বুধবার, ২১শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং, ৯ই ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, সকাল ৯:৪২
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Friday, September 23, 2016 1:28 pm
A- A A+ Print

ভারত-পাকিস্তানের গণমাধ্যমে যুদ্ধ

153841_1

কয়েকদিন আগে ভারত নিয়ন্ত্রিত কাশ্মীরের উরিতে হামলায় ১৮ সেনা নিহত হওয়ার পরপরই ভারতের পক্ষ থেকে এ হামলায় পাকিস্তানকে দায়ী করে আক্রমণাত্মক বক্তব্য চলতে থাকে। বিষয়টি বোঝা গেল বুধবার ভারতে পাকিস্তানের হাইকমিশনার আবদুল বাসিতকে ডেকে পাঠানোর পর দেওয়া ভারতীয় বক্তব্যে। ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে বলা হয়, পাকিস্তানের সরকার যদি আন্তসীমান্ত হামলার তদন্ত করতে চায়, তবে উরি ও পুঞ্চ হামলায় নিহত ব্যক্তিদের হাতের ছাপ ও ডিএনএ সরবরাহ করবে পাকিস্তান। পাকিস্তানের আন্তঃবাহিনী জনসংযোগ পরিদপ্তরের পক্ষ থেকে ভারতের কাছে কার্যকর তথ্য চাওয়া হয়েছে। এ দেশের মাটি ব্যবহার করে সন্ত্রাসবাদীরা ভারতে তৎপরতা চালিয়েছিল কী না, পাকিস্তানের নিজের স্বার্থেই এর অনুসন্ধান জরুরি। এখন ভারত ও পাকিস্তানের সরকারি স্তরে প্রতিক্রিয়া যখন অনেকটাই নিয়ন্ত্রিত হয়ে গেছে, তখন বিশেষত ভারতের গণমাধ্যম যুদ্ধংদেহী অবস্থান নিয়েই আছে। হামলা শেষ হতে না হতেই টেলিভিশন এবং সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে এমনকি সংবাদপত্রেও যুদ্ধের ভাষা ব্যবহার শুরু হয়ে যায়। পাকিস্তানকে একটি উচিত শিক্ষা দেওয়ার আহবান আসতে থাকে। পাকিস্তানের গণমাধ্যমের একটি অংশেও দুর্ভাগ্যজনকভাবে এই মনোভাব দেখা গেছে। ভারতের গণমাধ্যম যেভাবে আক্রমণাত্মক কথাবার্তা চালাচ্ছে, এর যেন কপি করছে পাকিস্তানের কিছু গণমাধ্যম।
 

Comments

Comments!

 ভারত-পাকিস্তানের গণমাধ্যমে যুদ্ধAmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

ভারত-পাকিস্তানের গণমাধ্যমে যুদ্ধ

Friday, September 23, 2016 1:28 pm
153841_1

কয়েকদিন আগে ভারত নিয়ন্ত্রিত কাশ্মীরের উরিতে হামলায় ১৮ সেনা নিহত হওয়ার পরপরই ভারতের পক্ষ থেকে এ হামলায় পাকিস্তানকে দায়ী করে আক্রমণাত্মক বক্তব্য চলতে থাকে।

বিষয়টি বোঝা গেল বুধবার ভারতে পাকিস্তানের হাইকমিশনার আবদুল বাসিতকে ডেকে পাঠানোর পর দেওয়া ভারতীয় বক্তব্যে। ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে বলা হয়, পাকিস্তানের সরকার যদি আন্তসীমান্ত হামলার তদন্ত করতে চায়, তবে উরি ও পুঞ্চ হামলায় নিহত ব্যক্তিদের হাতের ছাপ ও ডিএনএ সরবরাহ করবে পাকিস্তান।

পাকিস্তানের আন্তঃবাহিনী জনসংযোগ পরিদপ্তরের পক্ষ থেকে ভারতের কাছে কার্যকর তথ্য চাওয়া হয়েছে। এ দেশের মাটি ব্যবহার করে সন্ত্রাসবাদীরা ভারতে তৎপরতা চালিয়েছিল কী না, পাকিস্তানের নিজের স্বার্থেই এর অনুসন্ধান জরুরি।

এখন ভারত ও পাকিস্তানের সরকারি স্তরে প্রতিক্রিয়া যখন অনেকটাই নিয়ন্ত্রিত হয়ে গেছে, তখন বিশেষত ভারতের গণমাধ্যম যুদ্ধংদেহী অবস্থান নিয়েই আছে। হামলা শেষ হতে না হতেই টেলিভিশন এবং সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে এমনকি সংবাদপত্রেও যুদ্ধের ভাষা ব্যবহার শুরু হয়ে যায়।

পাকিস্তানকে একটি উচিত শিক্ষা দেওয়ার আহবান আসতে থাকে। পাকিস্তানের গণমাধ্যমের একটি অংশেও দুর্ভাগ্যজনকভাবে এই মনোভাব দেখা গেছে। ভারতের গণমাধ্যম যেভাবে আক্রমণাত্মক কথাবার্তা চালাচ্ছে, এর যেন কপি করছে পাকিস্তানের কিছু গণমাধ্যম।

 

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X