বৃহস্পতিবার, ২৭শে জুলাই, ২০১৭ ইং, ১২ই শ্রাবণ, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, দুপুর ১২:৫২
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Friday, March 3, 2017 7:14 pm | আপডেটঃ March 03, 2017 7:15 PM
A- A A+ Print

মার্কিন সামরিক ইতিহাসে প্রথম ‘চ্যাপলেইন’ হচ্ছেন ইসলাম গ্রহণকারী খালিদ

25

ওয়াশিংটন: মার্কিন সামরিক ইতিহাসে ডিভিশন পর্যায়ে প্রথম মুসলিম হিসেবে ‘চ্যাপলেইন’ বা আধ্যাত্মিক নেতা হিসেবে দায়িত্ব নিতে যাচ্ছেন ইসলামে ধর্মান্তরিত লেফ্টেন্যান্ট কর্নেল খালিদ শাহবাজ। চলতি বছরের গ্রীষ্মে তিনি এ দায়িত্ব নিচ্ছেন বলে জানিয়েছেন ক্যালিফর্নিয়া ভিত্তিক সংবাদমাধ্যম ম্যাককাটচি। মার্কিন সেনাবাহিনীর ওয়াশিংটন রাজ্যের ‘সপ্তম যুগ্ম বেজ লুইস-ম্যাকচার্ডের’ পদাতিক ডিভিশনের ‘চ্যাপলেইন’ হিসেবে শাহবাজ ১৪,০০০ বেশি সৈন্যের আধ্যাত্মিক নেতা হতে হবেন। এসব সৈন্যদের অধিকাংশই  খ্রিস্টান। বর্তমানে মার্কিন সেনাবাহিনীতে ডিভিশন ছাড়া মাত্র পাঁচজন মুসলিম ‘চ্যাপলেইন’ রয়েছে এবং পুরো সামরিক বাহিনীতে এ সংখ্যা মাত্র ১০। শাহবাজ ছিলেন লুইসিয়ানা অঙ্গরাজ্যের একজন ধর্মপ্রাণ খ্রিস্টান। ধর্মান্তরিত হওয়ার আগে তার নাম ছিল মাইকেল বার্নস। ইসলাম ধর্মে ধর্মান্তরিত হওয়ার পর নিজের নাম পরিবর্তন করে রাখেন খালিদ শাহবাজ। তিনি জানান, ইসলামের মূলনীতির প্রতি তিনি এক গভীর সংযোগ অনুভব করেন। যে জিনিসটি তাকে সবচেয়ে বেশি অনুপ্রাণিত করেছে তার মধ্যে অন্যতম হচ্ছে ইসলামের দাতব্য ও মানবসেবার উপর জোর দেয়ার বিষয়টি এবং ইসলামে খ্রিস্ট ধর্মের যাজকীয় অনুক্রমের অনুপস্থিতি। শাহবাজের ইসলামে ধর্মান্তরের বিষয়টি প্রথমদিকে তার পরিবার ভালভাবে গ্রহণ করেনি। কিন্তু এখন তারা ইবাদতের সময় হলে তাকে স্মরণ করিয়ে দেয় এবং তার খাবারের জন্য শুয়োরের মাংশ ছাড়া আলাদা খাবার রান্না করে দেন। শাহবাজ জোর দেন যে, সম্প্রীতির জন্য এই ধরনের ব্যবহার চমৎকার। তিনি বলেন, ‘আমি এখনো আমার পরিবারের সঙ্গে গির্জায় যাই এবং আমি মনে করি দুই ধর্মের মানুষের মধ্যে সম্প্রীতি প্রতিষ্ঠার জন্য এটি একটি গুরুত্বপূর্ণ অংশ।’ তিনি আরো বলেন, ‘দীর্ঘ দিন যাবৎ আমার ভিতর গেঁথে আছে এমন কোন কিছুকে অসম্মান করা আমার জন্য অশোভন হবে।’ শাহবাজ গত ২৬ বছর ধরে সেনাবাহিনীতে দায়িত্ব পালন করে আসছেন। এরমধ্যে ১৮ বছর একটি ‘চ্যাপলেইন’ হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। বছরের পর বছর ধরে তিনি বিপুল সংখ্যক সৈন্যদের পরামর্শ দিয়েছেন। তাদের বেশির ভাগই অ্যালকোহলজনিত এবং সম্পর্ক সমস্যায় তার কাছে সহায়তা চাইত। মুসলিম বিশ্বাসের কারণে অনেকেই শাহবাজের সঙ্গে কাজ করতে অস্বীকৃতি জানিয়েছেন বলে তিনি জানান। শাহবাজ বলেন, ‘কিন্তু এ নিয়ে আমার মনে কষ্ট কোন নেই। চ্যাপলেইনের নীতিবাক্য ‘কর্ম সম্পাদন’ মেনেই আমি বাস করছি।’ তিনি আরো বলেন, ‘কিছু চ্যালেঞ্জ আছে যা সত্যি সত্যি মনোভাব ও উপলদ্ধির পরিবর্তন ঘটাতে পারে। আমি সেনাবাহিনী এবং আমার ধর্মের জন্য একজন দূত হওয়ার বাস্তব সুযোগ পেয়ে আমি অত্যন্ত খুশি।’ সূত্র: মিলিটারি টাইমস ডটকম
 

Comments

Comments!

