শনিবার, ২৪শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং, ১২ই ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, রাত ১১:৫৬
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Tuesday, November 22, 2016 3:58 pm
A- A A+ Print

মুসলিমসহ অভিবাসীদের তথ্য ট্রাম্প প্রশাসনকে দেবে না নিউইয়র্ক

5566

নিউইয়র্কে বসবাসরত ব্যক্তিদের পরিচয়সংক্রান্ত কোনো তথ্য কেন্দ্রীয় সরকারকে দেওয়া হবে না। মুসলিম অভিবাসীদের আলাদাভাবে নিবন্ধনের চেষ্টা করা হলেও তা প্রতিহত করা হবে। আইনি পদক্ষেপ নেওয়া হবে। মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ডোনাল্ড ট্রাম্প জয়ী হওয়ায় আতঙ্কগ্রস্ত মুসলিম অভিবাসীদের এভাবে আশ্বস্ত করলেন নিউইয়র্কের মেয়র ডি ব্লাজিও। গতকাল সোমবার নিউইয়র্কের নগর ভবনে এ বক্তব্য দেন মেয়র। যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে প্রচারের সময় মুসলিমবিদ্বেষী বক্তব্য দেওয়ায় এবং অবৈধ অভিবাসীদের যুক্তরাষ্ট্র থেকে বের করে দেওয়ার ঘোষণা দিয়ে কঠোরভাবে সমালোচিত হন ডোনাল্ড ট্রাম্প। তিনি প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হওয়ার পর থেকে সেখানে বসবাসরত মুসলিম সম্প্রদায় ও অভিবাসীদের মধ্যে উদ্বেগ বিরাজ করছে। ট্রাম্প প্রশাসনে অতি রক্ষণশীলরা স্থান পাবেন বলে শোনা যাচ্ছে। সে ক্ষেত্রে পরবর্তী পরিস্থিতি কী হবে, তা নিয়ে আতঙ্ক রয়েছে। এ অবস্থায় নিউইয়র্কের মেয়র ডি ব্লাজিওর বক্তব্য আশ্বস্ত করেছে মুসলিমসহ অভিবাসীদের। মেয়র স্পষ্টই জানিয়েছেন, আমেরিকায় মুসলমানদের নাম তালিকাভুক্তির জন্য ট্রাম্প প্রশাসনের যেকোনো চেষ্টা প্রতিহত করা হবে। নিউইয়র্কে ইস্যু করা কোনো পরিচয়পত্রের তথ্য ফেডারেল সরকারকে দেওয়ার অনুরোধও প্রত্যাখ্যান করা হবে। নগর ভবনে নানা ধর্ম-বর্ণের লোকজনকে নিয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে মেয়র বলেন, চারদিকে যে ভীতি বিরাজ করছে, এতে এ কথা জোর দিয়ে বলাটা জরুরি, প্রেসিডেন্ট হিসেবে ডোনাল্ড ট্রাম্প জয়ী হওয়াই শেষ কথা নয়। এটাকে শুরু বলা যেতে পারে। অভিবাসী পরিবারকে বিচ্ছিন্ন করার জন্য কেন্দ্রীয় সরকার কোনো চেষ্টা চালালে তা মেনে নেবে না নিউইয়র্ক। নিউইয়র্ক নগরীর পুলিশ কমিশনার জেমস ও’নিল বলেন, ৮ নভেম্বর নির্বাচনের পর নিউইয়র্কে বিদ্বেষপূর্ণ অপরাধের সংখ্যা বেড়ে গেছে। গত ১৩ দিনে নগরীতে ২৮টি বিদ্বেষপূর্ণ অপরাধের ঘটনা রেকর্ড করা হয়েছে, যা গত বছরের একই সময়ের চেয়ে বেশি।

Comments

Comments!

 মুসলিমসহ অভিবাসীদের তথ্য ট্রাম্প প্রশাসনকে দেবে না নিউইয়র্কAmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

মুসলিমসহ অভিবাসীদের তথ্য ট্রাম্প প্রশাসনকে দেবে না নিউইয়র্ক

Tuesday, November 22, 2016 3:58 pm
5566

নিউইয়র্কে বসবাসরত ব্যক্তিদের পরিচয়সংক্রান্ত কোনো তথ্য কেন্দ্রীয় সরকারকে দেওয়া হবে না। মুসলিম অভিবাসীদের আলাদাভাবে নিবন্ধনের চেষ্টা করা হলেও তা প্রতিহত করা হবে। আইনি পদক্ষেপ নেওয়া হবে।
মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ডোনাল্ড ট্রাম্প জয়ী হওয়ায় আতঙ্কগ্রস্ত মুসলিম অভিবাসীদের এভাবে আশ্বস্ত করলেন নিউইয়র্কের মেয়র ডি ব্লাজিও। গতকাল সোমবার নিউইয়র্কের নগর ভবনে এ বক্তব্য দেন মেয়র।

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে প্রচারের সময় মুসলিমবিদ্বেষী বক্তব্য দেওয়ায় এবং অবৈধ অভিবাসীদের যুক্তরাষ্ট্র থেকে বের করে দেওয়ার ঘোষণা দিয়ে কঠোরভাবে সমালোচিত হন ডোনাল্ড ট্রাম্প। তিনি প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হওয়ার পর থেকে সেখানে বসবাসরত মুসলিম সম্প্রদায় ও অভিবাসীদের মধ্যে উদ্বেগ বিরাজ করছে। ট্রাম্প প্রশাসনে অতি রক্ষণশীলরা স্থান পাবেন বলে শোনা যাচ্ছে। সে ক্ষেত্রে পরবর্তী পরিস্থিতি কী হবে, তা নিয়ে আতঙ্ক রয়েছে। এ অবস্থায় নিউইয়র্কের মেয়র ডি ব্লাজিওর বক্তব্য আশ্বস্ত করেছে মুসলিমসহ অভিবাসীদের।

মেয়র স্পষ্টই জানিয়েছেন, আমেরিকায় মুসলমানদের নাম তালিকাভুক্তির জন্য ট্রাম্প প্রশাসনের যেকোনো চেষ্টা প্রতিহত করা হবে। নিউইয়র্কে ইস্যু করা কোনো পরিচয়পত্রের তথ্য ফেডারেল সরকারকে দেওয়ার অনুরোধও প্রত্যাখ্যান করা হবে।

নগর ভবনে নানা ধর্ম-বর্ণের লোকজনকে নিয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে মেয়র বলেন, চারদিকে যে ভীতি বিরাজ করছে, এতে এ কথা জোর দিয়ে বলাটা জরুরি, প্রেসিডেন্ট হিসেবে ডোনাল্ড ট্রাম্প জয়ী হওয়াই শেষ কথা নয়। এটাকে শুরু বলা যেতে পারে। অভিবাসী পরিবারকে বিচ্ছিন্ন করার জন্য কেন্দ্রীয় সরকার কোনো চেষ্টা চালালে তা মেনে নেবে না নিউইয়র্ক।

নিউইয়র্ক নগরীর পুলিশ কমিশনার জেমস ও’নিল বলেন, ৮ নভেম্বর নির্বাচনের পর নিউইয়র্কে বিদ্বেষপূর্ণ অপরাধের সংখ্যা বেড়ে গেছে। গত ১৩ দিনে নগরীতে ২৮টি বিদ্বেষপূর্ণ অপরাধের ঘটনা রেকর্ড করা হয়েছে, যা গত বছরের একই সময়ের চেয়ে বেশি।

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X