বৃহস্পতিবার, ২২শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং, ১০ই ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, রাত ১১:০৩
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Friday, June 2, 2017 5:49 am
A- A A+ Print

ব্যাংকে লাখ টাকার বেশি থাকলে বাড়তি কর

Taka20170601174804

এখন থেকে ব্যাংকে এক লাখ টাকার বেশি থাকলে বাড়তি কর দিতে হবে। আগামী (২০১৭-১৮) অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেটে এ প্রস্তাব করেছেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত। বৃহস্পতিবার দুপুরে জাতীয় সংসদে বাজেট বক্তব্যে অর্থমন্ত্রী এ বিষয়ে বাজেট বক্তব্যে বলেন, ‘এতদিন বছরের যে কোনো সময় একাউন্টে ২০ হাজার টাকা পর্যন্ত ডেবিট ও ক্রেডিটের ক্ষেত্রে আবগারি শুল্ক আরোপ করা হত না। এখন ১ লক্ষ টাকার একাউন্টের ক্ষেত্রে তা প্রযোজ্য হবে।’ অর্থমন্ত্রী আরো বলেন, ‘বছরের যেকোন সময় একাউন্টে ২০ হাজার টাকা পর্যন্ত ডেবিট কিংবা ক্রেডিট হয় এমন একাউন্টের ক্ষেত্রে তা পূর্বের ন্যায় আবগারি শুল্ক আরোপ করা হয় না। এখন ১ লক্ষ টাকার একাউন্টের ক্ষেত্রে প্রযোজ্য হবে। ১ লক্ষ টাকার ঊর্ধ্বে হতে ১০ লক্ষ টাকা পর্যন্ত বিদ্যমান ৫০০ টাকার পরিবর্তে ৮০০ টাকা, ১০ লক্ষ টাকার ঊর্ধ্বে হতে ১ কোটি টাকা পর্যন্ত ক্ষেত্রে ১ হাজার ৫০০ টাকার পরিবর্তে ২ হাজার ৫০০ টাকা, ১ কোটি টাকার ঊর্ধ্বে হতে ৫ কোটি টাকা পর্যন্ত ক্ষেত্রে ৭ হাজার ৫০০ টাকার পরিবর্তে ১২ হাজার টাকা এবং ৫ কোটি টাকার ঊর্ধ্বে বিদ্যমান ১৫ হাজার টাকার পরিবর্তে ২৫ হাজার টাকা নির্ধারণের প্রস্তাব করছি।’ এর আগে বৃহস্পতিবার জাতীয় সংসদে মন্ত্রিপরিষদ কক্ষে অনুষ্ঠিত বিশেষ বৈঠকে ২০১৭-২০১৮ অর্থবছরের জন্য ৪ লাখ ২৬৬ কোটি টাকার বাজেট অনুমোদন দেয় মন্ত্রিসভা। একইসঙ্গে সম্পূরক অর্থবিল ২০১৭ এর অনুমোদনও দেওয়া হয়েছে। দুপুর দেড়টায় জাতীয় সংসদে আগামী অর্থবছরের বাজেট উত্থাপন করেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত। এটি দেশের ৪৬তম বাজেট। একই সঙ্গে আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন সরকারের দ্বিতীয় মেয়াদের চতুর্থ এবং অর্থমন্ত্রী মুহিতের ১১তম বাজেট এটি।

Comments

Comments!

 ব্যাংকে লাখ টাকার বেশি থাকলে বাড়তি করAmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

ব্যাংকে লাখ টাকার বেশি থাকলে বাড়তি কর

Friday, June 2, 2017 5:49 am
Taka20170601174804

এখন থেকে ব্যাংকে এক লাখ টাকার বেশি থাকলে বাড়তি কর দিতে হবে। আগামী (২০১৭-১৮) অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেটে এ প্রস্তাব করেছেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত।

বৃহস্পতিবার দুপুরে জাতীয় সংসদে বাজেট বক্তব্যে অর্থমন্ত্রী এ বিষয়ে বাজেট বক্তব্যে বলেন, ‘এতদিন বছরের যে কোনো সময় একাউন্টে ২০ হাজার টাকা পর্যন্ত ডেবিট ও ক্রেডিটের ক্ষেত্রে আবগারি শুল্ক আরোপ করা হত না। এখন ১ লক্ষ টাকার একাউন্টের ক্ষেত্রে তা প্রযোজ্য হবে।’

অর্থমন্ত্রী আরো বলেন, ‘বছরের যেকোন সময় একাউন্টে ২০ হাজার টাকা পর্যন্ত ডেবিট কিংবা ক্রেডিট হয় এমন একাউন্টের ক্ষেত্রে তা পূর্বের ন্যায় আবগারি শুল্ক আরোপ করা হয় না। এখন ১ লক্ষ টাকার একাউন্টের ক্ষেত্রে প্রযোজ্য হবে। ১ লক্ষ টাকার ঊর্ধ্বে হতে ১০ লক্ষ টাকা পর্যন্ত বিদ্যমান ৫০০ টাকার পরিবর্তে ৮০০ টাকা, ১০ লক্ষ টাকার ঊর্ধ্বে হতে ১ কোটি টাকা পর্যন্ত ক্ষেত্রে ১ হাজার ৫০০ টাকার পরিবর্তে ২ হাজার ৫০০ টাকা, ১ কোটি টাকার ঊর্ধ্বে হতে ৫ কোটি টাকা পর্যন্ত ক্ষেত্রে ৭ হাজার ৫০০ টাকার পরিবর্তে ১২ হাজার টাকা এবং ৫ কোটি টাকার ঊর্ধ্বে বিদ্যমান ১৫ হাজার টাকার পরিবর্তে ২৫ হাজার টাকা নির্ধারণের প্রস্তাব করছি।’

এর আগে বৃহস্পতিবার জাতীয় সংসদে মন্ত্রিপরিষদ কক্ষে অনুষ্ঠিত বিশেষ বৈঠকে ২০১৭-২০১৮ অর্থবছরের জন্য ৪ লাখ ২৬৬ কোটি টাকার বাজেট অনুমোদন দেয় মন্ত্রিসভা। একইসঙ্গে সম্পূরক অর্থবিল ২০১৭ এর অনুমোদনও দেওয়া হয়েছে।

দুপুর দেড়টায় জাতীয় সংসদে আগামী অর্থবছরের বাজেট উত্থাপন করেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত। এটি দেশের ৪৬তম বাজেট। একই সঙ্গে আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন সরকারের দ্বিতীয় মেয়াদের চতুর্থ এবং অর্থমন্ত্রী মুহিতের ১১তম বাজেট এটি।

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X