 মার্কিন সামরিক ইতিহাসে প্রথম ‘চ্যাপলেইন’ হচ্ছেন ইসলাম গ্রহণকারী খালিদAmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

মার্কিন সামরিক ইতিহাসে প্রথম ‘চ্যাপলেইন’ হচ্ছেন ইসলাম গ্রহণকারী খালিদ

Friday, March 3, 2017 7:14 pm | আপডেটঃ March 03, 2017 7:15 PM
25

ওয়াশিংটন: মার্কিন সামরিক ইতিহাসে ডিভিশন পর্যায়ে প্রথম মুসলিম হিসেবে ‘চ্যাপলেইন’ বা আধ্যাত্মিক নেতা হিসেবে দায়িত্ব নিতে যাচ্ছেন ইসলামে ধর্মান্তরিত লেফ্টেন্যান্ট কর্নেল খালিদ শাহবাজ।

চলতি বছরের গ্রীষ্মে তিনি এ দায়িত্ব নিচ্ছেন বলে জানিয়েছেন ক্যালিফর্নিয়া ভিত্তিক সংবাদমাধ্যম ম্যাককাটচি।

মার্কিন সেনাবাহিনীর ওয়াশিংটন রাজ্যের ‘সপ্তম যুগ্ম বেজ লুইস-ম্যাকচার্ডের’ পদাতিক ডিভিশনের ‘চ্যাপলেইন’ হিসেবে শাহবাজ ১৪,০০০ বেশি সৈন্যের আধ্যাত্মিক নেতা হতে হবেন। এসব সৈন্যদের অধিকাংশই  খ্রিস্টান।

বর্তমানে মার্কিন সেনাবাহিনীতে ডিভিশন ছাড়া মাত্র পাঁচজন মুসলিম ‘চ্যাপলেইন’ রয়েছে এবং পুরো সামরিক বাহিনীতে এ সংখ্যা মাত্র ১০।

শাহবাজ ছিলেন লুইসিয়ানা অঙ্গরাজ্যের একজন ধর্মপ্রাণ খ্রিস্টান। ধর্মান্তরিত হওয়ার আগে তার নাম ছিল মাইকেল বার্নস। ইসলাম ধর্মে ধর্মান্তরিত হওয়ার পর নিজের নাম পরিবর্তন করে রাখেন খালিদ শাহবাজ।

তিনি জানান, ইসলামের মূলনীতির প্রতি তিনি এক গভীর সংযোগ অনুভব করেন। যে জিনিসটি তাকে সবচেয়ে বেশি অনুপ্রাণিত করেছে তার মধ্যে অন্যতম হচ্ছে ইসলামের দাতব্য ও মানবসেবার উপর জোর দেয়ার বিষয়টি এবং ইসলামে খ্রিস্ট ধর্মের যাজকীয় অনুক্রমের অনুপস্থিতি।

শাহবাজের ইসলামে ধর্মান্তরের বিষয়টি প্রথমদিকে তার পরিবার ভালভাবে গ্রহণ করেনি। কিন্তু এখন তারা ইবাদতের সময় হলে তাকে স্মরণ করিয়ে দেয় এবং তার খাবারের জন্য শুয়োরের মাংশ ছাড়া আলাদা খাবার রান্না করে দেন।

শাহবাজ জোর দেন যে, সম্প্রীতির জন্য এই ধরনের ব্যবহার চমৎকার।

তিনি বলেন, ‘আমি এখনো আমার পরিবারের সঙ্গে গির্জায় যাই এবং আমি মনে করি দুই ধর্মের মানুষের মধ্যে সম্প্রীতি প্রতিষ্ঠার জন্য এটি একটি গুরুত্বপূর্ণ অংশ।’

তিনি আরো বলেন, ‘দীর্ঘ দিন যাবৎ আমার ভিতর গেঁথে আছে এমন কোন কিছুকে অসম্মান করা আমার জন্য অশোভন হবে।’

শাহবাজ গত ২৬ বছর ধরে সেনাবাহিনীতে দায়িত্ব পালন করে আসছেন। এরমধ্যে ১৮ বছর একটি ‘চ্যাপলেইন’ হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।

বছরের পর বছর ধরে তিনি বিপুল সংখ্যক সৈন্যদের পরামর্শ দিয়েছেন। তাদের বেশির ভাগই অ্যালকোহলজনিত এবং সম্পর্ক সমস্যায় তার কাছে সহায়তা চাইত।

মুসলিম বিশ্বাসের কারণে অনেকেই শাহবাজের সঙ্গে কাজ করতে অস্বীকৃতি জানিয়েছেন বলে তিনি জানান।

শাহবাজ বলেন, ‘কিন্তু এ নিয়ে আমার মনে কষ্ট কোন নেই। চ্যাপলেইনের নীতিবাক্য ‘কর্ম সম্পাদন’ মেনেই আমি বাস করছি।’

তিনি আরো বলেন, ‘কিছু চ্যালেঞ্জ আছে যা সত্যি সত্যি মনোভাব ও উপলদ্ধির পরিবর্তন ঘটাতে পারে। আমি সেনাবাহিনী এবং আমার ধর্মের জন্য একজন দূত হওয়ার বাস্তব সুযোগ পেয়ে আমি অত্যন্ত খুশি।’

সূত্র: মিলিটারি টাইমস ডটকম

 

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X