সোমবার, ২৬শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং, ১৪ই ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, রাত ৩:৪০
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Sunday, January 22, 2017 8:36 pm
A- A A+ Print

মাঠে ফিরলো শাপেকোয়েনস, কাঁদলো পুরো স্টেডিয়াম

26

‘নতুন জীবন’ শুরু করলো শাপেকোয়েনস। ফের দল মাঠে নামালো ব্রাজিলের ক্লাবটি। তবে সেই দল আর এখন নেই। নতুন করে ২২ জন খেলোয়াড়কে চুক্তিবদ্ধ করেছে তারা। তাদের দিয়েই মর্মান্তিক ট্রাজেডি পরবর্তী প্রথম ম্যাচ খেললো তারা। তাদের হাতে তুলে দেয়া হলো কোপা সুদামেরিকাকার শিরোপা। গত ২৯ নভেম্বর কোপা সুদামেরিকানার ফাইনাল খেলতে কলম্বিয়ার যাওয়ার পথে মর্মান্তিক বিমান দুর্ঘটনায় পড়ে ব্রাজিলের ক্লাব শাপেকোয়েনসের খেলোয়াড়রা। বিমানের ৭১ যাত্রী মারা যান। এরমধ্যে খেলোয়াড় ছিলেন ১৯ জন। খেলোয়াড়দের মধ্যে ৩ জন অলৌকিকভাবে নতুন জীবন পেয়ে ফিরেছেন। এরমধ্যে গোলরক্ষক জ্যাকসন ফোলম্যান একটি পা হারিয়েছেন। কৃত্রিম ডান পা লাগানো হয়েছে তার। তবে দুই ডিফেন্ডার নেতো ও অ্যালান রাশেল পুরোপুরি সুস্থ্য আছেন। ট্রাজেডি পরবর্তী প্রথম ম্যাচে শনিবার খেলতে নামে তারা। ব্রাজিলের চ্যাম্পিয়ন পালমেইরাসের বিপক্ষে একটি প্রীতি ম্যাচ খেলে তারা। ম্যাচের আগে নিজেদের মাঠ অ্যারেনা কোন্দে’তে নতুন জীবন পাওয়া তিন খেলোয়াড়ের হাতে কোপা সুদামেরিকানার শিরোপা তুলে দেয়া হয়। সুদামেরিকানার ফাইনাল না হলেও কলম্বিয়ার ক্লাব অ্যাটলেটিকো ন্যাসিওনাল ব্রাজিলের ক্লাবটিকে চ্যাম্পিয়ন করার অনুরোধ জানায়। তারই প্রেক্ষিতে শিরোপা তুলে দেয়া হয় শাপেকোয়েনসের খেলোয়াড়দের হাতে। সেটা গ্রহণ করলেন জীবন ফিরে পাওয়া তিন খেলোয়াড়। শিরোপা গ্রহণের সময় স্টেডিয়ামে নেমে আসে শোকের ছায়া। প্রথমে শিরোপা দেয়া হয় এক পা হারানো ফোলম্যানের হাতে। হু হু করে কেঁদে ফেলেন তিনি। দলের অন্য খেলোয়াড়রা চোখমুখ চেপেও কান্না থামাতে পারেননি। জীবিত ও মৃত খেলোয়াড়দের অনেক নিকট আত্মীয় সেখানে ছিলেন। তারা একে অন্যকে জড়িয়ে ধরে কান্নায় ভেঙে পড়েন। স্টেডিয়ামে হাজির ছিল ২০ হাজার দর্শক। প্রিয় দলের খেলোয়াড়দের স্মরণে তাদের চোখ বেয়ে নেমে আসে পানি। নিহত ৭১ জনের স্মরণে ম্যাচের ৭১ মিনিটে খেলা থামিয়ে তাদেরকে বিশেষভাবে স্মরণ করা হয়। পুরো ম্যাচে সমর্থকরা ‘শাপেশোয়েনস এগিয়ে যাও’ স্লোগান দেয়। প্রীতি ম্যাচটি ২-২ গোলে ড্র হয়।

Comments

Comments!

