সোমবার, ২৬শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং, ১৪ই ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, ভোর ৫:৪৭
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Wednesday, July 27, 2016 5:37 pm
A- A A+ Print

‘ভারত এক পক্ষকে বেছে নিয়েছে’

24491_Moudu

ভারতের নীতি অদূরদর্শী। বাংলাদেশে তারা একটি পক্ষকে বেছে নিয়েছে। এটা উচিত নয়। ভারতের দ্য ইকোনমিক টাইমসকে দেয়া সাক্ষাতকারে আওয়ামী লীগকে দেয়া ভারতের সমর্থনের ইঙ্গিত করে এসব কথা বলেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মওদুদ আহমদ। এতে তিনি বলেছেন, বিএনপি নেত্রী, সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়াও সন্ত্রাসী বিরোধিতার বিষয়ে নিশ্চিত করেছেন। তিনি প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন, বাংলাদেেশর মাটি কাউকে ভারতবিরোধিতায় ব্যবহার করতে দেয়া হবে না। মওদুদ আহমদ সম্প্রতি দিল্লিভিত্তিক প্রতিষ্ঠান পিস অ্যান্ড কনফ্লিক্ট স্টাডিজের ২০তম অধিবেশনে বক্তব্য রাখতে সেখানে গিয়েছিলেন। সে সময় তার সাক্ষাতকারটি নেন দিপাঞ্জনা রায় চৌধুরী। এতে মওদুদ আহমদ বলেন, সর্বশেষ নয়াদিল্লি সফরের সময় আমার নেত্রী ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়া ভারতকে নিশ্চয়তা দিয়েছেন যে, সব রকমের সন্ত্রাসের বিরোধী বিএনপি। যদি বিএনপি ক্ষমতায় যায় তাহলে বাংলাদেশের মাটি ব্যবহার করে ভারতবিরোধী কর্মকান্ড চালাতে দেবেন না তিনি। ভারতের সঙ্গে আওয়ামী লীগ সরকার যেসব চুক্তি করেছে তা অব্যাহত রাখবে বিএনপি। কারণ, এসব চুক্তির আন্তর্জাতিক বাধ্যবাধকতা রয়েছে। বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় প্রতিবেশী হলো ভারত। মানুষ তার জীবনে পাত্র বা পাত্রী পছন্দ করে নিতে পারে, কিন্তু প্রতিবেশী পাল্টানো যায় না। তার কাছে সাংবাদিক দিপাঞ্জনা রায় জানতে চান, আপনার দেশে সম্প্রতি সন্ত্রাসের যে বৃদ্ধি ঘটেছে এ বিষয়ে আপনি কি মনে করেন? জবাবে মওদুদ আহমদ বলেন, পরিস্থিতি প্রকৃতপক্ষেই