বুধবার, ২১শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং, ৯ই ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, রাত ১:৩৩
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Thursday, November 24, 2016 7:17 am
A- A A+ Print

মন্দিরে হামলাকারীদের দেশত্যাগ রুখতে সীমান্তে সতর্কতা

3

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নাসিরনগরে হিন্দু সম্প্রদায়ের মন্দির ও বাড়িঘরে হামলায় জড়িতদের দেশত্যাগ রুখতে সীমান্তে সতর্কতা জারি করা হয়েছে। ঘটনায় জড়িত সন্দেহভাজন কয়েকজনের নাম ও ছবি পুলিশের পক্ষ থেকে বিজিবি’র কাছে পাঠানো হয়েছে বলে বিশ্বস্ত সূত্রে জানা গেছে। ১২ বিজিবি’র অধিনায়ক লে. কর্নেল শাহ আলী রাইজিংবিডিকে জানান, হিন্দু সম্প্রদায়ের মন্দির ও বাড়িঘরে হামলার ঘটনায় জড়িতরা যাতে দেশ ত্যাগ করতে না পারে এ ব্যাপারে পুলিশের পক্ষ থেকে বিজিবিকে সতর্ক থাকার জন্য চিঠি দেওয়া হয়েছে। সেই মোতাবেক তাদের নিয়ন্ত্রণাধীন এলাকায় সীমান্তে নিয়োজিত টহলদলকে সতর্ক করা হয়েছে। তাদের নিজস্ব সোর্সরা এ বিষয়ে কাজ করছে। হামলার পর ১৩ নভেম্বর ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সিনিয়র চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে জবানবন্দি দেন মামলার সাক্ষী ট্রাকচালক নুরুল হক ও পারভেজ খান। জবানবন্দিতে হরিপুর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান দেওয়ান আতিকুর রহমান আঁখি ও তার লোকজন ঘটনায় ব্যবহত ট্রাক ভাড়া করেন বলে বলা হয়। গত মঙ্গলবার রাতে ওই ঘটনায় সন্দেহভাজন জড়িতদের মধ্যে জনপ্রতিনিধিসহ অন্যদের ধরতে এক সঙ্গে তিনটি স্থানে অভিযানে নামে পুলিশ। তবে সেসব স্থানে তাদের পাওয়া যায়নি। পরে পুলিশের পক্ষ থেকে চিঠি দিয়ে বিষয়টি বিজিবিকে জানানো হয়। আজ বুধবার দুপুরে সন্দেহভাজন কয়েকজনের জাতীয় পরিচয়পত্রের কপি বিজিবিকে সরবরাহ করা হয়। দেশের সকল স্থল, বিমান ও নৌবন্দর কর্তৃপক্ষকে সতর্ক করতে ব্রাহ্মণবাড়িয়া পুলিশের বিশেষ শাখা (ডিএসবি) থেকে ঢাকার এসবি অফিসে চিঠি দেওয়া হয়েছে। এ বিষয়ে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. ইকবাল হোসেন রাইজিংবিডিকে জানান, নাসিরনগরের প্রেক্ষাপটে অবৈধ্যভাবে সীমান্ত পাড়ি দিয়ে কেউ যাতে দেশত্যাগ করতে না পারে সে ব্যাপারে সতর্ক থাকতে বিজিবিকে চিঠি দেওয়া হযেছে। ঘটনায় জড়িত সন্ধেহভাজনদের নাম ইমিগ্রেশন পুলিশকে দেওয়া হয়েছে। বৈধভাবেও তারা যাতে দেশত্যাগ করতে না পারে সে ব্যাপারে তাদের নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সহকারী পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) আব্দুল করিম রাইজিংবিডিকে জানান, জবানবন্দিতে নাম উঠে আসা জনপ্রতিনিধিসহ অন্যদের ধরতে ইতিমধ্যে অভিযান শুরু হয়েছে। এ ঘটনায় ইন্দনদাতাদের সবায় চিহ্নিত। অচিরেই তারা আইনের আওতায় আসবে বলে আশা করছেন।৩০ অক্টোবর নাসিরনগর সদরে হিন্দুদের মন্দির, বাড়িঘরে হামলা হয়।  

Comments

Comments!

