বৃহস্পতিবার, ২২শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং, ১০ই ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, সকাল ৭:১০
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Friday, September 23, 2016 8:46 pm | আপডেটঃ September 23, 2016 8:51 PM
A- A A+ Print

ভারতের সঙ্গে উত্তেজনার মধ্যেই রাশিয়ার সঙ্গে মহড়ায় পাকিস্তান

2

যৌথ সামরিক মহড়ায় অংশ নিতে প্রথমবারের মতো পাকিস্তানে পৌঁছেছে রাশিয়ার সামরিক বাহিনীর একটি দল। কাল শনিবার থেকে ১০ অক্টোবর পর্যন্ত এই সামরিক মহড়া চলবে। পাকিস্তান আইএসপিআরের মহাপরিচালক লেফটেন্যান্ট জেনারেল অসীম বাজওয়া এক টুইট বার্তায় এ তথ্য জানিয়েছেন। খবর দ্য এক্সপ্রেস ট্রিবিউনের।কাশ্মীরের উরিতে ভারতীয় সেনাছাউনিতে গত রোববার সন্ত্রাসী হামলায় ১৭ সেনা নিহত হন। ওই হামলায় পাকিস্তানের মদদ রয়েছে বলে অভিযোগ তোলে ভারত। বিষয়টি নিয়ে দুই দেশের মধ্যে উত্তেজনা চলছে। এই পরিস্থিতিতে কাল থেকে পাকিস্তান-রাশিয়া যৌথ সামরিক মহড়া শুরু হচ্ছে। ইতিহাসে প্রথমবারের মতো যৌথ সামরিক মহড়ায় অংশ নিতে শুক্রবার রুশ বাহিনী পাকিস্তানে পৌছেছে। এই মহড়া চলবে দুই সপ্তাহ। পাকিস্তান সেনাবাহিনীর আইএসপিআরের মহাপরিচালক লে. জেনারেল আসিম বাজওয়া এক টুইট বার্তায় বলেছেন, প্রথম পাক-রুশ যৌথ মহড়ায় অংশ নিতে রুশ স্থল বাহিনী পাকিস্তানে এসে পড়েছে।   এতে বলা হয়েছে, যৌথ মহড়ায় অংশ নেয়ার জন্য রুশ স্থলবাহিনীর এক দল সেনা পাকিস্তান পৌঁছেছে। দুসপ্তাহের যৌথ সামরিক মহড়া ‘ফ্রেন্ডশিপ-২০১৬’ শনিবার থেকে শুরু হয়ে ১০ অক্টোবর পর্যন্ত চলবে বলে এতে জানানো হয়েছে। এর আগের খবর বলা হয়েছে, পাকিস্তানের উত্তরাঞ্চলীয় রাত্তুতে অবস্থিত আর্মি হাই অলটিচ্যুড স্কুল এবং চেরাতে স্পেশাল ফোর্সেস ট্রেনিং সেন্টারে এ মহড়া চলবে। মহড়ায় উভয় দেশের প্রায় ২০০ সেনা অংশ নেবে বলে জানিয়েছেন পদস্থ এক পাক কর্মকর্তা। ভারত নিয়ন্ত্রিত কাশ্মীরের উরি সেনাঘাঁটিতে দুঃসাহসিক সন্ত্রাসী হামলাকে কেন্দ্র করে এ মহড়া রাশিয়া বাতিল করে দিয়েছে এবং একে ভারতীয় কূটনীতির বিজয় বলে দাবি করেছিল ভারতীয় কোনো কোনো সংবাদ মাধ্যম। কিন্তু এসব খবর নাকচ করে দিয়ে রাশিয়ার পাক রাষ্ট্রদূত কাজী খলিলুল্লাহ দাবি করেছিলেন, পাক-রুশ প্রথম যৌথ সামরিক মহড়া মস্কো বাতিল করেনি। রুশ সেনাদলের পাকিস্তানে পৌঁছানোর মধ্য দিয়ে তার সে দাবির সত্যতা প্রকাশ পেল।   উরিতে হামলার পর বিভিন্ন ভারতীয় সংবাদমাধ্যমে অভিযোগ তোলা হয়, পাকিস্তানে যৌথ যুদ্ধ পরিকল্পনা গ্রহণ করতেই রাশিয়াকে ডাকা হয়েছে। তবে সোমবার রাশিয়ায় পাকিস্তানের রাষ্ট্রদূত কাজী খলিলুল্লাহ যৌথ যুদ্ধ পরিকল্পনার জন্য সামরিক মহড়ার কথা অস্বীকার করেন। মস্কো থেকে কাজী খলিলুল্লাহ এক্সপ্রেস ট্রিবিউনকে বলেন, নির্ধারিত নিয়মেই পাকিস্তান-রাশিয়া যৌথ সামরিক মহড়ায় অংশ নিবে। দুই দেশের পুরোনো ঠান্ডা যুদ্ধকে পাশ কাটিয়ে প্রথমবারের মতো সামরিক মহড়াকে ‘মৈত্রী-২০১৬’ বলে অভিহিত করেন তিনি। পাকিস্তানের একজন জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তা জানান, দুই পক্ষের দু শর মতো সেনা সদস্য এই যৌথ সামরিক মহড়ায় অংশ নেবে। মস্কোতে পাকিস্তানের রাষ্ট্রদূত কাজী খলিলুল্লাহ বলেন, এই মহড়া স্পষ্টত প্রতিরক্ষা ও সামরিক-প্রযুক্তিগত সহযোগিতার ক্ষেত্রে উভয় পক্ষের সদিচ্ছার ইঙ্গিত বহন করে। এদিকে ভারতের মহারাষ্ট্রের বিভিন্ন উপকূলবর্তী এলাকায় রেড অ্যালার্ট জারি করেছে দেশটির পশ্চিম নৌ কমান্ড। শুরু হয়েছে ব্যাপক তল্লাশি অভিযান। সন্দেহভাজন কয়েকজন সশস্ত্র ব্যক্তিকে দেখা যাওয়ার খবরে গতকাল বৃহস্পতিবার অ্যালার্ট জারি ও তল্লাশি অভিযান চালানো হয়। ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি উরি হামলার যোগ্য জবাব নিয়ে গতকাল প্রতিরক্ষা বাহিনীর তিন প্রধান এবং জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা অজিত দোভালসহ অন্য শীর্ষ কর্মকর্তাদের সঙ্গে বৈঠক করেছেন। কূটনৈতিক স্তরে জবাব দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হলেও ভারত দৃশ্যত নিজেকে সব রকমভাবে প্রস্তুত রাখছে। অন্যদিকে পাকিস্তানের গণমাধ্যমের খবর, সে দেশে যুদ্ধবিমানের মহড়া, যুদ্ধবিমান ওঠানামার উপযোগী একটি গুরুত্বপূর্ণ মহাসড়কে যান চলাচল বন্ধ করা আর উত্তরাঞ্চলের আকাশে উড্ডয়ন নিষিদ্ধের ঘটনা ভারতের সম্ভাব্য হামলা নিয়ে গুঞ্জনের ডালপালা ছড়িয়েছে।