সঙ্কটময়। এটাকে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বা বিএনপি যেভাবে দেখে তাহলো, দেশে গণতন্ত্রের সঙ্কটের কারণে সন্ত্রাস বৃদ্ধি পাচ্ছে। বাংলাদেশের রাজনীতিতে শূন্যতা রয়েছে। এ থেকেই সন্ত্রাসের জন্ম হচ্ছে। আমার দেশে সবার অংশগ্রহণমুলক গণতন্ত্রের অভাব রয়েছে। জবাবদিহিমুলক শাসনের জন্য প্রয়োজন হয়ে পড়েছে অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচন। বিস্ময়কর ব্যাপার হলো, এখন পর্যন্ত বর্তমান সরকার সন্ত্রাস ষড়যন্ত্রকারীদের বিরুদ্ধে পদক্ষেপ নিতে সফল হয় নি। ভীতিহর এই সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে ঐক্যবদ্ধ হয়ে জোটে অংশ নিতে আগ্রহী বিএনপি। তার কাছে প্রশ্ন রাখা হয়- বাংলাদেশে সন্ত্রাস ছড়িয়ে পড়ার জন্য কি পাকিস্তান দায়ী? জবাবে মওদুদ আহমদ বলেন, এখন পর্যন্ত বিএনপি যতটুকু জানতে পেরেছে, তাতে বাংলাদেশের ক্ষেত্রে পাকিস্তান অপ্রাসঙ্গিক। পাকিস্তান একটি ব্যর্থ রাষ্ট্র। বিএনপি একটি মধ্য উদারপন্থি গণতান্ত্রিক দল। ১৯৭০ এর দশকে বিএনপির মূল মেনিফেস্টোর প্রকৃত লেখক হিসেবে আমি চেষ্টা করেছি বিএনপির মূল আদর্শকে পুনঃপ্রতিষ্ঠা করতে। আমি মডারেট মানুষ। আমার দৃষ্টিভঙ্গি বিএনপির বেশির ভাগ সদস্যের সঙ্গে শেয়ার করি। জামায়াতের সঙ্গে ২০০১ সালের নির্বাচনের সময় নির্বাচনী জোট করা হয়েছিল। জামায়াতের আদর্শ থেকে আমাদের আদর্শ আলাদা। এটা একটি কৌশলগত জোট। আগামী নির্বাচনের সময় পরিস্থিতির ওপর নির্ভর করবে যে, আমরা কোন জোটে প্রবেশ করবো কিনা। এরপর তার কাছে জানতে চাওয়া হয়, বাংলাদেশে সন্ত্রাসী হামলার জন্য ইসলামিক স্টেটকে কি আপনি দায়ী করবেন? জবাবে মওদুদ আহমদ বলেন, বাংলাদেশে সন্ত্রাসী হামলা ও ব্লগারদের হত্যার পিছনে ইসলামিক স্টেট দায়ী কিনা এ বিষয়ে ব্যক্তিগতভাবে আমি জানি না। এক্ষেত্রে আমার সন্দেহ জেএমবি, হুজি ও আনসারুল্লাহ বাংলা টিমকে। বাংলাদেশে ইসলামিক স্টেট দৃশ্যমান নয়। যেসব সন্ত্রাসী হামলা চালিয়ে যাচ্ছে তারা হতে পারে দেশের ভিতরে বেড়ে ওঠা। তাদের কারো কারো থাকতে পারে আন্তর্জাতিক যোগসূত্র।

