বুধবার, ২১শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং, ৯ই ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, রাত ৩:২২
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Friday, November 25, 2016 9:37 am
A- A A+ Print

মায়ানমারের ওপর নিষেধাজ্ঞার সুপারিশ এইচ টি ইমামের

162294_1

ঢাকা: রোহিঙ্গা সংকট নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর রাজনৈতিক উপদেষ্টা এইচ টি ইমাম মায়ানমারের বিরুদ্ধে আন্তর্জাতিক নিষেধাজ্ঞা আরোপের সুপারিশ করেছেন। এটা ছাড়া মিয়ানমার সরকারের বোধোদয় হবে না বলে মন্তব্য করেন এইচ টি ইমাম। বৃহস্পতিবার বিবিসি বাংলার প্রবাহ টিভির সাথে এক সাক্ষাৎকারে এইচ টি ইমামকে জিজ্ঞেস করা হয়েছিল, রোহিঙ্গাদের নিয়ে বর্তমান সঙ্কটের সমাধান কিভাবে হতে পারে? জবাবে তিনি মায়ানমারের ওপর স্যাংশন বা নিষেধাজ্ঞা আরোপের কথা বলেন। এর পক্ষে যুক্তি তুলে ধরে তিনি বলেন, অতীতে অনেক দেশেই এমন নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছে। এইচ টি ইমাম বলেন, ‘পরমাণু অস্ত্র নিয়ে জাতিসংঘ ইরানের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছিল। সিরিয়া, ইরাকসহ বিভিন্ন দেশের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে।’ ‘এখন মিয়ানমারের ওপর যদি নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়, তাহলে সম্ভবত তাদের বোধোদয় হবে। নইলে হবে না।’ ওদিকে বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ এইচ মাহমুদ আলী মায়ানমার থেকে আসা রোহিঙ্গা শরণার্থীদের প্রসঙ্গে বৃহস্পতিবার ঢাকায় বিদেশি রাষ্ট্রদূতদের কাছে সরকারের অবস্থান ব্যাখ্যা করেছেন। বৈঠকের পর পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে দেয়া এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয় বিদেশি রাষ্ট্রদূত ও বিভিন্ন সংস্থার প্রতিনিধিদের কাছে এ এইচ মাহমুদ আলী মায়ানমারে নতুন সরকার আসার পর বাংলাদেশের সহযোগিতার বিস্তারিত বর্ণনা দিয়েছেন। তিনি আশা করেছেন যে মিয়ানমারের পরিস্থিতি স্বাভাবিক হবে এবং বাংলাদেশে আশ্রয় নেয়া তাদের নাগরিকরা ফেরত যেতে পারবে। সঙ্কট মোকাবেলায় সম্ভাব্য সব উপায়ে মায়ানমারকে সহায়তার কথা বলা হয়েছে বাংলাদেশের পক্ষ থেকে। এর আগে দুপুরে পররাষ্ট্রমন্ত্রী সাংবাদিকদের বলেছেন, মানবিক কারণেই কিছু রোহিঙ্গা বাংলাদেশে প্রবেশের সুযোগ পেয়েছে। যুক্তি হিসেবে তিনি বলেন, সব লোকজন আটকানো বেশ কঠিন। আর কারো কারো মানবিক পরিস্থিতি এতো খারাপ যে তাদের ঢুকতে না দিয়ে পারা যায়না। তিনি একথাও জানিয়েছেন যে বাংলাদেশে যারা অনুপ্রবেশ করছে তাদের খাবার ঔষধসহ প্রয়োজনীয় মানবিক সহায়তা দেয়া হচ্ছে। সূত্র: বিবিসি

Comments

Comments!

 মায়ানমারের ওপর নিষেধাজ্ঞার সুপারিশ এইচ টি ইমামেরAmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

মায়ানমারের ওপর নিষেধাজ্ঞার সুপারিশ এইচ টি ইমামের

Friday, November 25, 2016 9:37 am
162294_1

ঢাকা: রোহিঙ্গা সংকট নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর রাজনৈতিক উপদেষ্টা এইচ টি ইমাম মায়ানমারের বিরুদ্ধে আন্তর্জাতিক নিষেধাজ্ঞা আরোপের সুপারিশ করেছেন।

এটা ছাড়া মিয়ানমার সরকারের বোধোদয় হবে না বলে মন্তব্য করেন এইচ টি ইমাম।

বৃহস্পতিবার বিবিসি বাংলার প্রবাহ টিভির সাথে এক সাক্ষাৎকারে এইচ টি ইমামকে জিজ্ঞেস করা হয়েছিল, রোহিঙ্গাদের নিয়ে বর্তমান সঙ্কটের সমাধান কিভাবে হতে পারে?

জবাবে তিনি মায়ানমারের ওপর স্যাংশন বা নিষেধাজ্ঞা আরোপের কথা বলেন।

এর পক্ষে যুক্তি তুলে ধরে তিনি বলেন, অতীতে অনেক দেশেই এমন নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছে।

এইচ টি ইমাম বলেন, ‘পরমাণু অস্ত্র নিয়ে জাতিসংঘ ইরানের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছিল। সিরিয়া, ইরাকসহ বিভিন্ন দেশের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে।’

‘এখন মিয়ানমারের ওপর যদি নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়, তাহলে সম্ভবত তাদের বোধোদয় হবে। নইলে হবে না।’

ওদিকে বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ এইচ মাহমুদ আলী মায়ানমার থেকে আসা রোহিঙ্গা শরণার্থীদের প্রসঙ্গে বৃহস্পতিবার ঢাকায় বিদেশি রাষ্ট্রদূতদের কাছে সরকারের অবস্থান ব্যাখ্যা করেছেন।

বৈঠকের পর পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে দেয়া এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয় বিদেশি রাষ্ট্রদূত ও বিভিন্ন সংস্থার প্রতিনিধিদের কাছে এ এইচ মাহমুদ আলী মায়ানমারে নতুন সরকার আসার পর বাংলাদেশের সহযোগিতার বিস্তারিত বর্ণনা দিয়েছেন।

তিনি আশা করেছেন যে মিয়ানমারের পরিস্থিতি স্বাভাবিক হবে এবং বাংলাদেশে আশ্রয় নেয়া তাদের নাগরিকরা ফেরত যেতে পারবে।

সঙ্কট মোকাবেলায় সম্ভাব্য সব উপায়ে মায়ানমারকে সহায়তার কথা বলা হয়েছে বাংলাদেশের পক্ষ থেকে।

এর আগে দুপুরে পররাষ্ট্রমন্ত্রী সাংবাদিকদের বলেছেন, মানবিক কারণেই কিছু রোহিঙ্গা বাংলাদেশে প্রবেশের সুযোগ পেয়েছে।

যুক্তি হিসেবে তিনি বলেন, সব লোকজন আটকানো বেশ কঠিন। আর কারো কারো মানবিক পরিস্থিতি এতো খারাপ যে তাদের ঢুকতে না দিয়ে পারা যায়না।

তিনি একথাও জানিয়েছেন যে বাংলাদেশে যারা অনুপ্রবেশ করছে তাদের খাবার ঔষধসহ প্রয়োজনীয় মানবিক সহায়তা দেয়া হচ্ছে।

সূত্র: বিবিসি

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X