 মন্দিরে হামলাকারীদের দেশত্যাগ রুখতে সীমান্তে সতর্কতাAmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

মন্দিরে হামলাকারীদের দেশত্যাগ রুখতে সীমান্তে সতর্কতা

Thursday, November 24, 2016 7:17 am
3

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নাসিরনগরে হিন্দু সম্প্রদায়ের মন্দির ও বাড়িঘরে হামলায় জড়িতদের দেশত্যাগ রুখতে সীমান্তে সতর্কতা জারি করা হয়েছে।

ঘটনায় জড়িত সন্দেহভাজন কয়েকজনের নাম ও ছবি পুলিশের পক্ষ থেকে বিজিবি’র কাছে পাঠানো হয়েছে বলে বিশ্বস্ত সূত্রে জানা গেছে।

১২ বিজিবি’র অধিনায়ক লে. কর্নেল শাহ আলী রাইজিংবিডিকে জানান, হিন্দু সম্প্রদায়ের মন্দির ও বাড়িঘরে হামলার ঘটনায় জড়িতরা যাতে দেশ ত্যাগ করতে না পারে এ ব্যাপারে পুলিশের পক্ষ থেকে বিজিবিকে সতর্ক থাকার জন্য চিঠি দেওয়া হয়েছে। সেই মোতাবেক তাদের নিয়ন্ত্রণাধীন এলাকায় সীমান্তে নিয়োজিত টহলদলকে সতর্ক করা হয়েছে। তাদের নিজস্ব সোর্সরা এ বিষয়ে কাজ করছে।

হামলার পর ১৩ নভেম্বর ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সিনিয়র চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে জবানবন্দি দেন মামলার সাক্ষী ট্রাকচালক নুরুল হক ও পারভেজ খান। জবানবন্দিতে হরিপুর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান দেওয়ান আতিকুর রহমান আঁখি ও তার লোকজন ঘটনায় ব্যবহত ট্রাক ভাড়া করেন বলে বলা হয়। গত মঙ্গলবার রাতে ওই ঘটনায় সন্দেহভাজন জড়িতদের মধ্যে জনপ্রতিনিধিসহ অন্যদের ধরতে এক সঙ্গে তিনটি স্থানে অভিযানে নামে পুলিশ। তবে সেসব স্থানে তাদের পাওয়া যায়নি। পরে পুলিশের পক্ষ থেকে চিঠি দিয়ে বিষয়টি বিজিবিকে জানানো হয়। আজ বুধবার দুপুরে সন্দেহভাজন কয়েকজনের জাতীয় পরিচয়পত্রের কপি বিজিবিকে সরবরাহ করা হয়। দেশের সকল স্থল, বিমান ও নৌবন্দর কর্তৃপক্ষকে সতর্ক করতে ব্রাহ্মণবাড়িয়া পুলিশের বিশেষ শাখা (ডিএসবি) থেকে ঢাকার এসবি অফিসে চিঠি দেওয়া হয়েছে।

এ বিষয়ে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. ইকবাল হোসেন রাইজিংবিডিকে জানান, নাসিরনগরের প্রেক্ষাপটে অবৈধ্যভাবে সীমান্ত পাড়ি দিয়ে কেউ যাতে দেশত্যাগ করতে না পারে সে ব্যাপারে সতর্ক থাকতে বিজিবিকে চিঠি দেওয়া হযেছে। ঘটনায় জড়িত সন্ধেহভাজনদের নাম ইমিগ্রেশন পুলিশকে দেওয়া হয়েছে। বৈধভাবেও তারা যাতে দেশত্যাগ করতে না পারে সে ব্যাপারে তাদের নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সহকারী পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) আব্দুল করিম রাইজিংবিডিকে জানান, জবানবন্দিতে নাম উঠে আসা জনপ্রতিনিধিসহ অন্যদের ধরতে ইতিমধ্যে অভিযান শুরু হয়েছে। এ ঘটনায় ইন্দনদাতাদের সবায় চিহ্নিত। অচিরেই তারা আইনের আওতায় আসবে বলে আশা করছেন।৩০ অক্টোবর নাসিরনগর সদরে হিন্দুদের মন্দির, বাড়িঘরে হামলা হয়।

 

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X