদ্দিন নাগরী ওই বাড়িতে আসেন। তিনি সোয়া সাতটার দিকে বেরিয়ে যান। নুরানী আক্তার তাঁকে নুরুল ইসলামের মৃত্যুর খবর দেননি। রাত একটার দিকে শাহাবুদ্দিন নাগরী খবর জানতে পারেন।

এক বাড়িতে থেকেও কেন শাহাবুদ্দিন নাগরী জানতে পারেননি—এমন প্রশ্নের জবাবে ডিবি সূত্র জানায়, নুরানী আক্তার সুমি ও নুরুল ইসলাম নিজেদের স্বামী-স্ত্রী বলে পরিচয় দিলেও জিজ্ঞাসাবাদে নুরানী জানিয়েছেন, তাঁরা স্বামী-স্ত্রী ছিলেন না। তবে দম্পতি পরিচয়ে বাসা ভাড়া নিয়েছিলেন। শাহাবুদ্দিন নাগরী এলিফ্যান্ট রোডের ওই ফ্ল্যাটে এসে নুরানীর ঘরে বসতেন।

ডিবির অতিরিক্ত উপকমিশনার রাজীব আল মাসুদ প্রথম আলোকে বলেন, নুরুল ইসলাম হত্যাকাণ্ডের তদন্ত শেষ পর্যায়ে। শিগগিরই অভিযোগপত্র দেওয়া হবে। এখন পর্যন্ত হত্যাকাণ্ডে শাহাবুদ্দিন নাগরীর জড়িত থাকার কোনো প্রমাণ পাওয়া যায়নি।

নুরানী আক্তার ও নুরুল ইসলাম গত বছর এলিফ্যান্ট রোডের একটি অ্যাপার্টমেন্ট ভবনের চারতলার ফ্ল্যাটে স্বামী-স্ত্রী পরিচয়ে ওঠেন। সে সময় নুরুল ইসলাম নিজেকে ব্যবসায়ী পরিচয় দিয়েছিলেন। ফ্ল্যাটে ওঠার পরই নুরুল ইসলাম অ্যাপার্টমেন্টের ব্যবস্থাপক বাবু কুমার স্বর্ণকারকে বলে দেন, শাহাবুদ্দিন নাগরী তাঁর আপন বড় বোনের স্বামী। তিনি ফ্ল্যাটে ঢোকার সময় যেন খাতায় নাম লেখা না হয়।
১৩ এপ্রিল ওই ফ্ল্যাট থেকেই নুরুল ইসলামের মরদেহ উদ্ধার করা হয়। এক দিন পর নুরুল ইসলামের বোন শাহানা রহমান নিউমার্কেট থানায় নুরানী আক্তার ও তাঁর বন্ধু শাহাবুদ্দিন নাগরীকে আসামি করে হত্যা মামলা করেন। গত শুক্রবার মামলাটি ডিবিতে স্থানান্তর করা হয়।

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X