বৃহস্পতিবার, ২২শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং, ১০ই ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, দুপুর ২:২৭
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Monday, September 19, 2016 8:37 pm
A- A A+ Print

মহানবীর রওজা জিয়ারত করেছেন খালেদা জিয়া

33

ঢাকা: মক্কায় কাবা শরীফে বিদায়ী তাওয়াফ শেষে মদিনা গিয়ে মহানবী হজরত মুহাম্মদ (সা.) এর রওজা জিয়ারত করেছেন বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া। সঙ্গে ছেলে তারেক রহমানসহ পরিবারের সদস্যরাও রয়েছেন। স্থানীয় সময় রবিবার রাতে মসজিদে নববীতে এশার নামাজের পর সঙ্গীদের নিয়ে মহানবী হজরত মুহাম্মদ (সা.)-এর রওজা মোবারক জিয়ারতে যান খালেদা জিয়া। জিয়ারতের আগে তিনি রওজা শরিফে দুই রাকাত নামাজ পড়েন। পরে তিনি মোনাজাতে অংশ নেন এবং দেশ ও মুসলিম উম্মাহর জন্য দোয়া করেন। সৌদি বাদশা সউদ বিন আবদুল আজিজের আমন্ত্রণে রাজকীয় অতিথি হিসেবে খালেদা জিয়াসহ তার পরিবারের সদস্যরা এবার হজ করেন। গত ৭ সেপ্টেম্বর হজ করতে বাংলাদেশ থেকে খালেদা জিয়া এবং লন্ডন থেকে তারেক রহমানসহ পরিবারের সদস্যরা জেদ্দা পৌঁছেন। হজ পালন শেষে মহানবীর রওজা মোবারক জিয়ারতের উদ্দেশ্যে তিনি মদিনায় যান। খালেদা জিয়ার সফরসঙ্গী হিসেবে রয়েছেন বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা ও মধ্যপ্রাচ্যবিষয়ক বিশেষ দূত এনামুল হক চৌধুরী, বিএনপির তথ্য ও প্রযুক্তিবিষয়ক সম্পাদক শরীফ শাহ কামাল তাজ, খালেদা জিয়ার একান্ত সচিব এ বি এম আবদুস সাত্তার ও ব্যক্তিগত আলোকচিত্রী নুরুদ্দিন আহমেদ। তারেক রহমানের সফরসঙ্গী হিসেবে আছেন তার স্ত্রী জোবাইদা রহমান ও কন্যা জাইমা রহমান, প্রয়াত আরাফাত রহমান কোকোর স্ত্রী শর্মিলী রহমান সিঁথি। এদিকে সৌদি আরব পশ্চিমাঞ্চল বিএনপির সভাপতি কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য আহমদ আলী মুকিব,  প্রধান উপদেষ্টা কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য আবদুর রহমান, সৌদি আরব পশ্চিমাঞ্চল বিএনপির সিনিয়র সহসভাপতি আবদুল জলিল ও স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি এরশাদ আহমেদ, আবদুল মান্নান, আবদুল মমিন, মনিরুজ্জামান তপন, কেফায়তোল্লাহ, হেলাল, জাফর আহমেদ মদিনায় খালেদা জিয়ার সঙ্গে রয়েছেন। খালেদা জিয়ার এটি তৃতীয় হজ। এর আগে ১৯৯১ সালে প্রধানমন্ত্রী থাকাকালে একবার এবং ১৯৯৭ সালে বিরোধী দলে থাকাকালে তিনি হজ করেন। তবে প্রায় প্রতিবছরই রমজানে তিনি উমরাহ পালন করেন। তারেক রহমান, তার স্ত্রী জোবাইদা রহমান, মেয়ে জাইমা রহমান এবং প্রয়াত আরাফাত রহমান কোকোর স্ত্রী শর্মিলা রহমান সিঁথির এটি প্রথম হজ। ২০১৪ সালে তারা খালেদা জিয়ার সঙ্গে উমরাহ করেন। ২২ সেপ্টেম্বর দেশে ফেরার কথা রয়েছে খালেদা জিয়ার। এদিন বিকেলে সৌদি এয়ার লাইন্সের একটি ফ্লাইটে ঢাকা হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পৌঁছাবেন তিনি।

Comments

Comments!