 মাঠে ফিরলো শাপেকোয়েনস, কাঁদলো পুরো স্টেডিয়ামAmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

মাঠে ফিরলো শাপেকোয়েনস, কাঁদলো পুরো স্টেডিয়াম

Sunday, January 22, 2017 8:36 pm
26

‘নতুন জীবন’ শুরু করলো শাপেকোয়েনস। ফের দল মাঠে নামালো ব্রাজিলের ক্লাবটি। তবে সেই দল আর এখন নেই। নতুন করে ২২ জন খেলোয়াড়কে চুক্তিবদ্ধ করেছে তারা। তাদের দিয়েই মর্মান্তিক ট্রাজেডি পরবর্তী প্রথম ম্যাচ খেললো তারা। তাদের হাতে তুলে দেয়া হলো কোপা সুদামেরিকাকার শিরোপা। গত ২৯ নভেম্বর কোপা সুদামেরিকানার ফাইনাল খেলতে কলম্বিয়ার যাওয়ার পথে মর্মান্তিক বিমান দুর্ঘটনায় পড়ে ব্রাজিলের ক্লাব শাপেকোয়েনসের খেলোয়াড়রা। বিমানের ৭১ যাত্রী মারা যান। এরমধ্যে খেলোয়াড় ছিলেন ১৯ জন। খেলোয়াড়দের মধ্যে ৩ জন অলৌকিকভাবে নতুন জীবন পেয়ে ফিরেছেন। এরমধ্যে গোলরক্ষক জ্যাকসন ফোলম্যান একটি পা হারিয়েছেন। কৃত্রিম ডান পা লাগানো হয়েছে তার। তবে দুই ডিফেন্ডার নেতো ও অ্যালান রাশেল পুরোপুরি সুস্থ্য আছেন। ট্রাজেডি পরবর্তী প্রথম ম্যাচে শনিবার খেলতে নামে তারা। ব্রাজিলের চ্যাম্পিয়ন পালমেইরাসের বিপক্ষে একটি প্রীতি ম্যাচ খেলে তারা। ম্যাচের আগে নিজেদের মাঠ অ্যারেনা কোন্দে’তে নতুন জীবন পাওয়া তিন খেলোয়াড়ের হাতে কোপা সুদামেরিকানার শিরোপা তুলে দেয়া হয়। সুদামেরিকানার ফাইনাল না হলেও কলম্বিয়ার ক্লাব অ্যাটলেটিকো ন্যাসিওনাল ব্রাজিলের ক্লাবটিকে চ্যাম্পিয়ন করার অনুরোধ জানায়। তারই প্রেক্ষিতে শিরোপা তুলে দেয়া হয় শাপেকোয়েনসের খেলোয়াড়দের হাতে। সেটা গ্রহণ করলেন জীবন ফিরে পাওয়া তিন খেলোয়াড়। শিরোপা গ্রহণের সময় স্টেডিয়ামে নেমে আসে শোকের ছায়া। প্রথমে শিরোপা দেয়া হয় এক পা হারানো ফোলম্যানের হাতে। হু হু করে কেঁদে ফেলেন তিনি। দলের অন্য খেলোয়াড়রা চোখমুখ চেপেও কান্না থামাতে পারেননি। জীবিত ও মৃত খেলোয়াড়দের অনেক নিকট আত্মীয় সেখানে ছিলেন। তারা একে অন্যকে জড়িয়ে ধরে কান্নায় ভেঙে পড়েন। স্টেডিয়ামে হাজির ছিল ২০ হাজার দর্শক। প্রিয় দলের খেলোয়াড়দের স্মরণে তাদের চোখ বেয়ে নেমে আসে পানি। নিহত ৭১ জনের স্মরণে ম্যাচের ৭১ মিনিটে খেলা থামিয়ে তাদেরকে বিশেষভাবে স্মরণ করা হয়। পুরো ম্যাচে সমর্থকরা ‘শাপেশোয়েনস এগিয়ে যাও’ স্লোগান দেয়। প্রীতি ম্যাচটি ২-২ গোলে ড্র হয়।

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X