Comments

Comments!

 ভারতের সঙ্গে উত্তেজনার মধ্যেই রাশিয়ার সঙ্গে মহড়ায় পাকিস্তানAmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

ভারতের সঙ্গে উত্তেজনার মধ্যেই রাশিয়ার সঙ্গে মহড়ায় পাকিস্তান

Friday, September 23, 2016 8:46 pm | আপডেটঃ September 23, 2016 8:51 PM
2

যৌথ সামরিক মহড়ায় অংশ নিতে প্রথমবারের মতো পাকিস্তানে পৌঁছেছে রাশিয়ার সামরিক বাহিনীর একটি দল। কাল শনিবার থেকে ১০ অক্টোবর পর্যন্ত এই সামরিক মহড়া চলবে।
পাকিস্তান আইএসপিআরের মহাপরিচালক লেফটেন্যান্ট জেনারেল অসীম বাজওয়া এক টুইট বার্তায় এ তথ্য জানিয়েছেন। খবর দ্য এক্সপ্রেস ট্রিবিউনের।কাশ্মীরের উরিতে ভারতীয় সেনাছাউনিতে গত রোববার সন্ত্রাসী হামলায় ১৭ সেনা নিহত হন। ওই হামলায় পাকিস্তানের মদদ রয়েছে বলে অভিযোগ তোলে ভারত। বিষয়টি নিয়ে দুই দেশের মধ্যে উত্তেজনা চলছে। এই পরিস্থিতিতে কাল থেকে পাকিস্তান-রাশিয়া যৌথ সামরিক মহড়া শুরু হচ্ছে।

ইতিহাসে প্রথমবারের মতো যৌথ সামরিক মহড়ায় অংশ নিতে শুক্রবার রুশ বাহিনী পাকিস্তানে পৌছেছে। এই মহড়া চলবে দুই সপ্তাহ।

পাকিস্তান সেনাবাহিনীর আইএসপিআরের মহাপরিচালক লে. জেনারেল আসিম বাজওয়া এক টুইট বার্তায় বলেছেন, প্রথম পাক-রুশ যৌথ মহড়ায় অংশ নিতে রুশ স্থল বাহিনী পাকিস্তানে এসে পড়েছে।

 

