সোমবার, ১৯শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং, ৭ই ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, রাত ৮:০১
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Thursday, December 1, 2016 7:39 am
A- A A+ Print

মঙ্গল শোভাযাত্রাকে সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য ঘোষণা ইউনেস্কোর

11

বাংলা নববর্ষ উপলক্ষ্যে বের করা বর্ণিল মঙ্গল শোভাযাত্রাকে বিশ্ব সাংস্কৃতির অন্যতম সম্পদ হিসেবে অভিহিত করে একে সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য হিসেবে ঘোষণা করেছে ইউনেস্কো। ইথুপিয়ার রাজধানী আদ্দিস আবাবায় ২৮ নভেম্বর থেকে শুরু হওয়া ইউনেস্কোর ১১তম সভা শেষে বুধবার এ ঘোষণা দেয়া হয়। ইউনেস্কোর বিশ্বের সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য রক্ষায় আন্তঃদেশীয় কমিটির ওই বৈঠকে বলা হয়, মঙ্গল শোভাযাত্রা বাংলা বর্ষবরণ উৎসবে করা একটি আয়োজন। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা ইন্সটিটিউটের উদ্যোগে প্রতিবছরই পহেলা বৈশাখে এ মঙ্গল শোভাযাত্রা অনুষ্ঠিত হয়। একটি জাতিকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে এ ধরণের একটি সামাজিক উৎসব খুবই প্রেরণাদায়ক বলে উল্লেখ করা হয়। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা ইন্সটিটিউটের উদ্যোগে ১৯৮৯ সাল থেকে শুরু হয়েছিল মঙ্গল শোভাযাত্রা। শোভাযাত্রায় চারুকলার শিক্ষক শিক্ষার্থী ছাড়াও বিভিন্ন স্তরের, বিভিন্ন বয়সের মানুষ অংশগ্রহণ করে। এই শোভাযাত্রায় বিভিন্ন ধরনের প্রতীকী শিল্পকর্ম বহন করা হয়। থাকে বাংলা সংস্কৃতির পরিচয়বাহী নানা প্রতীকী উপকরণ, রং বেরংয়ের মুখোশ ও বিভিন্ন প্রাণীর প্রতিকৃতি।

Comments

Comments!

 মঙ্গল শোভাযাত্রাকে সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য ঘোষণা ইউনেস্কোরAmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

মঙ্গল শোভাযাত্রাকে সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য ঘোষণা ইউনেস্কোর

Thursday, December 1, 2016 7:39 am
11

বাংলা নববর্ষ উপলক্ষ্যে বের করা বর্ণিল মঙ্গল শোভাযাত্রাকে বিশ্ব সাংস্কৃতির অন্যতম সম্পদ হিসেবে অভিহিত করে একে সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য হিসেবে ঘোষণা করেছে ইউনেস্কো।

ইথুপিয়ার রাজধানী আদ্দিস আবাবায় ২৮ নভেম্বর থেকে শুরু হওয়া ইউনেস্কোর ১১তম সভা শেষে বুধবার এ ঘোষণা দেয়া হয়।

ইউনেস্কোর বিশ্বের সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য রক্ষায় আন্তঃদেশীয় কমিটির ওই বৈঠকে বলা হয়, মঙ্গল শোভাযাত্রা বাংলা বর্ষবরণ উৎসবে করা একটি আয়োজন। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা ইন্সটিটিউটের উদ্যোগে প্রতিবছরই পহেলা বৈশাখে এ মঙ্গল শোভাযাত্রা অনুষ্ঠিত হয়।

একটি জাতিকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে এ ধরণের একটি সামাজিক উৎসব খুবই প্রেরণাদায়ক বলে উল্লেখ করা হয়। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা ইন্সটিটিউটের উদ্যোগে ১৯৮৯ সাল থেকে শুরু হয়েছিল মঙ্গল শোভাযাত্রা।

শোভাযাত্রায় চারুকলার শিক্ষক শিক্ষার্থী ছাড়াও বিভিন্ন স্তরের, বিভিন্ন বয়সের মানুষ অংশগ্রহণ করে। এই শোভাযাত্রায় বিভিন্ন ধরনের প্রতীকী শিল্পকর্ম বহন করা হয়। থাকে বাংলা সংস্কৃতির পরিচয়বাহী নানা প্রতীকী উপকরণ, রং বেরংয়ের মুখোশ ও বিভিন্ন প্রাণীর প্রতিকৃতি।

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X