বৃহস্পতিবার, ২২শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং, ১০ই ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, রাত ১:১০
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Sunday, December 11, 2016 1:58 pm
A- A A+ Print

মুখোমুখি দুই প্রেমিক, ঘুষিতে একজন নিহত

%e0%a7%a7%e0%a7%aa

সংসার জীবন আছে। সঙ্গে বাড়তি হিসেবে দু-দু'জনের সঙ্গে চালিয়ে যাচ্ছেন পরকীয়া। এর একজন প্রৌঢ়, অন্যজন যুবক। তাদের গল্পটা যেন 'এক ফুল, দো মালি'র। কলকাতার টাকির ওই নারী দুই প্রেমিকের সঙ্গে দেখা করতে হাসপাতাল চত্বরে আসতে বলেন। স্থান এক হলেও দু'জনকে আলাদা আলাদা সময়ে দেখা করতে আসতে বলেছিলেন তিনি। কিন্তু স্রেফ সময়ের হেরফেরে মুখোমুখি দেখা হয়ে গেল তিনজনের। আর তার পরেই ঝামেলা লেগে গেল দুই প্রেমিকের! প্রথমে ধস্তাধস্তি। তারপর হাতাহাতি। আচমকা ঘুষিতে জ্ঞান হারান প্রৌঢ়। হাসপাতালে নিলে চিকিৎসকেরা জানান, প্রৌঢ় মারা গেছেন। শনিবার বসিরহাট হাসপাতাল চত্বরে এ ঘটনা ঘটে। বসিরহাটের আরএন রোডের বাসিন্দা প্রদীপ দত্ত (৫৫) নামে ওই প্রৌঢ়কে খুনের অভিযোগে পুলিশ টাকির বাসিন্দা সুজিত বিশ্বাস নামে ওই যুবককে গ্রেফতার করেছে। আর ওই মহিলাকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য থানায় নেয়া হয়। জেরায় তিনি প্রদীপ এবং সুজিতের সঙ্গে তার সম্পর্কের কথা স্বীকার করেছেন। জানা গেছে, প্রদীপ বৈদ্যুতিক সরঞ্জামের ব্যবসা করতেন। সেই সূত্রেই টাকির ওই মহিলার সঙ্গে পরিচয়। মহিলা বিবাহিত। তার সঙ্গে আগেই সুজিতের সম্পর্ক ছিল। মহিলা শনিবার এক আত্মীয়কে দেখতে হাসপাতালে যান। সেখানে আগেই পৌঁছেছিলেন প্রদীপ। একটি দোকানে তিনি চা খাচ্ছিলেন। সেই সময় সুজিতকে ওই মহিলার সঙ্গে কথা বলতে দেখেন। সন্দেহ হওয়ায় সুজিতের দিকে তেড়ে যান। তারপরেই তাণ্ডব শুরু। প্রদীপ জ্ঞান হারালে সুজিতকে কর্তব্যরত সিভিক ভলান্টিয়ারদের হাতে তুলে দেয়া হয়। পরে প্রদীপের ছেলে সুজিতের বিরুদ্ধে খুনের অভিযোগ করলে তাকে গ্রেফতার দেখানো হয়। তথ্যসূত্র: আনন্দবাজার পত্রিকা

Comments

Comments!

 মুখোমুখি দুই প্রেমিক, ঘুষিতে একজন নিহতAmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

মুখোমুখি দুই প্রেমিক, ঘুষিতে একজন নিহত

Sunday, December 11, 2016 1:58 pm
%e0%a7%a7%e0%a7%aa

সংসার জীবন আছে। সঙ্গে বাড়তি হিসেবে দু-দু’জনের সঙ্গে চালিয়ে যাচ্ছেন পরকীয়া। এর একজন প্রৌঢ়, অন্যজন যুবক।

তাদের গল্পটা যেন ‘এক ফুল, দো মালি’র। কলকাতার টাকির ওই নারী দুই প্রেমিকের সঙ্গে দেখা করতে হাসপাতাল চত্বরে আসতে বলেন।

স্থান এক হলেও দু’জনকে আলাদা আলাদা সময়ে দেখা করতে আসতে বলেছিলেন তিনি। কিন্তু স্রেফ সময়ের হেরফেরে মুখোমুখি দেখা হয়ে গেল তিনজনের।

আর তার পরেই ঝামেলা লেগে গেল দুই প্রেমিকের! প্রথমে ধস্তাধস্তি। তারপর হাতাহাতি। আচমকা ঘুষিতে জ্ঞান হারান প্রৌঢ়। হাসপাতালে নিলে চিকিৎসকেরা জানান, প্রৌঢ় মারা গেছেন।

শনিবার বসিরহাট হাসপাতাল চত্বরে এ ঘটনা ঘটে। বসিরহাটের আরএন রোডের বাসিন্দা প্রদীপ দত্ত (৫৫) নামে ওই প্রৌঢ়কে খুনের অভিযোগে পুলিশ টাকির বাসিন্দা সুজিত বিশ্বাস নামে ওই যুবককে গ্রেফতার করেছে।

আর ওই মহিলাকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য থানায় নেয়া হয়। জেরায় তিনি প্রদীপ এবং সুজিতের সঙ্গে তার সম্পর্কের কথা স্বীকার করেছেন।

জানা গেছে, প্রদীপ বৈদ্যুতিক সরঞ্জামের ব্যবসা করতেন। সেই সূত্রেই টাকির ওই মহিলার সঙ্গে পরিচয়। মহিলা বিবাহিত।

তার সঙ্গে আগেই সুজিতের সম্পর্ক ছিল। মহিলা শনিবার এক আত্মীয়কে দেখতে হাসপাতালে যান। সেখানে আগেই পৌঁছেছিলেন প্রদীপ।

একটি দোকানে তিনি চা খাচ্ছিলেন। সেই সময় সুজিতকে ওই মহিলার সঙ্গে কথা বলতে দেখেন। সন্দেহ হওয়ায় সুজিতের দিকে তেড়ে যান।

তারপরেই তাণ্ডব শুরু। প্রদীপ জ্ঞান হারালে সুজিতকে কর্তব্যরত সিভিক ভলান্টিয়ারদের হাতে তুলে দেয়া হয়। পরে প্রদীপের ছেলে সুজিতের বিরুদ্ধে খুনের অভিযোগ করলে তাকে গ্রেফতার দেখানো হয়।

তথ্যসূত্র: আনন্দবাজার পত্রিকা

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X