সোমবার, ১৯শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং, ৭ই ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, রাত ৮:০১
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Saturday, September 24, 2016 4:47 pm
A- A A+ Print

মন্ত্রী ছায়েদুলকে আ.লীগের পদ থেকে অব্যাহতি

905842fe5fc2e557c2d74369d79bd681-9

ব্রাহ্মণবাড়িয়া-১ (নাসিরনগর) আসনের সাংসদ, মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী ছায়েদুল হককে জেলা আওয়ামী লীগের উপদেষ্টামণ্ডলীর পদ থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে। একই সঙ্গে নাসিরনগর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি রাফিজ উদ্দিন আহমেদকে সাময়িক বহিষ্কার করা হয়েছে। গত শুক্রবার সন্ধ্যায় জেলা শিল্পকলা একাডেমিতে অনুষ্ঠিত জেলা আওয়ামী লীগের কার্যকরী কমিটির সভায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। জেলা আওয়ামী লীগের কারণ দর্শানোর নোটিশের জবাব না দেওয়ায় তাঁদের বিষয়ে এমন সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আল মামুন সরকার প্রথম আলোকে বলেন, ছায়েদুল হক জেলা আওয়ামী লীগের কোনো সিদ্ধান্ত মানেন না। এ ছাড়া গত ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে জেলা আওয়ামী লীগের সঙ্গে কোনো সমন্বয় না করে এবং জেলা আওয়ামী লীগকে সিদ্ধান্ত অমান্য করে পছন্দমতো প্রার্থী বাছাই করেছেন। এ জন্য দলের কার্যকরী সভায় সর্বসম্মতভাবে তাকে দলীয় পদ থেকে অব্যা​হ​তি দেওয়া হয়েছে। সূত্র জানায়, গত ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের সিদ্ধান্ত অমান্য করে জেলা আওয়ামী লীগের সঙ্গে কোনো প্রকার সমন্বয় না করে ছায়েদুল হক একক ভাবে প্রার্থী মনোনয়ন করেন। ইউপি নির্বাচনের সময় উপজেলার গুনিয়াউক ও হরিপুর ইউনিয়নে কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থীদের বিরুদ্ধে ছায়েদুল হক ও তাঁর সমর্থকেরা অবস্থান নিয়েছিল। এমনকি তাদের পরাজিত করতে নানা চেষ্টা করেছেন। এ কারণে গত ২৫ জুনের কার্যনির্বাহী কমিটির সভায় ছায়েদুল হককে কারণ দর্শানোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। সে সময় রাফিজ উদ্দিনকেও কারণ দর্শানো হয়। কিন্তু ছায়েদুল হক কারণ দর্শানোর কোনো জবাব দেননি। ফলে গতকাল শুক্রবার সন্ধ্যায় দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গ করার অভিযোগ এনে তাকে উপদেষ্টা পদ থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয়। আর উদ্ধত আচরণ ও অশালীন শব্দে শোকজ নোটিশের জবাব দেওয়ায় সভায় রাফিজকে সাময়িক বহিষ্কার করে দ্বিতীয়বার শোকজ করার সিদ্ধান্ত হয়। সভায় নাসিরনগর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এ টি এম মনিরুজ্জামান সরকারকে দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গ না করার জন্য সতর্ক করা হয়।গতকালের সভায় সভাপতিত্ব করেন সদর আসনের সাংসদ ও জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি র আ ম উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরী। জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আল মামুন সরকারের পরিচালনায় বক্তব্য রাখেন জেলা পরিষদের প্রশাসক সৈয়দ এমদাদুল বারী, দলের সহ সভাপতি হেলাল উদ্দিন, সহ সভাপতি ও পৌর মেয়র নায়ার কবীর, সহ সভাপতি সাবেক সাংসদ শাহ আলম, সহ সভাপতি তাজ মোহাম্মদ ইয়াছিন প্রমুখ।

Comments

Comments!