এতে বলা হয়েছে, যৌথ মহড়ায় অংশ নেয়ার জন্য রুশ স্থলবাহিনীর এক দল সেনা পাকিস্তান পৌঁছেছে। দুসপ্তাহের যৌথ সামরিক মহড়া ‘ফ্রেন্ডশিপ-২০১৬’ শনিবার থেকে শুরু হয়ে ১০ অক্টোবর পর্যন্ত চলবে বলে এতে জানানো হয়েছে। এর আগের খবর বলা হয়েছে, পাকিস্তানের উত্তরাঞ্চলীয় রাত্তুতে অবস্থিত আর্মি হাই অলটিচ্যুড স্কুল এবং চেরাতে স্পেশাল ফোর্সেস ট্রেনিং সেন্টারে এ মহড়া চলবে।

মহড়ায় উভয় দেশের প্রায় ২০০ সেনা অংশ নেবে বলে জানিয়েছেন পদস্থ এক পাক কর্মকর্তা।

ভারত নিয়ন্ত্রিত কাশ্মীরের উরি সেনাঘাঁটিতে দুঃসাহসিক সন্ত্রাসী হামলাকে কেন্দ্র করে এ মহড়া রাশিয়া বাতিল করে দিয়েছে এবং একে ভারতীয় কূটনীতির বিজয় বলে দাবি করেছিল ভারতীয় কোনো কোনো সংবাদ মাধ্যম।

কিন্তু এসব খবর নাকচ করে দিয়ে রাশিয়ার পাক রাষ্ট্রদূত কাজী খলিলুল্লাহ দাবি করেছিলেন, পাক-রুশ প্রথম যৌথ সামরিক মহড়া মস্কো বাতিল করেনি। রুশ সেনাদলের পাকিস্তানে পৌঁছানোর মধ্য দিয়ে তার সে দাবির সত্যতা প্রকাশ পেল।

 

উরিতে হামলার পর বিভিন্ন ভারতীয় সংবাদমাধ্যমে অভিযোগ তোলা হয়, পাকিস্তানে যৌথ যুদ্ধ পরিকল্পনা গ্রহণ করতেই রাশিয়াকে ডাকা হয়েছে। তবে সোমবার রাশিয়ায় পাকিস্তানের রাষ্ট্রদূত কাজী খলিলুল্লাহ যৌথ যুদ্ধ পরিকল্পনার জন্য সামরিক মহড়ার কথা অস্বীকার করেন।
মস্কো থেকে কাজী খলিলুল্লাহ এক্সপ্রেস ট্রিবিউনকে বলেন, নির্ধারিত নিয়মেই পাকিস্তান-রাশিয়া যৌথ সামরিক মহড়ায় অংশ নিবে। দুই দেশের পুরোনো ঠান্ডা যুদ্ধকে পাশ কাটিয়ে প্রথমবারের মতো সামরিক মহড়াকে ‘মৈত্রী-২০১৬’ বলে অভিহিত করেন তিনি।
পাকিস্তানের একজন জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তা জানান, দুই পক্ষের দু শর মতো সেনা সদস্য এই যৌথ সামরিক মহড়ায় অংশ নেবে। মস্কোতে পাকিস্তানের রাষ্ট্রদূত কাজী খলিলুল্লাহ বলেন, এই মহড়া স্পষ্টত প্রতিরক্ষা ও সামরিক-প্রযুক্তিগত সহযোগিতার ক্ষেত্রে উভয় পক্ষের সদিচ্ছার ইঙ্গিত বহন করে।

এদিকে ভারতের মহারাষ্ট্রের বিভিন্ন উপকূলবর্তী এলাকায় রেড অ্যালার্ট জারি করেছে দেশটির পশ্চিম নৌ কমান্ড। শুরু হয়েছে ব্যাপক তল্লাশি অভিযান। সন্দেহভাজন কয়েকজন সশস্ত্র ব্যক্তিকে দেখা যাওয়ার খবরে গতকাল বৃহস্পতিবার অ্যালার্ট জারি ও তল্লাশি অভিযান চালানো হয়।

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি উরি হামলার যোগ্য জবাব নিয়ে গতকাল প্রতিরক্ষা বাহিনীর তিন প্রধান এবং জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা অজিত দোভালসহ অন্য শীর্ষ কর্মকর্তাদের সঙ্গে বৈঠক করেছেন। কূটনৈতিক স্তরে জবাব দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হলেও ভারত দৃশ্যত নিজেকে সব রকমভাবে প্রস্তুত রাখছে।
অন্যদিকে পাকিস্তানের গণমাধ্যমের খবর, সে দেশে যুদ্ধবিমানের মহড়া, যুদ্ধবিমান ওঠানামার উপযোগী একটি গুরুত্বপূর্ণ মহাসড়কে যান চলাচল বন্ধ করা আর উত্তরাঞ্চলের আকাশে উড্ডয়ন নিষিদ্ধের ঘটনা ভারতের সম্ভাব্য হামলা নিয়ে গুঞ্জনের ডালপালা ছড়িয়েছে।

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X