Comments

Comments!

 ‘ভারত এক পক্ষকে বেছে নিয়েছে’AmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

‘ভারত এক পক্ষকে বেছে নিয়েছে’

Wednesday, July 27, 2016 5:37 pm
24491_Moudu

ভারতের নীতি অদূরদর্শী। বাংলাদেশে তারা একটি পক্ষকে বেছে নিয়েছে। এটা উচিত নয়। ভারতের দ্য ইকোনমিক টাইমসকে দেয়া সাক্ষাতকারে আওয়ামী লীগকে দেয়া ভারতের সমর্থনের ইঙ্গিত করে এসব কথা বলেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মওদুদ আহমদ। এতে তিনি বলেছেন, বিএনপি নেত্রী, সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়াও সন্ত্রাসী বিরোধিতার বিষয়ে নিশ্চিত করেছেন। তিনি প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন, বাংলাদেেশর মাটি কাউকে ভারতবিরোধিতায় ব্যবহার করতে দেয়া হবে না। মওদুদ আহমদ সম্প্রতি দিল্লিভিত্তিক প্রতিষ্ঠান পিস অ্যান্ড কনফ্লিক্ট স্টাডিজের ২০তম অধিবেশনে বক্তব্য রাখতে সেখানে গিয়েছিলেন। সে সময় তার সাক্ষাতকারটি নেন দিপাঞ্জনা রায় চৌধুরী। এতে মওদুদ আহমদ বলেন, সর্বশেষ নয়াদিল্লি সফরের সময় আমার নেত্রী ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়া ভারতকে নিশ্চয়তা দিয়েছেন যে, সব রকমের সন্ত্রাসের বিরোধী বিএনপি। যদি বিএনপি ক্ষমতায় যায় তাহলে বাংলাদেশের মাটি ব্যবহার করে ভারতবিরোধী কর্মকান্ড চালাতে দেবেন না তিনি। ভারতের সঙ্গে আওয়ামী লীগ সরকার যেসব চুক্তি করেছে তা অব্যাহত রাখবে বিএনপি। কারণ, এসব চুক্তির আন্তর্জাতিক বাধ্যবাধকতা রয়েছে। বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় প্রতিবেশী হলো ভারত। মানুষ তার জীবনে পাত্র বা পাত্রী পছন্দ করে নিতে পারে, কিন্তু প্রতিবেশী পাল্টানো যায় না। তার কাছে সাংবাদিক দিপাঞ্জনা রায় জানতে চান, আপনার দেশে সম্প্রতি সন্ত্রাসের যে বৃদ্ধি ঘটেছে এ বিষয়ে আপনি কি মনে করেন? জবাবে মওদুদ আহমদ বলেন, পরিস্থিতি প্রকৃতপক্ষেই সঙ্কটময়। এটাকে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বা বিএনপি যেভাবে দেখে তাহলো, দেশে গণতন্ত্রের সঙ্কটের কারণে সন্ত্রাস বৃদ্ধি পাচ্ছে। বাংলাদেশের রাজনীতিতে শূন্যতা রয়েছে। এ থেকেই সন্ত্রাসের জন্ম হচ্ছে। আমার দেশে সবার অংশগ্রহণমুলক গণতন্ত্রের অভাব রয়েছে। জবাবদিহিমুলক শাসনের জন্য প্রয়োজন হয়ে পড়েছে অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচন। বিস্ময়কর ব্যাপার হলো, এখন পর্যন্ত বর্তমান সরকার সন্ত্রাস ষড়যন্ত্রকারীদের বিরুদ্ধে পদক্ষেপ নিতে সফল হয় নি। ভীতিহর এই সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে ঐক্যবদ্ধ হয়ে জোটে অংশ নিতে আগ্রহী বিএনপি।
তার কাছে প্রশ্ন রাখা হয়- বাংলাদেশে সন্ত্রাস ছড়িয়ে পড়ার জন্য কি পাকিস্তান দায়ী? জবাবে মওদুদ আহমদ বলেন, এখন পর্যন্ত বিএনপি যতটুকু জানতে পেরেছে, তাতে বাংলাদেশের ক্ষেত্রে পাকিস্তান অপ্রাসঙ্গিক। পাকিস্তান একটি ব্যর্থ রাষ্ট্র। বিএনপি একটি মধ্য উদারপন্থি গণতান্ত্রিক দল। ১৯৭০ এর দশকে বিএনপির মূল মেনিফেস্টোর প্রকৃত লেখক হিসেবে আমি চেষ্টা করেছি বিএনপির মূল আদর্শকে পুনঃপ্রতিষ্ঠা করতে। আমি মডারেট মানুষ। আমার দৃষ্টিভঙ্গি বিএনপির বেশির ভাগ সদস্যের সঙ্গে শেয়ার করি। জামায়াতের সঙ্গে ২০০১ সালের নির্বাচনের সময় নির্বাচনী জোট করা হয়েছিল। জামায়াতের আদর্শ থেকে আমাদের আদর্শ আলাদা। এটা একটি কৌশলগত জোট। আগামী নির্বাচনের সময় পরিস্থিতির ওপর নির্ভর করবে যে, আমরা কোন জোটে প্রবেশ করবো কিনা।
এরপর তার কাছে জানতে চাওয়া হয়, বাংলাদেশে সন্ত্রাসী হামলার জন্য ইসলামিক স্টেটকে কি আপনি দায়ী করবেন?
জবাবে মওদুদ আহমদ বলেন, বাংলাদেশে সন্ত্রাসী হামলা ও ব্লগারদের হত্যার পিছনে ইসলামিক স্টেট দায়ী কিনা এ বিষয়ে ব্যক্তিগতভাবে আমি জানি না। এক্ষেত্রে আমার সন্দেহ জেএমবি, হুজি ও আনসারুল্লাহ বাংলা টিমকে। বাংলাদেশে ইসলামিক স্টেট দৃশ্যমান নয়। যেসব সন্ত্রাসী হামলা চালিয়ে যাচ্ছে তারা হতে পারে দেশের ভিতরে বেড়ে ওঠা। তাদের কারো কারো থাকতে পারে আন্তর্জাতিক যোগসূত্র।

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X