 মন্ত্রী ছায়েদুলকে আ.লীগের পদ থেকে অব্যাহতিAmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

মন্ত্রী ছায়েদুলকে আ.লীগের পদ থেকে অব্যাহতি

Saturday, September 24, 2016 4:47 pm
905842fe5fc2e557c2d74369d79bd681-9

ব্রাহ্মণবাড়িয়া-১ (নাসিরনগর) আসনের সাংসদ, মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী ছায়েদুল হককে জেলা আওয়ামী লীগের উপদেষ্টামণ্ডলীর পদ থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে। একই সঙ্গে নাসিরনগর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি রাফিজ উদ্দিন আহমেদকে সাময়িক বহিষ্কার করা হয়েছে।
গত শুক্রবার সন্ধ্যায় জেলা শিল্পকলা একাডেমিতে অনুষ্ঠিত জেলা আওয়ামী লীগের কার্যকরী কমিটির সভায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। জেলা আওয়ামী লীগের কারণ দর্শানোর নোটিশের জবাব না দেওয়ায় তাঁদের বিষয়ে এমন সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।
ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আল মামুন সরকার প্রথম আলোকে বলেন, ছায়েদুল হক জেলা আওয়ামী লীগের কোনো সিদ্ধান্ত মানেন না। এ ছাড়া গত ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে জেলা আওয়ামী লীগের সঙ্গে কোনো সমন্বয় না করে এবং জেলা আওয়ামী লীগকে সিদ্ধান্ত অমান্য করে পছন্দমতো প্রার্থী বাছাই করেছেন। এ জন্য দলের কার্যকরী সভায় সর্বসম্মতভাবে তাকে দলীয় পদ থেকে অব্যা​হ​তি দেওয়া হয়েছে।
সূত্র জানায়, গত ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের সিদ্ধান্ত অমান্য করে জেলা আওয়ামী লীগের সঙ্গে কোনো প্রকার সমন্বয় না করে ছায়েদুল হক একক ভাবে প্রার্থী মনোনয়ন করেন। ইউপি নির্বাচনের সময় উপজেলার গুনিয়াউক ও হরিপুর ইউনিয়নে কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থীদের বিরুদ্ধে ছায়েদুল হক ও তাঁর সমর্থকেরা অবস্থান নিয়েছিল। এমনকি তাদের পরাজিত করতে নানা চেষ্টা করেছেন। এ কারণে গত ২৫ জুনের কার্যনির্বাহী কমিটির সভায় ছায়েদুল হককে কারণ দর্শানোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। সে সময় রাফিজ উদ্দিনকেও কারণ দর্শানো হয়। কিন্তু ছায়েদুল হক কারণ দর্শানোর কোনো জবাব দেননি। ফলে গতকাল শুক্রবার সন্ধ্যায় দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গ করার অভিযোগ এনে তাকে উপদেষ্টা পদ থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয়। আর উদ্ধত আচরণ ও অশালীন শব্দে শোকজ নোটিশের জবাব দেওয়ায় সভায় রাফিজকে সাময়িক বহিষ্কার করে দ্বিতীয়বার শোকজ করার সিদ্ধান্ত হয়। সভায় নাসিরনগর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এ টি এম মনিরুজ্জামান সরকারকে দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গ না করার জন্য সতর্ক করা হয়।গতকালের সভায় সভাপতিত্ব করেন সদর আসনের সাংসদ ও জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি র আ ম উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরী। জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আল মামুন সরকারের পরিচালনায় বক্তব্য রাখেন জেলা পরিষদের প্রশাসক সৈয়দ এমদাদুল বারী, দলের সহ সভাপতি হেলাল উদ্দিন, সহ সভাপতি ও পৌর মেয়র নায়ার কবীর, সহ সভাপতি সাবেক সাংসদ শাহ আলম, সহ সভাপতি তাজ মোহাম্মদ ইয়াছিন প্রমুখ।

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X