 মহানবীর রওজা জিয়ারত করেছেন খালেদা জিয়াAmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

মহানবীর রওজা জিয়ারত করেছেন খালেদা জিয়া

Monday, September 19, 2016 8:37 pm
33

ঢাকা: মক্কায় কাবা শরীফে বিদায়ী তাওয়াফ শেষে মদিনা গিয়ে মহানবী হজরত মুহাম্মদ (সা.) এর রওজা জিয়ারত করেছেন বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া। সঙ্গে ছেলে তারেক রহমানসহ পরিবারের সদস্যরাও রয়েছেন।

স্থানীয় সময় রবিবার রাতে মসজিদে নববীতে এশার নামাজের পর সঙ্গীদের নিয়ে মহানবী হজরত মুহাম্মদ (সা.)-এর রওজা মোবারক জিয়ারতে যান খালেদা জিয়া। জিয়ারতের আগে তিনি রওজা শরিফে দুই রাকাত নামাজ পড়েন। পরে তিনি মোনাজাতে অংশ নেন এবং দেশ ও মুসলিম উম্মাহর জন্য দোয়া করেন।

সৌদি বাদশা সউদ বিন আবদুল আজিজের আমন্ত্রণে রাজকীয় অতিথি হিসেবে খালেদা জিয়াসহ তার পরিবারের সদস্যরা এবার হজ করেন।

গত ৭ সেপ্টেম্বর হজ করতে বাংলাদেশ থেকে খালেদা জিয়া এবং লন্ডন থেকে তারেক রহমানসহ পরিবারের সদস্যরা জেদ্দা পৌঁছেন। হজ পালন শেষে মহানবীর রওজা মোবারক জিয়ারতের উদ্দেশ্যে তিনি মদিনায় যান।

খালেদা জিয়ার সফরসঙ্গী হিসেবে রয়েছেন বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা ও মধ্যপ্রাচ্যবিষয়ক বিশেষ দূত এনামুল হক চৌধুরী, বিএনপির তথ্য ও প্রযুক্তিবিষয়ক সম্পাদক শরীফ শাহ কামাল তাজ, খালেদা জিয়ার একান্ত সচিব এ বি এম আবদুস সাত্তার ও ব্যক্তিগত আলোকচিত্রী নুরুদ্দিন আহমেদ। তারেক রহমানের সফরসঙ্গী হিসেবে আছেন তার স্ত্রী জোবাইদা রহমান ও কন্যা জাইমা রহমান, প্রয়াত আরাফাত রহমান কোকোর স্ত্রী শর্মিলী রহমান সিঁথি।

এদিকে সৌদি আরব পশ্চিমাঞ্চল বিএনপির সভাপতি কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য আহমদ আলী মুকিব,  প্রধান উপদেষ্টা কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য আবদুর রহমান, সৌদি আরব পশ্চিমাঞ্চল বিএনপির সিনিয়র সহসভাপতি আবদুল জলিল ও স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি এরশাদ আহমেদ, আবদুল মান্নান, আবদুল মমিন, মনিরুজ্জামান তপন, কেফায়তোল্লাহ, হেলাল, জাফর আহমেদ মদিনায় খালেদা জিয়ার সঙ্গে রয়েছেন।

খালেদা জিয়ার এটি তৃতীয় হজ। এর আগে ১৯৯১ সালে প্রধানমন্ত্রী থাকাকালে একবার এবং ১৯৯৭ সালে বিরোধী দলে থাকাকালে তিনি হজ করেন। তবে প্রায় প্রতিবছরই রমজানে তিনি উমরাহ পালন করেন।

তারেক রহমান, তার স্ত্রী জোবাইদা রহমান, মেয়ে জাইমা রহমান এবং প্রয়াত আরাফাত রহমান কোকোর স্ত্রী শর্মিলা রহমান সিঁথির এটি প্রথম হজ। ২০১৪ সালে তারা খালেদা জিয়ার সঙ্গে উমরাহ করেন।

২২ সেপ্টেম্বর দেশে ফেরার কথা রয়েছে খালেদা জিয়ার। এদিন বিকেলে সৌদি এয়ার লাইন্সের একটি ফ্লাইটে ঢাকা হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পৌঁছাবেন তিনি।

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X